ঢাকা, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, বুধবার, ২৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ রজব ১৪৪৪ হিঃ

অনলাইন

'স্টেডিয়াম ৯৭৪' কে ভেঙে দেবে কাতার সরকার

মানবজমিন ডিজিটাল

(১ মাস আগে) ৯ ডিসেম্বর ২০২২, শুক্রবার, ২:০১ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:৩৫ পূর্বাহ্ন

mzamin

ঠিক যেভাবে এটি রেকর্ড সময়ের মধ্যে নির্মিত হয়েছিল, সেভাবেই বৃহস্পতিবার থেকে কাতারের ঐতিহাসিক ৯৭৪ স্টেডিয়ামটিকে ভেঙে ফেলার কাজ  শুরু হলো। বিশ্বকাপের ডাইরিতে এটি একটি আইকনিক স্টেডিয়াম হিসেবে থেকে যাবে । কারণ এটি প্রথম সম্পূর্ণরূপে অপসারণযোগ্য আচ্ছাদিত স্টেডিয়াম হিসাবে গড়ে উঠেছিল।  ফুটবল বিশ্বকাপের ইতিহাসে এটিই প্রথম অস্থায়ী স্টেডিয়াম। এছাড়াও এতে একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রতীকী বিষয়বস্তু ছিলো -এর নামটি কাতারকে কল করার জন্য দীর্ঘ দূরত্বের কোডকে নির্দেশ করে। 

মার্কার প্রতিবেদনে বলা হয়, মডিউলার স্টিল ও শিপিং কন্টেনার দিয়ে তৈরির কারণেই সহজেই ভেঙে ফেলা যাবে এই স্টেডিয়াম। কাতারের সামুদ্রিক বাণিজ্যের গুরুত্বের স্বীকৃতিস্বরূপ, এই স্টেডিয়ামটিকে শিপিং কন্টেইনার দিয়ে তৈরি করা হয়েছিলো , যা আফ্রিকা, মধ্যপ্রাচ্য, এশিয়া এবং কাতারি  অতীতের প্রতিনিধিত্ব করে। এমন কী প্রয়োজনে ওই কন্টেইনার পুনরায় ব্যবহারও করা যাবে। এমন কী দরকার পড়লে অন্য দেশেও স্থানান্তর করা যাবে। কনন্টেইনারগুলো জাহাজে চড়ে চলে যাবে উন্নয়নশীল কোনও দেশে। সেই সব দেশের খেলাধুলার উন্নয়নে সরঞ্জাম হিসেবে ব্যবহৃত হবে স্টেডিয়াম ৯৭৪-এর এই কন্টেনারগুলো।

বিজ্ঞাপন
টুইট করে সেটা জানিয়ে দিয়েছে ফিফা।  স্টেডিয়াম ৯৭৪- এর নির্মাণশৈলীও ছিলো বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য।  শীতলকরণ সুবিধার জন্য এখানে একটি  কুলিং সিস্টেম ছিল যা পারস্য উপসাগর থেকে দোহার কেন্দ্রস্থলে  প্রায় ১০ কিলোমিটার পূর্বে বাতাসকে পুনরায় সরবরাহ  করার জন্য ডিজাইন করা হয়েছিল ।

কাতার ২০২২ এর একটি ঐতিহাসিক স্টেডিয়াম

এখানে  প্রথম খেলাটি ছিল ২২ নভেম্বর মেক্সিকো এবং পোল্যান্ডের মধ্যে ম্যাচ এবং ৪৪,০৮৯ দর্শকের ধারণক্ষমতা ছিল। এর নির্মাণ খরচ যথেষ্ট কম ছিল, যেহেতু  এর উপকরণ পুনর্ব্যবহার করা যাবে । নির্মাণ  খরচ ছিল ২০০ মিলিয়ন ডলার। এই  রাস আবু আবৌদ হাইওয়েতে এখন একটি তেল কোম্পানির সাইট  তৈরি করা হবে। যদিও অফিসিয়াল সংস্করণে বলা হয়েছে যে: "এটি কোথায় সরানো হবে এবং কাকে এই স্থানটি দেওয়া হবে তা এই মুহূর্তে জানা যায়নি।  তবে কয়েক দিনের মধ্যে এটি ভেঙে ফেলা হবে । ''গ্রুপ পর্ব থেকে এটি সাতটি ম্যাচ আয়োজন করেছে এবং এর শেষ ম্যাচটি ছিল রাউন্ড অফ ১৬-এ কোরিয়ার বিরুদ্ধে ব্রাজিলের জয়। তবে পর্তুগাল বনাম ঘানা, ফ্রান্স বনাম ডেনমার্ক, ব্রাজিল বনাম সুইজারল্যান্ড, পোল্যান্ড বনাম আর্জেন্টিনা এবং সার্বিয়া বনাম সুইজারল্যান্ডের মতো ম্যাচও এখানে হয়েছে । মেক্সিকো বনাম পোল্যান্ড ম্যাচ  চলার সময়  স্টেডিয়ামটি মেক্সিকান ভক্তদের দ্বারা পরিপূর্ণ ছিল ,  যা আজ কেবল স্মৃতি হিসাবে রয়ে যাবে।

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status