ঢাকা, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, বুধবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৭ শাওয়াল ১৪৪৫ হিঃ

অনলাইন

লাগবে ৬ টি বড় ট্রাঙ্ক, তামিলনাড়ু সরকারের কাছে যাচ্ছে জয়ললিতার ২৭ কেজি সোনা

(১ মাস আগে) ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, বুধবার, ৪:৫০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:৪৩ অপরাহ্ন

mzamin

দুর্নীতির মামলায় তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার দোষী সাব্যস্ত হওয়া এবং চার বছরের কারাদণ্ডের প্রায় এক দশক পরে এবং তার মৃত্যুর সাত বছরেরও বেশি সময় পরে জয়ললিতার  উপর আরোপিত ১০০কোটি টাকা  জরিমানা সংগ্রহের  চূড়ান্ত আইনি প্রক্রিয়া শুরু হলো ।  

জয়ললিতার জরিমানার ১০০ কোটি টাকা সংগ্রহের জন্য তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর ২০ কেজি গয়না বিক্রি বা নিলাম করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বাকি ৭ কেজি গয়না জয়ললিতা তাঁর মায়ের কাছ থেকে উত্তরাধিকার সূত্রে পেয়েছিলেন। বেঙ্গালুরুর ৩৬ তম সিটি সিভিল কোর্ট আগামী ৬ এবং ৭ মার্চ,  তামিলনাড়ুর স্বরাষ্ট্র সচিবের কাছে জয়ললিতার মালিকানাধীন ২৭ কিলোগ্রাম সোনা এবং হীরার গহনা স্থানান্তর করার কথা ঘোষণা করেছে। এর পাশাপাশি ক্যানফিন হোমস লিমিটেড, যার সাথে জয়ললিতার একটি অ্যাকাউন্ট ছিল, বেঙ্গালুরুতে বিশেষ আদালতে ৫৯ লক্ষ টাকা প্রেরণ করেছে। আদালত জানিয়েছে, গয়না সংগ্রহের জন্য ৬ মার্চ, একজন ফটোগ্রাফার এবং একজন ভিডিওগ্রাফারকে সঙ্গে নিয়ে তামিলনাড়ুর স্বরাষ্ট্র দফতরের মুখ্য সচিব এবং ভিজিল্যান্স ও দুর্নীতি-বিরোধী দফতরের আইজিপি আসবেন আদালতে। সঙ্গে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা থাকবে। আর থাকবে ছয়টি বড় মাপের ট্রাঙ্ক। 

সিভিল কোর্টের রেজিস্ট্রারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, গয়নাগুলি হস্তান্তরের জন্য নির্ধারিত ওই দুই দিনে আদালতে যথাযথ নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখার জন্য।  ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে, দুর্নীতির দায়ে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছিল জয়ললিতা, এন শশিকলা, জে ইলাভারসি এবং ভিএন সুধাকরণকে। তাদের প্রত্যেককে চার বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন
জয়ললিতাকে ১০০ কোটি টাকা এবং বাকিদের ১০ কোটি টাকা করে জরিমানা করা হয়েছিল। কর্ণাটক হাইকোর্টে আবেদন করে ২০১৫ সালে সকলেই খালাস পেয়েছিলেন। ২০১৭ সালে সুপ্রিম কোর্ট নিম্ন আদালতের রায়ই পুনর্বহাল করেন। তবে, তার আগেই মৃত্যু হয়েছিল জয়ললিতার। তাই, তাঁর কারাদণ্ড বাতিল করা হয়। বাকি তিনজনের  অবশ্য সাজা  এবং জরিমানা দুটোই হয়েছে।  

সূত্র : ফ্রি প্রেস জার্নাল

পাঠকের মতামত

২৭ কেজি স্বর্ণের জন্য তো একটি ট্রাঙ্কই যথেষ্ট। কীজন্য ছয়টি লাগবে ?

Andalib
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, বুধবার, ১১:০০ পূর্বাহ্ন

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status