ঢাকা, ২ জুলাই ২০২২, শনিবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২ জিলহজ্জ ১৪৪৩ হিঃ

অনলাইন

মহানবীকে কটূক্তির প্রতিবাদে মানববন্ধন

সিভাসু’র হল থেকে ৪ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে

(২ সপ্তাহ আগে) ১৬ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১০:২২ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৪:৩৮ অপরাহ্ন

ভারতের সরকারি দল বিজেপি’র মুখপাত্রের মহানবী (সা.)কে এর  বিরুদ্ধে অবমাননাকর বক্তব্য রাখার প্রতিবাদে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও চলছে বিক্ষোভ। ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের পাশাপাশি সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরাও  জানাচ্ছেন প্রতিবাদ। মাদ্রাসা-কলেজের  পাশাপাশি দেশের প্রায় সবকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে হয়েছে  নানা কর্মসূচি। চট্টগ্রামের ভেটেরিনারি এন্ড এ্যানিমেল সায়েন্সেস  বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিভাসু) শিক্ষার্থীরাও করেছিলেন মানববন্ধন। তবে সেই  কর্মসূচির কারণে এখানকার চার শিক্ষার্থীকে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারী ও প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করার অভিযোগ এনে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল থেকে বহিষ্কার করেছে কর্তৃপক্ষ। আবার আগের দিন এদেরই  একজনকে  ছাত্রলীগ পরিচয়ের কয়েকজন মিলে হলের রুমে ঢুকিয়ে বেধড়ক মারধর করেছে।

মঙ্গলবার (১৪ জুন)  এক অফিস নোটিশের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি মেডিকেল অনুষদের ডিভিএম-এর ২৪তম ব্যাচের চার  শিক্ষার্থীকে  আবাসিক হল থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়। বহিষ্কৃত এই চার শিক্ষার্থী হলেন- ২৪তম ব্যাচের বোরহান উদ্দিন মোহাম্মদ সাজ্জাদ, মোমিন বিন রহিম, তসলিম উদ্দিন ও মোহাম্মদ তানভীরুল ইসলাম।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মীর্জা ফারুক ইমাম স্বাক্ষরিত সেই অফিস নোটিশে বলা হয়, উল্লেখিত  শিক্ষার্থীরা  মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কটূক্তি, ধর্মীয় উস্কানিমূলক, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও গণতন্ত্র পরিপন্থি বিবৃতি প্রদান করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা ভঙ্গ করায় তাদেরকে সিভাসুর আইন মোতাবেক এই বিশ্ববিদ্যালয়ের এম. এ. হান্নান হল থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হলো।

জানা যায়, হল থেকে বহিষ্কৃত হওয়া এই  শিক্ষার্থীদের তৃতীয় বর্ষের প্রথম সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা চলছে। বিভাগের সেমিস্টার পরীক্ষা চলাকালীন সময়েই হল থেকে বের করে দেয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছেন এই শিক্ষার্থীরা। আর প্রায় দেড়শতাধিক শিক্ষার্থী মানববন্ধনে অংশ নিলেও শুধুমাত্র এই চারজনকে শাস্তি প্রদান করায় অন্যান্য সাধারণ  শিক্ষার্থীরাও প্রকাশ করছেন ক্ষোভ।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক  বহিষ্কৃত এক শিক্ষার্থী বলেন, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে আপত্তিকর বক্তব্যের প্রতিবাদে গত রবিবার দুপুরে আমরা ক্যাম্পাসের গেইটে মানববন্ধন করেছিলাম। এতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অনুমতিও ছিলো।

বিজ্ঞাপন
এই কর্মসূচিতে প্রায় দেড় শতাধিক সাধারণ শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। আর  এই ঘটনার একদিন পর এসে তারা আমরা যারা কয়েকজন এই কর্মসূচির আয়োজনে  ছিলাম, তাদের হয়রানি করছে। এখন আমাদের সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা চলছে। এরমধ্যে আমাদের ৪ জনকে হল থেকে বের করে দিচ্ছে। এই অবস্থায় আমরা খুব অসহায় অবস্থায় পড়েছি।

এই শিক্ষার্থী আরও বলেন, এরা কোন ধরনের শোকজ ছাড়াই  আমাদেরকে হল থেকে বহিষ্কার করেছে। বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি  দিচ্ছে। এরমধ্যে বহিষ্কার হওয়া বোরহানকে শিবির ব্লেইম দিয়ে সোমবার রাতে মারধর করা হয়েছে। এখানকার ছাত্রলীগ পরিচয়ধারী ১৬ তম ব্যাচের সাব্বিরের  নির্দেশে  অনিক চক্রবর্তী, শান্ত রাজসহ কয়েকজন মিলে তাকে তাকে খুব মারধর করে। অথচ বোরহানসহ আমরা সবাই ছাত্রলীগ করতাম। তবে সাব্বিরের গ্রুপে কাজ না করায় সে সুযোগ পেয়ে বোরহানকে বেধড়ক পিটিয়েছে। সে তার সাথে না থাকলেই যে কাউকেই হয়রানি করে। শিবির ট্যাগ লাগিয়ে মারধর করে। এইরকম একটা ঘটনায় সে ২০১৮ সালেই  বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কৃত  হয়েছিল। অনেক আগে থেকেই  ক্যাম্পাসে তার  ছাত্রত্ব শেষ হয়ে গিয়েছে।  সাব্বিরের মতো বোরহানকে  মারধর করাদের মধ্যে শান্তরাজেরও ছাত্রত্ব নেই।’

