ঢাকা, ২৮ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৯ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

বাংলারজমিন

জগন্নাথপুরের ইউএনও, সরকারি কর্মকর্তাসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি
২২ মার্চ ২০২৩, বুধবার

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌর এলাকায় সরকারি ভূমি উদ্ধার না করে দখলদারদের সহায়তা করার অভিযোগে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাজেদুল ইসলাম, সাবেক ইউএনও, এসিল্যান্ডসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন মুহিতুর রহমান তালুকদার নামে একজন আইনজীবী। গত সোমবার তিনি সুনামগঞ্জের সিনিয়র স্পেশাল জজ ও দায়রা জজ আদালতে মামলাটি দায়ের করেন। আদালত মামলাটি গ্রহণ করে সিলেট দুর্নীতি দমন কমিশনকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে বলেন। মামলার অপর আসামিদের মধ্যে ৬ জন সরকারি কর্মকর্তা ও ৭ জন দখলকারী রয়েছেন। মামলার এজাহারে সরকারি অপর কর্মকর্তারা হলেন- উপজেলার সাবেক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুল আলম মাসুম, সহকারী কমিশনার ভূমি ইয়াসির আরাফাত, সাবেক সার্ভেয়ার আব্দুল মোনায়েম খান, বর্তমান সার্ভেয়ার মুহিবুর রহমান ও ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা এ কে এম নাজমুল হুদা খান রয়েছেন। জানা গেছে, জগন্নাথপুর পৌর এলাকার হবিবপুর মৌজার ১নং খতিয়ানের ১২৫নং দাগের ২২ শতক গোপাট ও রাস্তা  রকম ভূমি ২০১৪ সালে হবিবপুর গ্রামের বাসিন্দা মামলার আসামি আলকাব আলী, সিজিল মিয়া, রুহিন মিয়া, সুজাত মিয়া, আবু শায়েক, জামাল মিয়া উক্ত ভূমি জবরদখল করেন। এরপর  এলাকাবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে  উক্ত সরকারি জায়গা উচ্ছেদের জন্য ২০২০ সালের ৮ই সেস্টেম্বর রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর আরডিসি সুনামগঞ্জ  দখলকারীদের ৭ দিনের মধ্যে উচ্ছেদের জন্য নির্দেশ দেন। মামলার বাদী হবিবপুর গ্রামের মুহিতুর রহমান তালুকদার জানান, উচ্ছেদের কোনো প্রতিকার না পেয়ে ২০২১ সালের ২৮শে সেপ্টেম্বর সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসকের নিকট উক্ত সরকারি জায়গা উচ্ছেদের জন্য আবারো আবেদন করি। তখন জেলা প্রশাসক জেলা রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর আরডিসিকে ব্যবস্থা গ্রহণের দায়িত্ব দেন। পরে আরডিসি  ২৪শে অক্টোবর জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও সাজেদুল ইসলামকে অবৈধ দখলকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য  নির্দেশ দেন।

বিজ্ঞাপন
এরপর তার সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি সার্ভেয়ার মুহিবুর রহমানের পরামর্শ অনুযায়ী কাজ করতে বলেন। এ সময় সার্ভেয়ার দুই লাখ টাকা উৎকোচ দাবি করেন। এতে প্রতিবাদ করলে তিনি পুলিশের ভয়ভীতি দেখান। নিরুপায় হয়ে জনস্বার্থে সরকারি গোপাট/রাস্তা উদ্ধার ও দখলকারীদের সহায়তাকারী সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে  আদালতের শরণাপন্ন হয়েছি। এ বিষয়ে জানতে ইউএনও সাজেদুল ইসলাম এর সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি জানা নেই। মামলার বাদীর আইনজীবী সুনামগঞ্জ জেলা বারের সদস্য এডভোকেট আবুল আজাদ বলেন, আদালত মামমাটি গ্রহণ করে দুর্নীতি দমন কমিশন সিলেটকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে আদেশ দেন।

বাংলারজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status