ঢাকা, ১৫ জুলাই ২০২৪, সোমবার, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

অনলাইন

২৭ জুন প্রথমবার মুখোমুখি বিতর্কে বাইডেন -ট্রাম্প

মানবজমিন ডিজিটাল

(২ সপ্তাহ আগে) ২৪ জুন ২০২৪, সোমবার, ৫:৫৩ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১০:০২ পূর্বাহ্ন

mzamin

মার্কিন প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্কের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন দুই প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেন এবং ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগামী ২৭ জুন রাত  ৯ টায়  জর্জিয়ার আটলান্টায় প্রথমবার মুখোমুখি বিতর্কে অংশ নেবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট তথা ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন  এবং তার  রিপাবলিকান প্রতিদ্বন্দ্বী ডনাল্ড ট্রাম্প। ৫ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হতে চলা প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে এটিই হবে প্রথম বিতর্ক। সিএনএনে তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে ওই ৯০ মিনিটের বিতর্ক সভায় কোনও শ্রোতা উপস্থিত থাকবেন না। যুযুধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর বক্তৃতায় ক্ষেত্রেও ‘কড়া সময়সীমা’ থাকবে বলে জানানো হয়েছে। উভয় প্রার্থী, বাইডেন ( ৮১) এবং ট্রাম্প ( ৭৮) জাতীয় জনমত জরিপে ঘাড়ে-ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছেন। অনেক ভোটার এখনও নির্বাচনের পাঁচ মাস আগে অনিশ্চিত তারা কাকে ভোট দেবেন।

লিবার্টারিয়ান পার্টির নেতা তথা চলতি বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে নির্দল প্রার্থী রবার্ট এফ কেনেডি জুনিয়র এই বিতর্কে অংশ নিচ্ছেন না। আরকানসাস বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক প্যাট্রিক স্টুয়ার্টের মতে, এই বিতর্ক উভয় প্রার্থীকে খুব একটা স্বাচ্ছন্দ্য দেবে বলে মনে হয় না বরং তাদের অনেক চ্যালেঞ্জিং প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হবে। 
বিতর্কটি উভয় প্রার্থীর জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্ত হবে। কারণ দুজনেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট  পদের জন্য বেশ প্রবীণ প্রার্থী। স্টুয়ার্ট  রয়টার্সকে বলেছেন, ‘এটি দুই প্রার্থীর  জ্ঞানীয় দক্ষতার একটি অবিশ্বাস্য পরীক্ষা।

বিজ্ঞাপন
তারা পরীক্ষায় উত্তীর্ন হন  কিনা তা দেখার এটাই আমাদের সুযোগ।‘

বাইডেন  বর্তমানে ক্যাম্প ডেভিডে রয়েছেন, তার সহযোগী  তথা প্রাক্তন চিফ অফ স্টাফ রন ক্লেইনের নেতৃত্বে, বিতর্কের প্রস্তুতির দিকে মনোনিবেশ করছেন । ক্লেইন মার্চ মাসে তার স্টেট অফ দ্য ইউনিয়ন বক্তৃতার প্রস্তুতিতে বাইডেনকে সহায়তা করেছিলেন। বাইডেনের  দলের লক্ষ্য গর্ভপাত এবং গণতন্ত্রের মতো ইস্যুতে ট্রাম্পের চরমপন্থী নীতিগুলি তুলে ধরা, ট্রাম্পের বিভাজনমূলক নীতির তুলনায় বাইডেনকে  একজন স্থিতিশীল এবং জ্ঞানী নেতা হিসাবে চিত্রিত করা।

ট্রাম্প ইতিমধ্যে চিরাচরিত প্রস্তুতির পরিবর্তে  বাইডেনের বিরুদ্ধে   ‘জাতীয় নিরাপত্তায় অবহেলা’, ‘কূটনৈতিক ব্যর্থতা’ এবং ‘আমেরিকার আদি বাসিন্দাদের স্বার্থরক্ষায় অনীহা’ - এর মতো  বিষয়গুলো বেছে নেবেন বলে মনে করা হচ্ছে । এই বিতর্ক একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়  হবে, যা ভোটারদের দেশের জন্য দুই নেতৃস্থানীয় প্রার্থীর দৃষ্টিভঙ্গি সম্পর্কে একটি স্পষ্ট দৃষ্টিভঙ্গি প্রদান করবে।

সূত্র : ইন্ডিয়া টুডে

পাঠকের মতামত

Biden is worse president Americans history. We never ever voted again. Inshallah we will vote for president Trump. And we believe coming election president Trump will be next president America 2024 .

Imral
২৪ জুন ২০২৪, সোমবার, ৯:০৫ অপরাহ্ন

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status