ঢাকা, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার, ১৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৮ রজব ১৪৪৪ হিঃ

অনলাইন

কুকুরের পেছনে ধাওয়া করে ৫০ টিরও বেশি ব্যাগে মানব দেহাবশেষ খুঁজে পেলো মেক্সিকো পুলিশ

মানবজমিন ডিজিটাল

(২ মাস আগে) ২৫ নভেম্বর ২০২২, শুক্রবার, ৩:৩৪ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন

mzamin

মেক্সিকোতে পুলিশ একটি অস্থায়ী কবরস্থানে ৫৩ টি ব্যাগে মানব দেহাবশেষ খুঁজে পেয়েছে। একটি কুকুর তার মুখে মানুষের একটি কাটা হাত নিয়ে ছুটে যাচ্ছিলো। তার পেছনে ধাওয়া করে মানব দেহাবশেষগুলি খুঁজে পায় পুলিশ। সহিংসতার জন্য পরিচিত গুয়ানাজুয়াতো রাজ্যের ইরাপুয়াতো শহরে কুকুরটিকে দেখার পরে অক্টোবরে সাইটটির সন্ধান পায় পুলিশ। এরপর ধীরে ধীরে ভয়ঙ্কর আবিষ্কারগুলি সামনে আসে। অক্টোবরের শেষের দিক থেকে, ফরেনসিক বিশেষজ্ঞদের একটি গ্রুপের সাথে কাজ করা বাসিন্দারা ৫৩ ব্যাগ দেহাবশেষ বের করেছে যা কর্তৃপক্ষ সনাক্ত করার চেষ্টা করছে। স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবকরা যারা এই দলে রয়েছেন তাঁদের অনেক আত্মীয়রা নিখোঁজ রয়েছে, তাঁরাও উত্তর খোঁজার চেষ্টা করছেন। কয়েক সপ্তাহ আগেই মধ্য মেক্সিকোর জাকাতেকাস প্রদেশের মন্টে এসকোবেডো শহরে, একটি কুকুরকে মানুষের কাটা মাথা নিয়ে ঘুরে বেড়াতে দেখা গিয়েছিল। পুলিশ জানিয়েছিল, একটি এটিএম বুথের পাশে লাগানো বিজ্ঞাপনী প্ল্যাকার্ডে মাথাটি ঝুলিয়ে দিয়ে গিয়েছিল আততায়ীরা। শুধু তাই নয় সেখানে লেখাছিলো 'পরবর্তী মাথা আপনার।

বিজ্ঞাপন
'পুলিশ অপরাধের দৃশ্য স্থাপন করতে এবং হত্যার তদন্ত শুরু করার আগে কুকুরটি লাশের মাথা মুখে করে নিয়ে চলে যায়। মাদকের কোটি-কোটি টাকার ব্যবসা কাদের নিয়ন্ত্রণে থাকবে, এই নিয়ে দীর্ঘ সময় ধরে ‘জলিসকো’ এবং ‘সিনালোয়া’ নামে দুটি মাদক গ্যাং-এর যুদ্ধ চলছে। আর সেই সঙ্গেই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃতদেহের সংখ্যা। নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ ডেভিড সাসেডোর মতে, প্রশান্ত মহাসাগরীয় বন্দর এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে মাদক চোরাচালান রুট বরাবর গুয়ানাজুয়াতো একটি গুরুত্বপূর্ণ করিডোর। গ্যাংগুলি স্থানীয় মাদক বিক্রি এবং নাইটলাইফ ভেন্যুগুলির নিয়ন্ত্রণের জন্য নিজেদের মধ্যে প্রায়শই সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। 
গুয়ানাজুয়াটোর নিরাপত্তা কর্মকর্তা সোফিয়া হুয়েটের মতে, রাজ্যে ১০টি খুনের মধ্যে নয়টি মাদক ব্যবসার সাথে সম্পর্কিত। স্থানীয় পুলিশ অপরাধীদের গ্রেফতার করলেও  জাতীয় স্তরে মোকাবেলা করা না হলে এই মাদক যুদ্ধ বন্ধ হবে না বলে জানিয়েছেন তিনি। গুয়ানাজুয়াটোতে, সাম্প্রতিক মাসগুলিতে ৩০০ বেশি ব্যক্তিকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে।গুয়ানাজুয়াটোকে মেক্সিকোর সবচেয়ে সহিংস রাজ্যের খেতাব দেয়া হয়েছে। এই বছরের জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ২,৪০০ টিরও বেশি খুন হয়েছে এখানে -- জাতীয় মোটের প্রায় ১০ শতাংশ। একই সময়ে নিখোঁজ হয়েছে আরও তিন হাজার মানুষ। রক্তপাত সত্ত্বেও, একসময়ের শান্তিপূর্ণ রাষ্ট্রটি একটি প্রধান পর্যটনস্থল। ফুটপাতে রক্তের দাগ এবং ফেলে দেওয়া সিকিউরিটি টেপ ছাড়াও এখানকার মানুষের জীবন এমনভাবে চলতে থাকে যেন কিছুই ঘটেনি।

সূত্র : dailymail.co.uk

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status