ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, বুধবার, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

খেলা

আধুনিকতায় সিটি ঐতিহ্যে ইউনাইটেড

সামন হোসেন, ম্যানচেস্টার (যুক্তরাজ্য) থেকে
৮ আগস্ট ২০২২, সোমবার

ম্যানচেস্টারের সেন্ট্রাল রেলস্টেশন পিকাডেলি থেকে মাত্র দেড় কিলোমিটার দূরে অবস্থিত ইতিহাদ স্টেডিয়াম। ৫৫ হাজার ধারণক্ষমতার ম্যানচেস্টার সিটির এই স্টেডিয়ামের পাশে ক্লাবটির ট্রেনিং গ্রাউন্ড। সিটি স্টোর, মেয়েদের স্টেডিয়াম সবই ইতিহাদ স্টেডিয়ামের আশেপাশে। আবুধাবি ইউনাইটেড গ্রুপের কল্যাণে সিটির সবকিছুতেই আধুনিকতার ছোঁয়া। অপরদিকে ঐতিহ্য নিয়ে সিটিকে টেক্কা দিচ্ছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।  ইতিহাদ থেকে ওল্ড ট্রাফোর্ডের দূরত্ব মাত্র পাঁচ কিলোমিটার। স্টেডিয়ামটির নিচেই ম্যানউইর মেগা স্টোর। যেখানে বিক্রি হয় ক্লাবটির সকল স্মারক। তবে মূল স্টেডিয়াম থেকে তাদের ট্রেনিং গ্রাউন্ডের দূরত্ব ১০ কিলোমিটার। স্টকহোমে ট্রেনিং গ্রাউন্ডের পাশেই ম্যানউইর ফুটবল একাডেমি।