জানা যায়, শিক্ষার্থী বোরহানকে পেটানোর  নির্দেশ দেয়ায় অভিযুক্ত সাব্বির হোসাইন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের  ২০১০- ১১ সেশনের শিক্ষার্থী। সেই হিসেবে পাঁচ বছর আগেই তার বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্স শেষ হওয়ার কথা। কিন্তু নিজেকে ছাত্রলীগ নেতা পরিচয় দিয়ে ক্যাম্পাসে অবস্থান করছেন তিনি।

এদিকে রাসূলের অবমাননার প্রতিবাদে মানববন্ধন করায়  চার শিক্ষার্থীকে  হল থেকে বহিষ্কারের  বিষয়ে জানতে চাইলে  ভেটেরিনারি এন্ড  ও এ্যনিমেল সায়েন্সেস  বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর তাসনিম ইমাম  মানবজমিনকে বলেন, বিষয়টি ঠিক সে কারণেই করা হয়নি। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ নষ্ট করেছে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি করেছে। তাই তাদেরকে আবাসিক হল থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। আর বাকি বিষয়টি হল কর্তৃপক্ষই ভালো জানবেন।
 

পাঠকের মতামত

"বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মীর্জা ফারুক ইমাম স্বাক্ষরিত সেই অফিস নোটিশে বলা হয়, উল্লেখিত শিক্ষার্থীরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কটূক্তি, ধর্মীয় উস্কানিমূলক, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও গণতন্ত্র পরিপন্থি বিবৃতি প্রদান করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা ভঙ্গ করায় তাদেরকে সিভাসুর আইন মোতাবেক এই বিশ্ববিদ্যালয়ের এম. এ. হান্নান হল থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হলো।" প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কি কটূক্তি করেছে? ধর্মীয় উস্কানিমূলক কি বিবৃতি দিয়েছে? সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি পরিপন্থী কি কাজ করেছে? গণতন্ত্র পরিপন্থি কি বিবৃতি প্রদান করেছে? মূল কথা হচ্ছে রাসূলের অবমাননার প্রতিবাদ কেন করলো এটাই তাদের মনোকষ্ট। এদের ভিতরে ইসলামবিদ্ধেষী রক্ত প্রবাহমান। এই ভিসি অবশ্যই একজন RSS এর সদস্য হবে। উস্কানিমূলক, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি পরিপন্থি কাজ করছে কারা? আর এরা দোষ চাপাচ্ছে কাদের উপর? এরা এদেশে বসে ভারতের দালালি করছে।

salim khan
২৩ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১২:৩১ পূর্বাহ্ন

আমি জাস্ট এদের ওদ্ধত্ত দেখে যারপরনাই বিস্মিত! মহানবী হজরত মোহাম্মদ (স.) এঁর অবমাননা সাম্প্রদায়িক সম্প্রিতি বিনষ্ট করে না..সম্প্রিতি বিনষ্ট হয় মুসলিমরা প্রিয় নবীর অবমাননায় শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ করলে!? বেয়াদবির চূড়ান্ত।

মোহাম্মদ আলী রিফাই
২২ জুন ২০২২, বুধবার, ১১:২৭ পূর্বাহ্ন

শুনেছি এদেশে নাকি ১০ লাখ ভারতীয় বাংলাদেশের পার্সপোর্ট নিয়ে চাকরি করে। দেশটা কি ভারতের অঙ্গরাজ্য?

Azad
২০ জুন ২০২২, সোমবার, ২:৪০ পূর্বাহ্ন

সারা দুনিয়াতে বাংলাদেশের মুসলমানরা সবচেয়ে অসহায়

আবদুল মতিন
২০ জুন ২০২২, সোমবার, ২:০১ পূর্বাহ্ন

ইসলামপন্থীদের ঠেকিয়ে রাখা যাবে না। অসম্ভব।

Mohiuddin molla
১৬ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৫:২৮ অপরাহ্ন

দেশটা কি সত্যি সত্যি ইন্ডিয়ার অংগরাজ্য হয়ে গেল???

