ঢাকা, ২০ এপ্রিল ২০২৪, শনিবার, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১০ শাওয়াল ১৪৪৫ হিঃ

খেলা

বিপিএল নিয়ে সমালোচনা

হাথুরুর কাছে ব্যাখ্যা চাইবে বিসিবি

ইশতিয়াক পারভেজ
২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, মঙ্গলবার
mzamin

চন্ডিকা হাথুরুসিংহে বাংলাদেশ জতীয় দলের প্রধান কোচ যেন বিতর্ক ছাড়া থাকতেই পারেন না। তার প্রথম মেয়াদ শেষ হয়েছিল ক্রিকেটার ও বোর্ডের সঙ্গে নানা বিতর্কিত ঘটনার মধ্য দিয়ে। ২০২৩ ভারতে ওয়ানডে বিশ্বকাপের ৬ মাস আগে তাকে আবারো তুলে দেয়া হয় প্রধান কোচের দায়িত্ব। নতুন মেয়াদেও তাকে নিয়ে সমালোচনা পিছু ছাড়েনি। তামিম ইকবালকে দল থেকে বাদ দেয়া নিয়ে তার দিকে সরাসরি ওঠে অভিযোগের আঙ্গুল। তবে বার বারই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নিরব ভূমিকাতে রক্ষা পেয়েছেন! তবে চুক্তিবদ্ধ কোচ হয়েও বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল) চলতি দশম আসর নিয়ে সমালোচনা করে আবারো নতুন বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন হাথুরুসিংহে। 

ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফোকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বিপিএলকে সার্কাস বলেছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের  প্রধান কোচ। শুধু তাই নয়, বিপিএল দেখতে বিরক্ত হয়ে তিনি টিভিও বন্ধ করে দেন বলে এমন মন্তব্য করেছেন হাথুরু। যা নিয়ে চলছে ক্রিকেট অঙ্গনে তোলপাড়। একজন চুক্তিবদ্ধ কোচ হয়েও কি তিনি পারেন বিসিবি’র একটি টুর্নামেন্ট নিয়ে এমন সমালোচনা করতে! এবারও কি তিনি পার পেয়ে যাবেন? জানা গেছে বিসিবি’র কর্তারা এবার নড়েচড়ে বসেছেন। এক দফা তার কাছে এমন বক্তব্যের ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
এবার আনুষ্ঠানিক ভাবে তার কাছে জানতে চাওয়া হবে বলেও জানা গেছে। বিসিবি’র দায়িত্বশীল একটি সূত্র দৈনিক মানবজিমনকে জানিয়েছে- ‘হাথুরুর কাছে এরই মধ্যে জানতে চাওয়া হয়েছে। তিনি যা বলেছেন তা আমরা শুনেছি। তবে বোর্ড থেকে তার কাছে আনুষ্ঠানিক ভাবে এই বিষয়ে ব্যাখা চাওয়া হবে।’ 

একটি সূত্রে জানা গেছে চন্ডিকা হাথুরুসিংহে তার প্রাথমিক ব্যাখ্যাতে জানিয়েছেন তিনি যা বলতে চেয়েছেন তা সঠিক ভাবে লেখা হয়নি। তার মানে পুরো ঘটনাকে হয়তো শেষ পর্যন্ত চতুর এই কোচ অন্যদিকে প্রবাহিত করে এবারও  বেঁচে যাবেন! যদিও বিসিবি সূত্রে জানা গেছে তার জন্য এই বিষয়ে ছাড় পাওয়া সহজ হবে না। অন্যদিকে বিসিবি হাথুরুকে নিয়ে এখনই কোনও মন্তব্য করতে রাজি নয়। ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস দৈনিক মাবজমিনকে বলেন, ‘আমরা হাথুরুসিংহের সঙ্গে কথা না বলে এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাই না।’ বিপিএল নিয়ে হাথুরুর মন্তব্যগুলোকে বিস্ফোরক বলা চলে। তিনি টুর্নামেন্টের কার্যকারিতা আর মান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। 

বিপিএল বিশ্বমানের কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে হাথুরুসিংহে বলেন, কোনোভাবেই না। আমাদের যথাযথ কোনো টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট নেই। এটা শুনতে হয়তো অদ্ভুত লাগবে। তবে যখন আমি বিপিএল দেখি, তখন মাঝেমধ্যে টিভি বন্ধ করে দেই। কিছু খেলোয়াড় তো কোনো জাতেরই না। যেভাবে এটি এগিয়ে যাচ্ছে, সেই পদ্ধতি নিয়ে আমার অনেক প্রশ্ন আছে। আমাদের বোর্ডেরও উচিত, এই বিষয়ে কিছু করা। অবশ্যই কিছু নিয়ম থাকতে হবে। একজন খেলোয়াড় একটা টুর্নামেন্ট খেলছে, পরে আরেকটা খেলছে। এটা সার্কাসের মতো। খেলোয়াড়েরা তাদের সুযোগের কথা বলবে, কিন্তু এটা ঠিক নয়। মানুষ আগ্রহ হারিয়ে ফেলবে, আমি আগ্রহ হারিয়েছি।’ 

মূলত হাথুরুসিংহে বিপিএল চলাকালীন বিদেশি ক্রিকেটারদের আসা-যাওয়াকে ভালো চোখে দেখছেন না। আবার দেশের সর্বোচ্চ ফ্রাঞ্চাইজিভিত্তিক এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশিদের অংশগ্রহণও সাড়া জাগানোর মতো অবস্থানে নেই। শুধু তাই নয়, হাথুরু নতুন আরেকটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আয়োজনের দাবি জানিয়েছেন। তিনি বলেন, বিপিএলের আগে আরেকটি টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হোক। এখানে ফ্র্যাঞ্চাইজির যা ভালো লাগে সেটাই করে, সেরা কিছু খেলোয়াড় খেলছে না। কীভাবে আপনি প্রত্যাশা করেন, বাংলাদেশ অন্য দলের চেয়ে ভালো করবে।’ 

অন্যদিকে  দেশের সাবেক এক ক্রিকেট অধিনায়ক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘হাথরু যা বলেছেন তা ভুল বলা যাবে না। বিপিএল যে প্রত্যাশা নিয়ে শুরু হয়েছিল এক যুগে সেই লক্ষ্য অর্জন করতে পারেনি। শুধু দেশিদের নিয়ে একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের দাবি ক্রিকেটারদেরও।

তবে তিনি যে ভাবে সমালোচনা করেছেন তা  চুক্তিবদ্ধ কোচ হিসেবে যাবেন কিনা সেটি আসলে দেখবে বিসিবি। তবে হাথুরু যা বলেছেন তার বেশির ভাগই বাংলাদেশের ক্রিকেটের যারা উন্নতি চায় তাদেরও প্রাণের দাবি।’ 
 

পাঠকের মতামত

উনি সঠিক কথা বলেছে, পুরা ক্রিকের এখন সার্কাস, প্লেয়ার রা সার্কাস কর্মকর্তারা তার চেয়ে বড়ো সার্কাস। শুরুর দিকে BPL মাঠে অনেক দর্শক থাকতো এখন মাছি ও নাই এটাই তার প্রমান। BCB কর্মকর্তারা আমাদের প্রাণের ক্রিকেট কে শেষ করে দিসসে। এর জন্য পাপন ও তার দল দায়ী।

Riaz
২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, সোমবার, ২:০৭ অপরাহ্ন

খেলা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

খেলা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status