ঢাকা, ৯ ডিসেম্বর ২০২৩, শনিবার, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৫ হিঃ

শেষের পাতা

আনোয়ার প্রসঙ্গে নাদেলের বক্তব্য নেতাদের জবাব

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে
৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, বুধবার

আনোয়ারুজ্জামানের অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেলের দেয়া বক্তব্যের কড়া জবাব দিয়েছেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের নেতারা। বলেছেন, এ ধরনের বক্তব্য বিভ্রান্তিকর। প্রধানমন্ত্রীর তরফ থেকে তারা এ ব্যাপারে কোনো নির্দেশনা পাননি। গতকাল গণমাধ্যমে সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ কথা জানিয়েছেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাসুক উদ্দিন আহমদ ও  সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন। চলতি বছরের মাঝামাঝি সময়ে সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচন। এ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়নপ্রাপ্তিকে কেন্দ্র করে আগে থেকেই আওয়ামী লীগের ভেতরে তোড়জোড় শুরু হয়েছে। মেয়র পদে সিলেট থেকে দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী অনেক। তারা মাঠে কাজ করছেন। এরমধ্যে নতুন করে এসে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়ে মাঠে নেমেছেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী। তার পক্ষে মাঠে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক নাদেলও একাট্টা।

বিজ্ঞাপন
এ বিষয়টি এখনো ভালো চোখে নেননি সিলেট আওয়ামী লীগের নেতারা। ফলে নাদেলের কর্মকাণ্ড তারা পর্যবেক্ষণ করছিলেন। এই অবস্থায় গত সোমবার সিলেটের ২৪ নং ওয়ার্ডে সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী আনোয়ারুজ্জামানের শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে নাদেল বলেছিলেন; ‘স্মার্ট সিলেট সিটি গড়তে আনোয়ারুজ্জমান চৌধুরী কাজ করে যাচ্ছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আমরা তার সঙ্গে আছি। সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নৌকার কাণ্ডারী হয়ে এই সিটিকে স্মার্ট সিটিতে রূপান্তরে আমরা একসঙ্গে কাজ করে যাবো।’ নাদেলের বক্তব্যে ক্ষুব্ধ হয়েছেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের নেতারা। গতকাল তারা এই বক্তব্যের জবাব দিয়ে সংবাদ মাধ্যমে বিবৃতি দিয়েছেন। এতে তারা দাবি করেছেন- মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন নিয়ে এখনো প্রধানমন্ত্রী ও দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের কাছ থেকে কোনো নির্দেশনা আসেনি। দলীয় প্রার্থী নিয়ে নেতাকর্মীদের বিভ্রান্ত না হওয়ারও আহ্বান জানিয়েছেন তারা। গতকাল মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক খন্দকার মহসিন কামরান কর্তৃক গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে মাসুক উদ্দিন আহমদ ও জাকির হোসেন বলেন- ‘গতকাল ৬ই ফেব্রুয়ারি সিটি করপোরেশনের কোনো একটি ওয়ার্ডে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ময়মনসিংহ বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক সিলেট সিটি মেয়র নির্বাচনের মনোনয়ন প্রসঙ্গে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বরাত দিয়ে যে বক্তব্য উপস্থাপন করেছেন তা মহানগর আওয়ামী লীগের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। এ বিষয়ে আমাদের সুস্পষ্ট বক্তব্য হলো: মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের কাছ থেকে এ সংক্রান্ত কোনো নির্দেশনা সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের দায়িত্বপ্রাপ্ত হিসেবে আমরা পাইনি। অতএব, ঐতিহ্যবাহী সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিলেট মহানগরের শৃঙ্খলাসহ দলীয় ভাবমূর্তি যাতে বিনষ্ট না হয় এবং বিভ্রান্তি যাতে না ছড়ানো হয় সংশ্লিষ্টদের প্রতি এ বিষয়ে আহ্বান জানানো যাচ্ছে।’ এদিকে- সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতা গতকাল মানবজমিনকে জানিয়েছেন- আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে শফিউল আলম নাদেল বর্তমানে সিলেট আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের মধ্যে একজন। তার কর্মকাণ্ড বা বক্তব্য দলের কার্যক্রমের ওপর ছাপ পড়ে। সিলেটের সন্তান হিসেবে তিনি সবই জানেন। অথচ বিভ্রান্তি ছড়ানোর মতো কর্মকাণ্ড করে নাদেল সিলেটে নিজের সুসংহত অবস্থানকে দুর্বল করছেন। তারা জানিয়েছেন- আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকার টিকিট চাইতে পারেন। যদি তিনি নৌকা পান তবে সিলেট আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়েই তাকে নির্বাচন করতে হবে। সুতরাং সামগ্রিক দিক বিবেচনা করে পরিস্থিতি ঘোলাটে না করা উচিত বলে মন্তব্য করেন তারা। এদিকে- সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালিকায় রয়েছেন অনেকেই। এরমধ্যে রয়েছেন- আওয়ামী লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আসাদ উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক আজাদুর রহমান আজাদ, এটিএম হাসান জেবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরানপুত্র ডা. আরমান আহমদ শিপলু, মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা প্রিন্স সদরুজ্জামান। সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের মৃত্যুর পর থেকে তারা সিলেটে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। প্রার্থী হতে ইচ্ছুক নেতারা প্রতিদিনই তারা দল গোছানোর পাশাপাশি নির্বাচনী কার্যক্রমেও রয়েছেন। আসাদ ও জাকির কামরানের সঙ্গে নৌকার টিকিট পেতে লড়াই করেছিলেন। মহানগর নেতারা জানিয়েছেন- দলীয় মনোনয়ন বোর্ডের তরফ থেকে যে নৌকার টিকিট পাবে তার পক্ষে সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে মাঠে থাকবে। এটিই হচ্ছে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রক্রিয়া। কিন্তু তার আগেই কেন্দ্রীয় নেতার মুখ থেকে একজনের নাম ঘোষণা করা বিভ্রান্তকরই না, দলের শৃঙ্খলার মধ্যে পড়ে না। বিষয়টি তারা কেন্দ্রের নজরে আনবেন বলেও জানান।

শেষের পাতা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2023
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status