ঢাকা, ২ জুলাই ২০২২, শনিবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২ জিলহজ্জ ১৪৪৩ হিঃ

ভারত

নয়াদিল্লিতে দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠকে সিদ্ধান্ত

বাংলাদেশের রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করতেই হবে

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা

(১ সপ্তাহ আগে) ২০ জুন ২০২২, সোমবার, ১০:৫০ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ২:৪৬ অপরাহ্ন

কোভিডকালে শেষ ভার্চুয়াল বৈঠকটি হয়েছিল ২০২০ সালে। নয়াদিল্লিতে সশরীরে জয়েন্ট কন্সালটেটিভ কমিশনের বৈঠকে মুখোমুখি হলেন ভারতের বিদেশ মন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং বাংলাদেশের বিদেশ মন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। দুই মন্ত্রী জেসিসি বৈঠকে সিদ্ধান্ত হলো, বাংলাদেশে অবস্থানকারী মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশের উদ্বাস্তুদের ফিরে যেতে হবে তাদের দেশে। উল্লেখযোগ্য যে, এই রোহিঙ্গারা দীর্ঘদিন ডেরা বেঁধেছে বাংলাদেশে। প্রয়োজনে ভারত এই রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বাংলাদেশকে সাহায্য করবে। বাংলাদেশের বিদেশ মন্ত্রী এবং ভারতের বিদেশমন্ত্রী একমত হন যে উপমহাদেশের শান্তি ও সম্প্রীতি রক্ষায় দু দেশ একসঙ্গে কাজ করবে। এ কে আব্দুল মোমেন  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতে তাঁর কাউন্টারপার্ট নরেন্দ্র মোদির মৈত্রীর বাণীকে স্মরণ করে বলেন, প্রতিবেশী দুই রাষ্ট্রের সম্মিলিত শক্তি অনেক শুভ কাজ মিলিতভাবে করতে পারে। এদিনের বৈঠকে দশটি বিষয় বেছে নেয়া হয় যেখানে ভারত ও বাংলাদেশ একযোগে কাজ করবে। এই দশটি বিষয় হলো- দুদেশে প্রবাহিত নদী সম্পদকে কাজে লাগানো, ওয়াটার ম্যানেজমেন্ট, তথ্য প্রযুক্তি, সাইবার নিরাপত্তা, খাদ্য নিরাপত্তা, জলবায়ু পরিবর্তন, বাণিজ্য, বিপর্যয় মোকাবিলা প্রভৃতি।  ক্ষেত্রগুলিকে নির্বাচন করা হয়েছে বাস্তব পটভূমি দেখেই।

বিজ্ঞাপন
এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, তিনি বিশ্বাস করেন, ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী নতুন দিগন্ত রচনা করতে পারে। দুদেশের জেসিসি পর্যায়ের পরবর্তী বৈঠক বাংলাদেশে হবে ২০২৩ সালে।
 

পাঠকের মতামত

প্রয়োজনে ভারত এই রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বাংলাদেশকে সাহায্য করবে। ---তাই নাকি!(If necessary, India will help Bangladesh to solve this Rohingya problem--- Is that so)?

Amir
১৯ জুন ২০২২, রবিবার, ১১:৩৬ অপরাহ্ন

ভারত থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

ভারত থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com