ঢাকা, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, বুধবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৭ শাওয়াল ১৪৪৫ হিঃ

কলকাতা কথকতা

বর্ধমান থেকে ফিরে মমতা বললেন

মরেই যেতাম, মানুষের আশীর্বাদে বেঁচে গিয়েছি

কলকাতা প্রতিনিধি

(২ মাস আগে) ২৫ জানুয়ারি ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ২:৪২ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:০২ পূর্বাহ্ন

mzamin

ফাইল ফটো

“সামনে প্রবল গতিতে ছুটে গেল একটি গাড়ি। আর একটু হলেই ধাক্কা লাগত। কিন্তু  গাড়ির চালক সঙ্গে সঙ্গে ব্রেক কষেন।” পূর্ব বর্ধমানে সভা সেরে ফেরার পথে ভয়াবহ সেই অভিজ্ঞতার কথা সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরলেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কনভয়ে আচমকা অন্য গাড়ি ঢুকে পড়ায় বিপত্তি। মাথায় চোট পান তিনি। আঘাত নিয়েই বিকেলে রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোসের সঙ্গে দেখা করতে যান মুখ্যমন্ত্রী। রাজভবন থেকে বেরিয়ে মমতা জানান, দুর্ঘটনার ভয়াবহতা ঠিক কেমন ছিল। কতটা আঘাত লাগতে পারত, সে কথাই জানিয়েছেন তিনি।  

বলেন, “একটা গাড়ি আমার কনভয়ে আচমকা ঢুকে পড়ে। ২০০ কিলোমিটার বেগে ওই গাড়িটা যাচ্ছিল। আমার গাড়িচালক বুদ্ধি করে ব্রেক কষেন।

বিজ্ঞাপন
ঠিক সময়ে ব্রেক না কষলে মরেই যেতাম। জানালাটা খোলা ছিল। ড্যাশবোর্ডটা আমার মাথায় লেগেছে। যদি কাচ বন্ধ থাকত, আমার মৃত্যুও হতে পারত। কাচ-সহ ড্যাশবোর্ড আমার সারা গায়ে ঢুকে যেত। গাড়িটা চুরমার হয়ে যেত। মানুষের আশীর্বাদে বেঁচে গিয়েছি।” 

বর্ধমানের গোদার মাঠে প্রশাসনিক সভা ছিল মমতার। বর্ধমান থেকে হেলিকপ্টারে কলকাতায় ফেরার কথা ছিল। আবহাওয়া খারাপ হওয়ায় সড়কপথে ফেরার পথেই অঘটন।  

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেন, ‘‘অনেক সময়ে অনেকে অন্য কারও গাড়ি ব্যবহার করে। সে বিষয়টি পুলিশ তদন্ত করে দেখুক। আইনের হাতে ছেড়ে দিচ্ছি। এটা নিয়ে আমি কোনও মন্তব্য করতে চাই না।”

আচমকা মুখ্যমন্ত্রীর কনভয়ে কীভাবে ২০০ কিলোমিটার বেগে গাড়ি ঢুকে পড়ল, তা নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। নিছকই দুর্ঘটনা নাকি নেপথ্যে রয়েছে বড়সড় ষড়যন্ত্র, সে প্রশ্নও তুলেছেন অনেকে। 

এর আগে, সেপ্টেম্বরে স্পেনে পায়ে চোট লেগেছিল মুখ্যমন্ত্রীর। চিকিৎসকদের পরামর্শে বাড়িতেই ছিলেন পুজোর সময়ে। এরপর বছর শেষে যখন রুটিন চেক আপ করাতে এসএসকেএম যান, তখন মুখ্যমন্ত্রীর ডান কাঁধে অস্ত্রোপচার করার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। সেদিনই অস্ত্রোপচার হয়।

কলকাতা কথকতা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

কলকাতা কথকতা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status