ঢাকা, ১৮ মে ২০২৪, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

কলকাতা কথকতা

দুঃসহ থেকে দুঃসহতর, মারাত্মক দহনে পুড়ছে তামাম গাঙ্গেয় বঙ্গ

সেবন্তী ভট্টাচার্য্য, কলকাতা প্রতিনিধি

(৩ সপ্তাহ আগে) ২১ এপ্রিল ২০২৪, রবিবার, ৫:১১ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৯:৪৩ পূর্বাহ্ন

mzamin

ভারতের মরু রাজ্য জয়সলমেরকে রীতিমতো টেক্কা দিচ্ছে কলকাতা। পারদ উঠছে চড়চড় করে এবং আগামী অন্তত চারদিন কোথাও তীব্র, কোথাও অতি তীব্র তাপপ্রবাহ চলবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। বাংলায় কোথাও কোথাও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস টপকে গিয়েছে। মহানগর কলকাতায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা প্রায় ৪১ ডিগ্রি ছুঁইছুঁই। দক্ষিণবঙ্গের সাত জেলায় চরম তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে! বাঁকুড়াতে ৪৪ ডিগ্রি পার করেছে তাপমাত্রা। পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম বর্ধমান এবং বীরভূম জেলায় চরম তাপপ্রবাহের (সিভিয়ার হিট ওয়েভ) সতর্কবার্তা আলিপুর আবহাওয়া দফতরের।    

আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আদ্রর্তাবিহীন শুখা গরমের আগুনের হলকায় মরুরাজ‌্য রাজস্থানকেও টেক্কা দিচ্ছে দক্ষিণবঙ্গ। আসলে জয়সলমেরে   সর্বোচ্চ তাপমাত্রা যেখানে ৩৬ ডিগ্রি, সেখানে কলকাতায় ছিল ৪০.২ ডিগ্রি। বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ ৮৭ থেকে ৩৯ শতাংশ। তাপপ্রবাহের ফলে RRH অর্থাৎ রিভার্স রিলেটিভ হিউমিডিটি বহাল কলকাতায়।

বিজ্ঞাপন
অর্থাৎ জলীয়বাষ্প বা আপেক্ষিক আর্দ্রতা রাতে এবং সকালে বেশি। প্রয়োজন ছাড়া সকাল ১১ টা থেকে বিকেল ৪ টে পর্যন্ত রোদে না যেতে বারণ করা হচ্ছে। তাপপ্রবাহে হিট স্ট্রোকের সম্ভাবনা বেড়ে যায়। হিট স্ট্রোকে মোকাবিলা করতে একটি গাইডলাইন কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের পক্ষ থেকে দেওয়া হয়েছে। 

এই মারাত্মক তাপপ্রবাহ মোকাবিলা করতে রাজ‌্য সরকারও প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে। প্রবল তাপপ্রবাহের কারণে কয়েকজনের মৃত্যুর প্রেক্ষিতে সাধারণের সুরক্ষায় রাজ্য সরকার প্রতিটি সরকারি হাসপাতালে হিট স্ট্রোক এর চিকিৎসায় একটি করে পৃথক ওয়ার্ড খোলার নির্দেশ দিয়েছে। স্বাস্থ্য দপ্তরের তরফে প্রতিটি জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ও হাসপাতাল সুপারদের পাঠানো নির্দেশিকায় সেই ওয়ার্ডের একটি ঘরে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ব্যবস্থা ও হাই স্পিড পাখা সহ ন্যূনতম দুটি বেড সংরক্ষিত রাখার কথা বলা হয়েছে বলে স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে। 

এছাড়াও আপৎকালীন পরিস্থিতিতে চিকিৎসার অন্যান্য সরঞ্জাম মজুত রাখতে হবে বলে জানানো হয়েছে। সবার মনে একটাই প্রশ্ন বৃষ্টি হবে কবে?সোমবার বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। পূর্ব মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় হালকা বৃষ্টির সামান্য সম্ভাবনা রয়েছে। মঙ্গলবার থেকে এই বৃষ্টির পরিমাণ ও ব্যাপকতা বাড়তে পারে। উপকূল সহ ওড়িশা সংলগ্ন জেলাগুলিতেও বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে মঙ্গলবার। তবে আপাতত খুব বেশি বৃষ্টি বা তাপমাত্রা কমে যাওয়া বা দীর্ঘমেয়াদি স্বস্তির কোনও আশা নেই। অল্প কিছুক্ষণের এই বৃষ্টি এবং এক পশলা বজ্রবিদ্যুৎ সহ বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি সাময়িক স্বস্তি দেবে। তারপর পরিস্থিতি একই রকম থাকবে। উত্তরবঙ্গে বিক্ষিপ্তভাবে বৃষ্টি চলবে। বৃষ্টির তালিকায় রয়েছে দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার এবং কোচবিহার জেলা।

কলকাতা কথকতা থেকে আরও পড়ুন

   

কলকাতা কথকতা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status