খোরশেদ আলম
১৬ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১২:১৯ অপরাহ্ন

আমাদের দেশে এখন মহানবী রাসূল (সাঃ) এর সমালোচনা করলে শাস্তি হয়না, কিন্ত ব্যাক্তি বিশেষের সমালোচনা করলে শাস্তি হয়

Kazi
১৬ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১০:৫৩ পূর্বাহ্ন

এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি একজন হিন্দু। এদেশে আরো ২ কোটির মত তিনিও RSS.সরকরের সমর্থনে RSS দর্শন এখন বাংলাদেশের দর্শন। ৯০% মুসলমান এই তৃপ্তিতে থাকলে হিন্দু ভাবধারার সরকার ও পুলিশ মিলিটারি মোকাবেলা করা যাবে না। ক্ষমতায় থাকার জন্য এরা মুর্তি পূজা শুরু করতেও রাজি আছে।

nasym
১৬ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১০:০৫ পূর্বাহ্ন

আমাদের দেশে এখন মহানবী রাসূল (সাঃ) এর সমালোচনা করলে শাস্তি হয়না, কিন্ত ব্যাক্তি বিশেষের সমালোচনা করলে শাস্তি হয়

Kazi
১৬ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৭:০০ পূর্বাহ্ন

যিনি বহিষ্কার করেছেন তিনি ভারতের উগ্রবাদী বিজেপীর সমর্থক। তার দেশ প্রেমের অভাব আছে। তাকে ভবিষ্যত প্রজন্ম স্মরণ করবে।

তৌহিদ
১৬ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৫:০৯ পূর্বাহ্ন

সব কিছুর বিচার হবে হবে ইনশাল্লাহ

No_Name
১৬ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ২:৩৭ পূর্বাহ্ন

যারা রাসূলুল্লাহ (সা.)-কে ইসলামের নাবী মুহাম্মাদ (সা.) বলে উল্লেখ করেন, তারা জেনে অথবা না জেনে ভয়ংকর ভুল করে যাচ্ছেন। এটি সরাসরি কুরআন-সুন্নাহ বিরোধী বক্তব্য, যা ইচ্ছাকৃত বা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বললে ব্যক্তি ইসলাম থেকে খারিজ হয়ে যাবে। কুরআনের বহু আয়াতের স্পষ্ট বক্তব্য হলো, মহান আল্লাহ তা'আলা মুহাম্মাদ (সা.)-কে মানবজাতির জন্যে রাসূল এবং সৃষ্টিকুলের জন্যে রহমত হিশেবে প্রেরণ করেছেন। অসংখ্য সহিহ হাদীসের ভাষ্যও তাই। তিনি জিনজাতিরও রাসূল। বহু জিন তার প্রতি ঈমান এনেছেন বলে খোদ কুরআনই সাক্ষ্য প্রদান করছে। তিনি শুধু মুসলিমদের নন, বরং তিনি সকলের রাসূল। সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। যারা তাকে রাসূল হিশেবে বিশ্বাস করে তারাই মুসলিম, আর অন্যরা কা*ফির। এটিই ব্যবধান, এটিই সীমারেখা... তাই সাবধান!

মহিন
১৬ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১:৫৭ পূর্বাহ্ন

ছাত্রলীগ গণমানুষের শত্রু শুনেছিলাম,এখন মনে হচ্ছে তারা ইসলামেরও শত্রু

Ataur
১৬ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১:৪৬ পূর্বাহ্ন

আঃ, এটাই কি প্রমান যে আমাদের দেশের সরকার মুসলমান। মদীনা সনদ অনুযায়ী দেশ পরিচালিত হচ্ছে।

salim khan
১৬ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১২:৩২ পূর্বাহ্ন

একটা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ছেলে একজন মুসলিম ছাত্রকে মারধর করেছে, তাও আবার মহানবী (সাঃ) এর সম্মানহানির প্রতিবাদে। বিষয়টা আবারো সাম্প্রদায়িক রূপ পাবে আশংকা করছি। এবং অনেকদূর যাবে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের উচিত আগুনে ঘৃতাহুতি না দিয়ে ছাত্রদের হল থেকে বহিষ্কারের আদেশ প্রত্যাহার করা।

এ,টি,এম,তোহা
১৬ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১২:০৫ পূর্বাহ্ন

উদোরপিনডি ভুদোর ঘাড়ে চাপিয়ে দিয়ে প্রতিবাদী ছাত্রদের দমানোর নয়া কৌশল।এ যেন নুপুর শর্মার প্রেতাত্মা সিভাসুতে ভর করেছে ,সাধু সাবধান

মুহাম্মদ আবুল কালাম
১৫ জুন ২০২২, বুধবার, ১১:৫১ অপরাহ্ন

সব প্রতিক্রিয়া শুধু ইসলাম ধর্মের উপর ভিত্তি করেই হচ্ছে! আজ বিশ্বে সর্বশ্রেষ্ঠ মজলুম হলো ইসলাম আর মুসলিম।

বেলাল
১৫ জুন ২০২২, বুধবার, ১০:২৮ অপরাহ্ন

Duniya.............

Nobody
১৫ জুন ২০২২, বুধবার, ১০:০৩ অপরাহ্ন

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

অনলাইন থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com