ঢাকা, ১৫ জুলাই ২০২৪, সোমবার, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

বিশ্বজমিন

গাজা, ইউক্রেনসহ বিভিন্ন ইস্যুতে জি-৭ সম্মেলন শুরু

মানবজমিন ডেস্ক
১৪ জুন ২০২৪, শুক্রবারmzamin

গাজা ও ইউক্রেনসহ বিভিন্ন ইস্যুতে ইতালির আপুলিয়ায় শুরু হয়েছে ৩ দিনের জি-৭ শীর্ষ সম্মেলন। সেখানে বিশ্বের শীর্ষ ধনী সাত দেশের নেতারা যোগ দিয়েছেন। এর মধ্যে আছে কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান, বৃটেন ও যুক্তরাষ্ট্র। এ ছাড়া উপস্থিত আছেন আফ্রিকা ও ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলের নেতারা। উন্নয়নশীল দেশগুলোতে অর্থনৈতিক সহযোগিতা নিয়ে আলোচনার কথা রয়েছে তাদের। সম্মেলনে যোগ দেয়া নেতাদের স্বাগত জানান ইতালির প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনি। জি-৭ গ্রুপটি কোনো আইন পাস করতে পারে না। তবে তাদের অতীত সিদ্ধান্তগুলো বৈশ্বিক পর্যায়ে বড় রকম প্রভাব ফেলে। এর মধ্যে আছে ২০২১ সালের একটি চুক্তি, যার অধীনে বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর ট্যাক্স ধার্য করা হয। এ বছর সম্মেলনে রাশিয়ার সম্পদ জব্দ করার পরিকল্পনা নিয়ে একজন হওয়ার আশা করছেন নেতারা।

বিজ্ঞাপন
জব্দ করা কয়েক বিলিয়ন ডলার ইউক্রেনকে দেয়ার পরিকল্পনা নেয়ার কথা রয়েছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি।

বৃহস্পতিবার শুরু হয়ে এই সম্মেলন চলবে শনিবার পর্যন্ত। এ সময়ে এজেন্ডায় থাকতে পারে অভিবাসন ইস্যু। বিশেষ করে আফ্রিকা থেকে ইউরোপে সফর করা ব্যক্তিদের নিয়ে এই ইস্যু। ইতালি চাইছে তাদের ‘মাত্তেই প্ল্যানে’ আর্থিকভাবে অবদান রাখুক অন্য দেশগুলো। এই পরিকল্পনায় আফ্রিকার দেশগুলোকে তাদের অর্থনীতিকে উন্নত করার জন্য ঋণ ও অনুদান দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। কিন্তু অনেক ভাষ্যকার সন্দেহ করছেন এর ফলে অভিবাসীদের বিরুদ্ধে দমনপীড়ন চালানোর পথ করে দেবে ইতালিকে। গত বছর জি-৭ সম্মেলনে আন্তর্জাতিক অর্থনৈতিক নিরাপত্তার জন্য একটি পরিকল্পনা দিয়েছিল জাপান। নিরাপদ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ইস্যুও তোলা হয়েছিল বিগত সম্মেলনে। আহ্বান জানানো হয়েছিল একটি নিরাপদ ও বিশ্বাস স্থাপন করা যায় এমন কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বিশ্ব। ওদিকে বিবিসি’র সাংবাদিক পল কিরবি বলেন, জর্জিয়া মেলোনি তার ক্ষমতার সবচেয়ে ভালো সময়ে এই সম্মেলন আয়োজন করছেন। গত সপ্তাহান্তে ইউরোপিয়ান নির্বাচনে তার উগ্র-ডানপন্থি ব্রাদার্স অব ইতালি সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়েছে। কিন্তু ইউরোপের প্রচলিত গতিবিধি নির্ধারণ করে যে দুটি দেশ- ফ্রান্স ও জার্মানি, সেখানে চিত্র ভিন্ন। ইউরোপিয়ান নির্বাচনে উগ্র ডানপন্থিদের কাছে শুধু পরাজিতই হননি ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন। একই সঙ্গে তিনি পার্লামেন্ট ভেঙে দিয়ে আগাম নির্বাচন আহ্বান করেছেন। এই নির্বাচনে ম্যাক্রনের রেনেসাঁ পার্টির অবস্থানও দুর্বল হয়ে পড়তে পারে পার্লামেন্টে। 

জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শুলজও দেশে টালমাটাল রাজনৈতিক পিরিয়ড পার করছেন।  রোববার ইউরোপিয়ান নির্বাচনে তার দল তৃতীয় অবস্থানে চলে গেছে। বিরোধী রক্ষণশীলরাই নয়, তার চেয়ে ভালো করেছে উগ্র ডানপন্থিরাও। তিনি আগাম নির্বাচন আহ্বান করেননি। কিন্তু আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে তিনটি আঞ্চলিক ভোট আসছে, সেখানে তিনি এবং তার জোটের অংশীদারদের জন্য আরও খারাপ খবর আসতে পারে। এমন প্রেক্ষাপটে বৃহস্পতিবার গোলটেবিল এই সম্মেলনে উদ্বোধনী বক্তব্য দিয়েছেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনি। তিনি বলেছেন, জি-৭ সম্মেলনে ইতালির নেতৃত্বের লক্ষ্য হলো আমাদেরকে একত্রিত করে এমন বিষয়কে মূল্যায়ন করা এবং সবার সঙ্গে সংলাপ করা। তিনি আরও বলেন, আমরা বিশ্বের কাছে উন্মুক্ত হতে চাই। এবারের সম্মেলনের জন্য বেছে নেয়া হয়েছে ইতালির দক্ষিণ-পূর্ব উপকূলীয় অঞ্চল পাগলিয়াকে। এর কারণ হিসেবে জর্জিয়া মেলোনি বলেন, তারা বৈশ্বিক দক্ষিণের সঙ্গে সম্পর্ককে শক্তিশালী করতে চান। তিনি বলেন, তিন দিন ধরে ইউক্রেন ও মধ্যপ্রাচ্য নিয়ে আলোচনা হবে। এ সময় তিনি সম্মেলনে যোগ দেয়া নেতাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান। পাগলিয়ায় সম্মেলনে নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাতের আগে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান বলেছেন, ইউক্রেনের জন্য অর্থ সংগ্রহের জন্য রাশিয়ার সম্পদ জব্দ করার পরিকল্পনা একটি চমৎকার অগ্রগতি। তিনি সম্মেলনে যোগ দেয়ার আগে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

 

বিশ্বজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status