ঢাকা, ১৫ জুলাই ২০২৪, সোমবার, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

শেষের পাতা

কামরানকে স্মরণে রাখছেন আনোয়ার

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে
১৫ জুন ২০২৪, শনিবারmzamin

সিলেটের সাবেক মেয়র বদরউদ্দিন আহমদ কামরান। ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা। মেয়র হওয়ার পাশাপাশি দলের ভেতরেও তার অবদান ছিল বেশি। চার বছর আগে ২০২০ সালের ১৫ই জুন না ফেরার দেশে চলে যান কামরান। মহামারি করোনা কাল তখন। চারদিকে শুধু আতঙ্ক আর হতাশা। নিজ বাসা নগরের মাছিমপুরে মানুষের এই ক্রান্তিকালে পাশে দাঁড়িয়েছিলেন কামরান। খাবার বিতরণসহ নানা সেবায় ব্যস্ত ছিলেন। এমনকি ওই সময় সিলেটের চিকিৎসা ব্যবস্থাকে উন্নত  করার তাগিদ ছিল তার। জনসেবা করে করেই মহামারি করোনা কাবু করে কামরানকে।

বিজ্ঞাপন
প্রথমে সিলেটে এবং পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ঢাকার সিএমএইচে নিয়ে চিকিৎসা করালেও বাঁচানো যায়নি কামরানকে। তার মৃত্যুতে সিলেটে শোকের ছায়া নেমে এসেছিল। একবার পৌরসভার চেয়ারম্যান ও দুইবার সিলেটের মেয়র ছিলেন কামরান। পাশাপাশি দীর্ঘদিন ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি। তাকে বলা হতো সিলেটের জনদরদী নেতা। কিন্তু সিলেটের এই সাবেক নেতা কামরানের মৃত্যুর পর তাকে স্মরণ করে না কেউ। সিলেট সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে শোকসভার আয়োজন করা হয়নি। দলের পক্ষ থেকে কোনো স্মরণসভা হয়নি। বিষয়টি দৃষ্টিকটু ছিল। চার বছর হলো কামরান নেই। পরিবারের পক্ষ থেকে বছর বছর দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকেও দোয়া মাহফিল হয়। 

আওয়ামী লীগ থেকে স্মরণসভার আয়োজন না করার বিষয়টিও সমালোচিত হয়েছে। তবে, এবার সিলেটের সাবেক এই মেয়র ও রাজনীতিবিদকে স্মরণে নিচ্ছেন বর্তমান মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী। আজ ১৫ই জুন কামরানের চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী। তার মৃত্যুবার্ষিকীকে সামনে রেখে মেয়র আনোয়ারের নেতৃত্বে সিলেট সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে দোয়া ও স্মরণসভার আয়োজন করা হয়েছে। এটি হবে কামরানকে নিয়ে সিলেটে প্রথম কোনো স্মরণসভা। সিলেট সিটি করপোরেশনের জনসংযোগ শাখা থেকে গতকাল বিকালে জানানো হয়েছে- সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে নগরের অভিজাত আমানউল্লাহ কমিউনিটি সেন্টারে দোয়া ও স্মরণ সভার আয়োজন করা হয়েছে। এতে সকলের উপস্থিতি কামনা করা হয়েছে। সিটি মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী গতকাল বিকালে মানবজমিনকে জানিয়েছেন, সাবেক মেয়র বদরউদ্দিন আহমদ কামরান সিলেটের প্রথম মেয়র।

 তিনি আমাদের অগ্রজ, আমাদের অনুপ্রেরণা। তাকে স্মরণে রাখতে এ সভার আয়োজন করা হয়েছে। সিলেটের উন্নয়নে সাবেক এই মেয়রের অবদান ভোলার নয়। তিনি নগরের সামাজিকতার প্রতীক ছিলেন। মনে-প্রাণে তিনি এই নগরের মানুষকে ভালোবাসতেন। মানুষও তার কাছে আশ্রয় খুঁজতো। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, চার বছরের মধ্যে সিলেটে সাবেক এই মেয়রের জন্য কেউ স্মরণ সভা করেনি বলে জেনেছি। এবার আমরা সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকেই এই আয়োজন করছি। পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, সাবেক এই মেয়রের মৃত্যুবার্ষিকীতে তার পরিবারের পক্ষ থেকে কোরআন খতম, দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হচ্ছে। কামরানের বড় ছেলে ডা. আরমান আহমদ শিপলুর উদ্যোগে এসব অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে। এ ছাড়া নগরের বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। সিলেট সিটি করপোরেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা সাজলু লস্কর জানিয়েছেন, বদরউদ্দিন আহমদ কামরানের চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নগরে ব্যানার ও ফেস্টুন টানানো হয়েছে। সিলেটের প্রিয় এই মানুষের মৃত্যুর দিনটি শোক, শ্রদ্ধায় স্মরণ করতে মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। তিনি বলেন, সাবেক মেয়র কামরানের স্মরণসভায় অংশ নিতে নগরের সুধীজনসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষকে দাওয়াত দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি শিরনি বিতরণ করা হবে।  

শেষের পাতা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status