ঢাকা, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, শনিবার, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

অনলাইন

ভোক্তা পর্যায়েও বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর আবেদন করল পিডিবি

অনলাইন ডেস্ক

(২ সপ্তাহ আগে) ২৪ নভেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১১:৪৬ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:৪৩ পূর্বাহ্ন

mzamin

এবার খুচরা পর্যায়ে ভোক্তাদের জন্য বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর আবেদন করল বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি)। গড়ে ১৯ দশমিক ৪৪ শতাংশ দাম বাড়ানোর আবেদন করেছে তারা।

এর আগে গত সোমবার পাইকারি পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম ১৯ দশমিক ৯২ শতাংশ বৃদ্ধি করে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলটরি কমিশন (বিইআরসি)। এখনি খুচরা দামে প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়েছিল বিইআরসি। এরপর পিডিবি সবার আগে খুচরা দাম বাড়ানোর আবেদন জমা দিল। বাকি পাঁচ বিতরণ সংস্থার মধ্যে দুটি আজ বৃহস্পতিবার সকালে জমা দিয়েছে বলে বিইআরসি সূত্র নিশ্চিত করেছে। বাকি তিনটিও আজ বিকেলের মধ্যে জমা দিতে পারে বলে জানা গেছে।

প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম গড়ে ১ টাকা ৪৭ পয়সা বাড়ানোর আবেদন করেছে পিডিবি। আর পাইকারি দাম বেড়েছে ইউনিটে ১ টাকা ৩ পয়সা। দাম বাড়ানোর আবেদন জমা দিতে বাকি বিতরণ সংস্থার প্রস্তুতিও শেষের দিকে, যেকোনো সময় তারা জমা দিতে পারে। সবাই গড়ে প্রায় ২০ শতাংশ বাড়ানোর আবেদন করবে বলে ধারণা পাওয়া গেছে।

বিইআরসির চেয়ারম্যান আবদুল জলিল গণমাধ্যমকে বলেছেন, কমিশনের আবেদনপত্র গ্রহণ শাখায় তিনটি আবেদন জমা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। তবে এখনো তার দপ্তরে কোনো আবেদন পৌঁছায়নি।

বিজ্ঞাপন
সব বিতরণ সংস্থার আবেদন জমা হলে তা যাচাই-বাছাই করে আইন ও বিধি অনুসারে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিইআরসির কর্মকর্তারা বলছেন, আবেদনে সব তথ্য ও সংযুক্ত প্রমাণাদি ঠিক থাকলে তা আমলে নেবে কমিশন। এরপর একটি কারিগরি মূল্যায়ণ কমিটি গঠন করা হবে। কমিটি প্রতিবেদন তৈরির পর সবা পক্ষকে নিয়ে গণশুনানি করা হবে। এরপর গণশুনানি পরবর্তী কোনো ব্যাখ্যা বা জবাব নেয়া হতে পারে। এরপর আদেশ ঘোষণা করবে কমিশন। এতে অন্তত এক থেকে দেড় মাস সময় লাগতে পারে।
এদিকে গত ১৪ বছরে বিদ্যুতের দাম বেড়েছে নয়বার। এ সময় পাইকারি পর্যায়ে ১১৮ শতাংশ ও গ্রাহক পর্যায়ে ৯০ শতাংশ বেড়েছে বিদ্যুতের দাম। সবশেষ দাম বাড়ানো হয় ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে, যা ওই বছরের মার্চ থেকে কার্যকর হয়। ওই সময় পাইকারি পর্যায়ে ৮ দশমিক ৩৯ শতাংশ বাড়ানো হয় দাম। একই সময়ে খুচরা পর্যায়ে দাম বাড়ানো হয় ৫ দশমিক ৩ শতাংশ।

 

পাঠকের মতামত

please stop corruption.

Harun
২৪ নভেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১১:২৪ অপরাহ্ন

এখনি খুচরা দামে প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়েছিল বিইআরসি।--- হ্যাঁ তাইতো! কথার সত্যতা আছে বলেই তিনদিন পরে খুচরা দামে প্রভাব পড়তে শুরু করেছে ।

Amir
২৪ নভেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৯:০৭ অপরাহ্ন

At first, stop corruption and retrench high paid useless employees from PDB. Then it will become a profitable sector and not need to increase unusual rate.

Md. Momin Uddin
২৪ নভেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১:৫৮ পূর্বাহ্ন

কাজী ভাই - আপনারা প্রবাসী হয়ে বেঁচে গেছেন। মহামারী করোনা হতে আল্লাহ আমাদের রক্ষা করেছেন কিন্তু এদেশে জীবন ধারণের প্রয়োজনীয় সকল বস্তুর মূল্য বৃদ্বির মহামারী হতে রক্ষা পাই নাই। সরকার বাড়ায়-বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস, তেলের দাম-আর তাদের ছত্রছায়ায় বাড়ায় তাদের ব্যবসায়ী মহল। সরকার নিজেই তো জিনিষ পত্রের দাম বাড়াচ্ছে- তারা আর কি অন্যদের দামের তদারকি করবে। যেদিন পাইকারী পর্যায়ে বিদুৎতের দাম বাড়িয়েছে, সেদিনেই বুঝতে পেরেছিলাম পরিবারের আরেকটা খরচ বাড়ছে অচিরেই। সরকারের প্রতিনিয়ত মিথ্যার মাঝে আমরা সাধারণ জনগন নিরুপায়।

কায়নাত
২৪ নভেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১:০৫ পূর্বাহ্ন

PDB অপচয়, লুটপাট বন্ধ করলে বিদ্যুতের দাম কমাতে পারত । মহামারী আকারে দাম বৃদ্ধির রোগে পেয়েছে বাংলাদেশের সরকারি সংস্থার পরিচালকদের। তারা মনে করে সরকারি সংস্থা, যা পার লুট আর জনগণের গলা কাট। আমি কানাডায় আছি, বাড়ির মালিক । 2020 থেকে সরকার দুই বার বিদ্যুতের দাম কমিয়েছে । তারা হাইড্রো টরোন্টোর পরিচালক অপসারণ করেছে । এখন বিদ্যুতের অপচয় বন্ধ । তাই তারা দাম কমিয়ে ও ক্ষতি নয় লাভজনক অবস্থানে আছে ।

Kazi
২৩ নভেম্বর ২০২২, বুধবার, ১০:৫৬ অপরাহ্ন

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status