ঢাকা, ৩০ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৯ জিলক্বদ ১৪৪৩ হিঃ

বাংলারজমিন

সিলেটে সংবাদ সম্মেলন

৩৬,২০০ মানুষকে ত্রাণ দিয়েছে সিলেট বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে
২৩ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার

সিলেটে বিএনপি’র পক্ষ থেকে ৩৬,২০০ পরিবারকে ত্রাণ ও শুকনো খাবার দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা বিএনপি’র সভাপতি আব্দুল কাইয়ূম চৌধুরী। তিনি গতকাল সিলেটের একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন। এ সময় তিনি বলেন- আরও ১ লাখ ৯৩ হাজার জনকে তৈরি করা খাবার ও বিশুদ্ধ পানি এবং ১১ হাজার ৩শ’ পরিবারকে নগদ আর্থিক সহায়তা করা হয়েছে। ত্রাণের এই পরিমাণ সময়ে সময়ে আরও বাড়বে। তারপরও যখন প্রধানমন্ত্রী বিএনপি’র এসব কার্যক্রম দেখতে পান না; এই দেখার দায়িত্ব আমরা সিলেটবাসী সহ দেশবাসীর কাছে ছেড়ে দিলাম। সিলেটের মানুষ যখন অসহায় হয়ে নীরব কান্না করছিল, বিএনপি’র নেতাকর্মীরা যখন পানি ডিঙিয়ে মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করছে, ঠিক তখনই দেশের সবচেয়ে দায়িত্বশীল ব্যক্তি বন্যায় বিএনপি’র কর্মতৎপরতা নিয়ে ঠাট্টা করছেন।’ তিনি বলেন- ‘বন্যা শুরুর পর থেকে আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের নির্দেশে সিলেট জেলা বিএনপি ও অঙ্গ সহযোগী সমমনা সংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে শুরু থেকেই প্রত্যন্ত অঞ্চলের বানভাসিদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছি, দলের সাধ্যমতো ত্রাণ, নগদ অর্থ এবং তৈরি করা খাবার ও বিশুদ্ধ পানি বিতরণ করছি। আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান, মহাসচিব, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যবৃন্দ, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্যবৃন্দ আমাদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন।’ কাইয়ূম চৌধুরী চলমান বন্যাকে মানবসৃষ্ট বন্যা দাবি করে বলেন- ‘এই ভূমিতে যত হাজার কোটি টাকার উন্নয়নই ঢালা হোক, তা হয় নিজে ভেসে যাবে, নাহয় লাখো মানুষকে ভাসাবে। সেটাই হয়েছে। কিশোরগঞ্জের ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় প্রায় ৮৭৫ কোটি টাকা ব্যয়ে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদের বাড়িতে যাতায়াতের জন্য নির্মিত এই সড়কের কারণে ঢলের পানি হাওর থেকে নদীতে নামতে বাধা পাচ্ছে। জলাবদ্ধতায় সড়কের দু’পাশে ধান খেত ডুবে থাকছে।

বিজ্ঞাপন
এ পানিতে ধান পচে যায়। তিনি জানান- ‘সিলেটের বন্যার প্রকৃত পরিস্থিতি প্রধানমন্ত্রী সহ রাষ্ট্রের দায়িত্বশীলদের কাছে পৌঁছানো হচ্ছে না। সিলেটে বন্যায় ক্ষয়-ক্ষতির যে হিসাব সরকারি ভাবে দেয়া হয়েছে বাস্তবতা তার চেয়ে অনেক ভিন্ন। বাস্তবে সিলেটের অবস্থা আরও ভয়াবহ। গতকাল প্রধানমন্ত্রীর মতবিনিময় সভায় আওয়ামী লীগের এক নেতা সাংবাদিকদের উপর ক্ষোভ ঝেড়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে নালিশ করেছেন- ‘সাংবাদিকরা বন্যার যে ভয়াবহতা প্রচার করেছেন সিলেটে নাকি তার কিছুই হয়নি’। জনবিচ্ছিন্ন হয়ে তারা এখন সাংবাদিকদের উপরও ক্ষেপেছেন। কারণ সাংবাদিকরা সিলেটের প্রকৃত অবস্থা গণমাধ্যমে তুলে ধরেছেন। আওয়ামী লীগ এখন স্বাধীন সাংবাদিকতায়ও হস্তক্ষেপ করতে চায়। তারা সংবাদপত্র ও বাক-স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না। সংবাদ সম্মেলনে কাইয়ূম চৌধুরী দুর্গতদের দীর্ঘমেয়াদি খাদ্য সহায়তা প্রদানপূর্বক পুনর্বাসন, মানবসৃষ্ট বন্যা থেকে মুক্তির জন্য বন্যার কারণ খুঁজে বের করে নদী ড্রেজিং সহ কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান। সংবাদ সম্মেলন উপস্থিত ছিলেন- সিলেট জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরী, সিলেট জেলা বিএনপি নেতা এডভোকেট আশিক উদ্দিন, মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, ইসতিয়াক আহমদ সিদ্দিকী, জেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম আহমদ, জেলা বিএনপি নেতা মাহবুবুল হক চৌধুরী, এডভোকেট সাঈদ আহমদ, কোহিনূর আহমদ, এডভোকেট মুজিবুর রহমান, রফিকুল ইসলাম শাহ্‌পরাণ, এডভোকেট আল আসলাম মুমিন, সাকিল মোর্শেদ, এডভোকেট মোস্তাক আহমদ, সিলেট জেলা যুবদলের সদস্য সচিব মকসুদ আহমদ মকসুদ, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব দেওয়ান জাকির হোসেন খান, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব আজিজুল হোসেন আজিজ, মহানগর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বী আহসান, সিলেট জেলা জাসাসের সদস্য সচিব রায়হান এইচ খান, মাহবুব আলম প্রমুখ।

বাংলারজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

বাংলারজমিন থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com