ঢাকা, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ রজব ১৪৪৪ হিঃ

খেলা

ভারতীয় ‘এ’ দলের কাছে ইনিংস ও ১২৩ রানে হার বাংলাদেশের

স্পোর্টস রিপোর্টার
১০ ডিসেম্বর ২০২২, শনিবার

শুধু জয়, মুমিনুল, জাকিরই নন, ব্যর্থতার মিছিলে সামিল হলেন মিডল অর্ডারের অন্যরাও। স্রোতের বিপক্ষে লড়াই চালিয়ে গেলেন কেবল সাদমান ইসলাম। কিন্তু সঙ্গী না পেয়ে সেঞ্চুরির দুয়ারেই থমকে যেতে হলো তাকে। ভারত ‘এ’ দলের বিপক্ষে ইনিংস ব্যবধানে হেরে গেল বাংলাদেশ ‘এ’ দল। সাদমান ইসলামের অপরাজিত ৯৩ রান সত্ত্বেও বাংলাদেশ হেরেছে ইনিংস ও ১২৩ রানে। সৌরভ একাই নেন ৬ উইকেট। কক্সবাজারে প্রথম চারদিনের ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে জাকির হাসানের অনবদ্য ১৭৩ রানের ওপর ভর করে কোনোমতে হার এরিয়ে ছিল বাংলাদেশ। সিলেটে দ্বিতীয় আনঅফিসিয়াল টেস্টের শেষ দিনে লড়াই জমাতেই পারল না বাংলাদেশ। শুক্রবার লাঞ্চের পরপরই ভারতীয়রা জিতে যায়। বাংলাদেশের ১৮৭ রানের ইনিংসে সাদমান একাই করেন অপরাজিত ৯৩।

বিজ্ঞাপন
প্রায় ৬ ঘণ্টা উইকেটে কাটিয়ে ১৮ চারের ইনিংসটিকে সেঞ্চুরির পূর্ণতা দিতে পারেননি দল অলআউট হয়ে যাওয়ায়। আগের ম্যাচে শেষ দিনে প্রবল লড়াইয়ের পর শেষ জুটিতে ম্যাচ বাঁচাতে পেরেছিল বাংলাদেশ। এবারও প্রয়োজন ছিল তেমন কিছুর। কিন্তু সেই আশায় বড় চোট লাগে দিনের শুরুর দিকেই। পঞ্চম ওভারে বাঁহাতি স্পিনার সৌরভ কুমারের বলে আলগা শটে আউট হয়ে ফেরেন মুমিনুল। ৩১ বল খেলে তার রান ৬। টেস্ট ও ঘরোয়া ক্রিকেটে সামপ্রতিক ব্যর্থতার পর এই দুটি আনঅফিসিয়াল টেস্টে তার মোট রান ৪ ইনিংসে ৪২। ভারতের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টের বাংলাদেশ দলে অবশ্য তিনি আছেন। পরের জুটিতেই যা একটু লড়াই হয়। সাদমান ও শাহাদাত হোসেন মিলে ১৭ ওভারের বেশি উইকেটে কাটিয়ে যোগ করেন ৫৪ রান। ইনিংসের একমাত্র ফিফটি জুটি এটিই। এই জুটি ভাঙে শাহাদাত হঠাৎ ধৈর্য হারানোয়। ২৯ রান করে আউট হন এই ব্যাটার। লাঞ্চের পর বাংলাদেশের লড়াইয়ের শেষ আশাও শেষ করে দেন নবদিপ সাইনি। এক ওভারেই তিনি বিদায় করেন জাকের আলি ও মোহাম্মদ মিঠুনকে। জাকের আলী ২২ ও অধিনায়ক মিঠুন আউট হন শূন্য রানে। এরপর সুমন খান ও হাসান মুরাদকে এক ওভারে ফিরিয়ে সৌরভ পূর্ণ করেন ৫ উইকেট। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এই স্বাদ পেলেন তিনি ১৮ বার। এরপর কৌতূহল ছিল কেবল সাদমান সেঞ্চুরি করতে পারেন কিনা। অষ্টম উইকেট পতনের সময় খেলছিলেন তিনি ৭৪ রানে। শেষ দুই জুটিতে আরেকটু এগিয়ে যান তিনি, কিন্তু তিন অঙ্ক ছোঁয়া পর্যন্ত তাকে সঙ্গ দিতে পারেননি কেউ। প্রথম ইনিংসে উইকেটশূন্য সৌরভ এবার নেন ৬ উইকেট। আগের দিন তিনি ব্যাট হাতে খেলেন ৩৯ বলে ৫৫ রানের ইনিংস। প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট শিকারি পেসার মুকেশ কুমার শেষ দিনে বোলিংই করেননি।

খেলা থেকে আরও পড়ুন

খেলা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status