ঢাকা, ৭ ডিসেম্বর ২০২২, বুধবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

অনলাইন

রাশিয়া জুড়ে এখন দেশ ছাড়ার হিড়িক, হু হু করে বাড়ছে বিমান ভাড়া

মানবজমিন ডিজিটাল

(২ মাস আগে) ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, বুধবার, ৫:৪২ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:১৯ পূর্বাহ্ন

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ভ্লাদিমির পুতিন প্রথম সামরিক সমাবেশের নির্দেশ দেয়ার পরে মস্কোতে ব্যক্তিগত জেটগুলিতে আসনের চাহিদা  হু হু করে বেড়েছে এবং ধনী রাশিয়ানরা দেশ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পথ খুঁজছে। যাত্রীরা প্রধানত আর্মেনিয়া, তুরস্ক এবং আজারবাইজানের দিকে যাচ্ছেন যা রাশিয়ানদের ভিসা মুক্ত প্রবেশের অনুমতি দেয়। ‘দ্য গার্ডিয়ান’ জানিয়েছে, রুশ বিমানের টিকিটের দাম কয়েক গুণ বেড়ে গেছে। বেসরকারি বিমানের এক একটি টিকিটের দাম পৌঁছেছে ২০,০০০ থেকে ২৫,০০০ পাউন্ডে। আট সিটের জেট ভাড়া ৮০ হাজার পাউন্ড থেকে ১ লক্ষ ৪০ হাজার পাউন্ডে পৌঁছেছে, যা সাধারণ ভাড়ার চেয়ে বহুগুণ ব্যয়বহুল।  একটি ব্রোকার জেট কোম্পানি ইয়োর চার্টারের পরিচালক ইয়েভজেনি বিকভ বলেছেন, "এই মুহূর্তে রাশিয়ার পরিস্থিতি অভূতপূর্ব। আগে আমরা টিকিটের জন্য প্রতিদিন ৫০ টি অনুরোধ পেতাম; এখন এটি প্রায় ৫ হাজারে পৌঁছেছে ।" ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রুশ জনতার একাংশকে যুদ্ধে পাঠানোর কথা ঘোষণা করেছেন পুতিন। 

এরপরই পুরুষদের মধ্যে দেশ ছেড়ে যাবার হিড়িক পড়ে গেছে। রাশিয়ার সীমান্ত ক্রসিংয়ে লম্বা ট্রাফিক জ্যাম তৈরি হয়েছে, যখন বেশিরভাগ একমুখী বাণিজ্যিক বিমানের টিকিট আগামী দিনের জন্য বিক্রি হয়ে গেছে। বিকভ বলেছেন যে 'আমার ফার্ম চাহিদা মেটাতে এবং দাম কমানোর প্রয়াসে বড় বাণিজ্যিক প্লেন ভাড়া করা শুরু করেছে। কিন্তু তারপরেও প্রত্যেকের জন্য পর্যাপ্ত জায়গা খুঁজে পাচ্ছি না।

বিজ্ঞাপন
ইয়েরেভানে চার্টার্ড বাণিজ্যিক বিমানে সবচেয়ে সস্তা সিটের দাম প্রায় ৩ হাজার পাউন্ড । প্রাইভেট জেট কোম্পানি 'ফ্লাইটওয়ে' বলেছে যে  আর্মেনিয়া, তুরস্ক, কাজাখস্তান এবং দুবাইতে একমুখী ফ্লাইটের জন্য বেশি আবেদন আসছে তাদের কাছে। রাশিয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা চালু করার পরে জেটগুলির প্রাপ্যতা গুরুতরভাবে সীমিত ছিল। সমস্ত ইউরোপীয় প্রাইভেট জেট সংস্থাগুলি রাশিয়ার বাজার ছেড়ে চলে যায় । এখন সরবরাহের চেয়ে বেশি চাহিদা রয়েছে। 

এরই মধ্যে রাশিয়ায় ব্যাপক আশঙ্কা রয়েছে যে ক্রেমলিন এই সপ্তাহে তার সীমান্ত বন্ধ করার পরিকল্পনা করছে। স্বাধীন মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলি বলেছে যে রোববার থেকে জর্জিয়ার সাথে রাশিয়ার একমাত্র অপারেশনাল ক্রসিং পয়েন্টে সীমান্ত রক্ষীরা কিছু লোককে বেরোতে বাধা দিয়েছে । একটি সমীক্ষা অনুসারে,  ধনী নাগরিকরা বিদেশে চলে যাওয়ায় রাশিয়া ইতিমধ্যেই এই বছর তার ১৫% মিলিয়নিয়ার হারিয়েছে । সামরিক সমাবেশ এই বহিঃপ্রবাহকে আরও গভীর করবে, সম্ভাব্যভাবে রাশিয়ার অর্থনীতির ক্ষতিকে বাড়িয়ে দেবে। রাশিয়ার ধনী এবং ক্ষমতাবানদের বহির্গমন দেশের দরিদ্র অঞ্চলগুলিতে বিক্ষোভের জন্ম দিতে পারে। এর মধ্যেই একটি খবর ছড়িয়ে পড়েছে যে, সিনিয়র রাশিয়ান কর্মকর্তা এবং তাদের সন্তানদের ইউক্রেনের যুদ্ধে পাঠানো হবে না । যার জেরে উত্তেজনা আরো বেড়েছে। দ্য গার্ডিয়ান অনুসারে, একজন বিশিষ্ট রাশিয়ান কর্মকর্তার ছেলে  যিনি প্রায়শই পশ্চিমা বিরোধী এবং দেশপ্রেমিক হিসেবে বিবৃতি দেন, শনিবার ইস্তাম্বুলের একটি ফ্লাইটে দেশ ছেড়েছেন।

সূত্র: গার্ডিয়ান

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: news@emanabzamin.com
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status