বিজ্ঞাপন
কাছাকাছি দূরত্বে দুটি ক্লাবের ভৌগোলিক অবস্থান থাকলেও বাস্তবে তাদের অবস্থান বিপরীত মেরুতে। দুটি ক্লাবেই বিভক্ত ম্যানচেস্টারের মানুষজন। ম্যাচের দিন সমর্থকদের নিয়ন্ত্রণে বাড়তি সর্তক থাকে এখানকার পুলিশ। তারপরেও মাঝে মাঝে বিবাদে জড়ায় দু’দলের সমর্থকরা। রক্ত ঝরে এখানকার রাস্তাঘাটে। দুই দলের লড়াইটা শুরু হয়েছে মূলত ১৯৭০ এর দশকের শুরুর দিকে। এই সময়ে ম্যান সিটি সচচেয়ে সফল সময় কাটায়। এসময় জো মার্সার এবং ম্যালকম অ্যালিসনের অধীনে তারা লীগ চ্যাম্পিয়নশিপ, এফএ কাপ, লীগ কাপ এবং ইউরোপীয় কাপ উইনার্স কাপ শিরোপা জেতে। এতে সমর্থক বাড়তে থাকে ক্লাবটির। যদিও ১৯৮১ সালের এফএ কাপের ফাইনালে হারার পর ক্লাবের অধঃপতন শুরু হয়। এমনকি তাদের ১৯৯৮ সালে ইংলিশ ফুটবলের তৃতীয় বিভাগে অবনমন ঘটে। এরপর পুনরায় প্রিমিয়ার লীগে ফেরে ২০০২ সালে। সিটির খোলনলচে বদলে যায় ২০০৮-এ। এসময় ক্লাবটি কিনে নেয় আবুধাবি ইউনাইটেড গ্রুপ। আবুধাবি গ্রুপ শুধু ম্যান সিটি ক্লাব নয় পাল্টে দেয় ক্লাবটির আশেপাশের এলাকা। অপরাধীদের আখড়া ছিল ম্যান সিটির আশপাশ। ক্লাবটির পর আশপাশের প্রায় দুই কিলোমিটার সিটি কাউন্সিল থেকে লিজ নেয় আবুধাবি গ্রুপ। সেখানে আধুনিক সব বাড়ি করে এলাকাকেই পাল্টে দেয় আরব আমিরাতের শীর্ষ ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানটি। আস্তে আস্তে ক্লাবটিও বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনী ক্লাবে পরিণত হয়। ২০১১ সালে, ম্যানচেস্টার সিটি উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগে অংশগ্রহণের সুযোগ পায় এবং এফএ কাপ শিরোপা জেতে। ২০১২ সালে, তারা প্রিমিয়ার লীগ শিরোপা জেতে, যা ছিল ৪৪ বছরের মধ্যে তাদের প্রথম লীগ শিরোপা। কোচ পেপ গার্দিওলার অধীনে উড়তে থাকা ম্যান সিটি টানা দুইবারের প্রিমিয়ার লীগ চ্যাম্পিয়ন। অর্থের জোরে সিটির সঙ্গে সেভাবে কুলিয়ে উঠতে না পারলেও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড টিকে আছে তাদের ঐতিহ্যের মাধ্যমে। ক্লাবটি যখন প্রতিষ্ঠা করা হয়, তখন নিউটন হিথ শহরের কাছে নর্থ রোডের একটি ছোট মাঠে হোম ম্যাচ খেলতো। বর্তমানে এই মাঠের কাছে ম্যানচেস্টার পিকাডেলি স্টেশন অবস্থিত। প্রতিপক্ষ দল মাঠটি নিয়ে প্রায়শই অভিযোগ করতো। ইংলিশ শীর্ষ লীগে ঢোকার এক বছর তারা স্টেডিয়াম পরিবর্তন করে ক্লেটনের কাছে ব্যাংক স্ট্রিটে নিয়ে যায়। নতুন মাঠটিও তেমন আহামরি কিছু ছিল না, কেবল বালুময় মাঠের স্থানে ঘাস লাগানো ছিল। ১৯০২ সালে প্রায় দেউলিয়া হয়ে যাওয়ার সময় ক্লাবটিকে রক্ষা করেণ তৎকালীন অধিনায়ক হ্যারি স্ট্যাফোর্ড। তার বিনিয়োগের পর ক্লাবটি নিজ পায়ে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে, নিজেদের নাম পরিবর্তন করে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড রাখে। ১৯০৯ সালের এপ্রিলে ওল্ড ট্রাফোর্ডকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের নিজস্ব মাঠ হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়। এজন্য ৬০ হাজার পাউন্ড খরচ করে জমির ব্যবস্থা করা হয়। মূল পরিকল্পনা ছিল এক লাখ আসনের স্টেডিয়াম বানানোর, পরে আসন সংখ্যা কমিয়ে ৭৭ হাজার করা হয়। যা বর্তমানে স্টেডিয়ামের আনুষ্ঠানিক ধারণক্ষমতারও বেশি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ১৯৪১ সালের ১১ মার্চ বোমার আঘাতে প্রধান স্ট্যান্ডসহ স্টেডিয়ামের অনেকাংশ গুঁড়িয়ে যায়।  ১৯৪৯ সালে স্টেডিয়ামটি পুনঃনির্মিত হয়। যার ফলে দশ বছর ওল্ড ট্রাফোর্ডে ইউনাইটেডের কোন ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়নি। এসময় ক্লাবটির সব হোম ম্যাচ ম্যানচেস্টার সিটির মাঠে খেলেছে। এজন্য প্রতি বছর সিটিকে ৫ হাজার পাউন্ড এবং টিকিটের লভ্যাংশ দিতে হয়েছে।  বর্তমান হিসেব অনুযায়ী ধারণক্ষমতা দাঁড়াবে ৯৬,০০০ দর্শকে যা একে ধারণক্ষমতার দিক দিয়ে নবনির্মিত ওয়েম্বলি স্টেডিয়াম থেকেও এগিয়ে। ২০১৩-১৪ প্রিমিয়ার লীগ ও ২০০৮ ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপ জিতে ম্যানচেস্টার ইংলিশ ফুটবলের ইতিহাসে সফলতম দলগুলোর একটি। ১৯৮৬ সালের নভেম্বর মাসে অ্যালেক্স ফার্গুসন ম্যানেজারের পদে আসীন হবার পর থেকে বিশ বছরের অধিক সময়ে তারা ২২টি প্রধান শিরোপা জিতেছে যা প্রিমিয়ার লীগের অন্য যেকোন দলের থেকে বেশি। তারা প্রিমিয়ার লীগ/ফুটবল লীগ জিতেছে সর্বোচ্চ ২০ বার, যা লিভারপুলের ১৯টি শিরোপার থেকেও বেশি। তাইতো ফার্গুসুনকে স্মরণীয় করে রাখতে ওল্ড ট্রাফোর্ডের ডানদিকের সড়কের নাম করা হয়েছে তার নামে।  ম্যানইউর বর্ণিল ঐতিহ্য আর সিটির ইতিহাসের কারণে ম্যানচেস্টারের মানুষ দুই ভাগে বিভক্ত। তার প্রমাণ মিলেছে ওল্ড ট্রাফোর্ডে। গতকাল ওল্ড ট্রাফোর্ডে ম্যানইউর মুখোমুখি হয় ব্রাইটন অ্যান্ড হোভ অ্যালবিয়ন। আগের দিন বিভিন্ন সাজে সেখানে হাজির হাজার হাজার ম্যানইউ সমর্থক। লীগে ষষ্ঠ স্থান পাওয়া দলটিকে ঘিরে তাদের উম্মাদনার শেষ নেই। গতকাল ম্যান সিটির ম্যাচ ছিল ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেডের মাঠে। তবে ইতিহাদে ম্যাচ না থাকলেও সিটি সমর্থকরা ২৭ পাউন্ডের টিকেট কিনে স্টেডিয়াম দেখতে যান।

খেলা থেকে আরও পড়ুন

খেলা থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status