ঢাকা, ৪ মার্চ ২০২৪, সোমবার, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২২ শাবান ১৪৪৫ হিঃ

রকমারি

নিজেকে বিড়ালে রূপান্তরিত করতে ২০টি শারীরিক পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে গেলেন ইতালীয় তরুণী

মানবজমিন ডিজিটাল

(৪ মাস আগে) ১ নভেম্বর ২০২৩, বুধবার, ৪:১২ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:১২ পূর্বাহ্ন

mzamin

ইতালির ২২ বছর বয়সী তরুণী চিয়ারা ডেল'আবে চেয়েছিলেন বিড়ালে রূপান্তরিত হতে। নিউইয়র্ক পোস্টের একটি প্রতিবেদন অনুসারে, এর জন্য তিনি ২০টি শারীরিক পরিবর্তন করেছেন। ১১ বছর বয়স থেকে তার রূপান্তরের যাত্রা শুরু হয় ।বর্তমানে, চিয়ারার শরীরে প্রায় ৭২ টি ছিদ্র রয়েছে। নাক, জিহ্বা, ঠোঁট, ল্যাবিয়া সবখানেই তিনি অস্ত্রোপচার করেছেন। ২২ বছর বয়সী তরুণী খুব সুন্দর একটি বিড়াল হতে চেয়েছেন। ভিডিও-শেয়ারিং প্ল্যাটফর্মে পোস্ট করা তার একটি ভিডিওতে, চিয়ারাকে তার ঠোঁটের ফাঁক দিয়ে বিভক্ত জিহ্বাকে নাড়াতে দেখা গেছে। চিয়ারার ব্লেফারোপ্লাস্টিও হয়েছে, এটি একটি  অস্ত্রোপচার পদ্ধতি যা উপরের এবং অথবা নীচের চোখের পাতায় করা হয় । এটি "চোখের ত্রুটি, বিকৃতি, এবং চোখের পাতার বিকৃতি সংশোধন করার জন্য এবং চোখের অঞ্চলকে নান্দনিকভাবে সংশোধন করার জন্য পরিচালিত হয়।

এখানেই শেষ নয়। কপালে  ইমপ্লান্ট  ও বিড়ালের মতো নখের পাশাপাশি  নিজের যৌনাঙ্গেও পরিবর্তন এনেছেন এই ইতালীয় তরুণী। আসলে একটি  মানব বিড়াল হতে চেয়ে চিয়ারা দেখতে চেয়েছেন মানুষের শরীরে কতটা পরিবর্তন করা যেতে পারে।

বিজ্ঞাপন
তার মতে,'' আমি সত্যিই একজন ক্যাট ওম্যান হতে চেয়েছি, তবে কোনো কার্টুন চরিত্রের মতো নয়। আমি বিড়ালদের পছন্দ করি এবং আমি মনে করি আমি সঠিকভাবে একজন নারী বিড়ালের মতো সাহসী এবং সুন্দর হতে পারবো ''।

তিনি বিশ্বাস করেন, সম্পূর্ণ বিড়ালের মতো চেহারা অর্জনের জন্য এখনো অনেক কিছু করা বাকি আছে। যেমন- দাঁতের আকার ঠিক করা, উপরে কাটা ঠোঁট এবং বিড়ালের চোখের মতো চোখ তৈরি করতে ক্যান্থোপ্লাস্টি-সার্জারির প্রয়োজন হবে। এছাড়াও তার একটি লেজ প্রয়োজন যা তাকে বিড়াল সদৃশ করে তুলবে। তাই আপাতত সেদিকেই মন দিয়েছেন এই তরুণী।

সূত্র : এনডিটিভি

রকমারি থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

রকমারি সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2023
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status