ঢাকা, ২৬ জুন ২০২২, রবিবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৫ জিলক্বদ ১৪৪৩ হিঃ

খেলা

ব্যাটারদেরই দুষলেন আকরাম দুর্জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার
২২ জুন ২০২২, বুধবার

দেশের প্রথম টেস্ট অধিনায়ক নাঈমুর রহমান দুর্জয়। ২০০০-এ তার নেতৃত্বে ভারতের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট খেলেছিল বাংলাদেশ। অন্যদিকে সেই দলের সিনিয়র সদস্য ছিলেন আকরাম খান। হারলেও দারুণ শুরু করেছিলেন তারা। কিন্তু তাদের হাত থেকে দলের এগিয়ে যাওয়ার মশাল যাদের হাতে এসেছে, তারা টেস্ট ক্রিকেটকে দেখাতে পারেননি আলোর পথ। ২২ বছর পেরিয়ে গেলেও দেশের দুই সাবেক অধিনায়কের কণ্ঠে ঝরলো টেস্ট দুঃখের গল্প। এত বছরেও কেন সাদা পোষাকে ব্যর্থতার সাগরে ভাসছে টাইগাররা! দুর্জয় বলেন, ‘জাতিগতভাবে আমরা শর্টার ভার্সনে (ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি) বেশি আগ্রহী। দর্শক, ক্লাব অফিশিয়াল বলুন বা সংগঠক সবাই। আসলে টেস্টের দিকে মনোযোগ দেয়া উচিত। কারণ ক্রিকেটের মূল জায়গা হচ্ছে টেস্ট।

বিজ্ঞাপন
আমরা টেস্ট স্ট্যাটাস পেয়েছি, খেলছি অনেকদিন হয়ে যাচ্ছে। টেস্টের সংস্কৃতি, ঘরোয়া প্রথম শ্রেণি এসবে আমাদের আরও যত্নবান হতে হবে। এটি না হলে টেস্টে ভালো খেলার অন্য কোনো উপায় আসলে নেই।’ ওয়েস্ট ইন্ডিজে টেস্ট সিরিজ খেলছে বাংলাদেশ। সেখানে সিরিজের প্রথম ম্যাচেই সাকিব আল হাসানের দল হেরেছে ৭ উইকেটে।

 তবে হারটা ছিল ব্যাটিং ব্যর্থতার দারুণ পরিনতি। গেল কয়েক বছরে বাজে ব্যাটিংয়ে একের পর এক টেস্ট হেরেছে বাংলাদেশ। এই বিষয়ে দুর্জয় বলেন, ‘(ওয়েস্ট ইন্ডিজে)  খেলার ফল ভালো হয়নি এটা স্বীকার করতেই হবে। এখন সময় আমাদের পারফর্ম করার। আমার একটা জিনিস অবাক লাগে- আমাদের এত ভালো ভালো প্লেয়ার, সবাই এক সঙ্গে ফায়ার করলে টেস্টে এরকম হওয়ার কথা না। অবশ্যই তারা ভালো। কিন্তু দলের ফল আমরা সেভাবে টেস্টে দেখি নাই।’   দেশের প্রথম টেস্ট অধিনায়ক ২২ বছর পর টেস্ট নিয়ে জোরগলায় কোনো কথা বলতে পারছিলেন না। তারা যেখানে রেখে গিয়েছিলেন সুযোগ-সুবিধার উন্নতি হলেও টেস্ট যেন সেখানেই থমকে আছে। এ নিয়ে আক্ষেপ করে দুর্জয় বলেন, ‘কিছুটা দুর্ভাগ্যজনকই (এসব কথা) বলতে হয়। আমি বললাম যে আমরা যখন শুরু করেছিলাম তখন আমাদের যে অভিজ্ঞতা ছিল, আমাদের যে সুযোগ-সুবিধা ছিল সবকিছুই তার থেকে অনেক ভালো। প্লেয়াররাও অনেক ভালো আমাদের থেকে। তারপরও কেন রেজাল্ট হচ্ছে না এটা রহস্যজনক ব্যাপার।’  

টেস্ট হারের অন্যতম কারণ হিসেবে দুর্জয় ব্যাটারদের ব্যর্থতাকে সামনে আনলেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের যে ৫-৬ জন প্লেয়ার তারা ফায়ার করছে। কিন্তু একসঙ্গে ফায়ার করা হচ্ছে না, দলের যেটা প্রয়োজন, টেস্টের প্রতি ঘণ্টায় পরিস্থিতি বদলে যাচ্ছে। আমরা হয়তো ৫০ করছি কিন্তু ইনিংসটা ১০০ হওয়া উচিত। অনেক সময় টাইমকে কিল করার জন্য যেভাবে খেলা দরকার সেটা করতে পারছি না। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে টেস্টে যে সময় পার করা এবং আরেকটা অপশন যে ড্র আছে সেটা আমরা মনে হয় চিন্তা করি না। ড্র করলে কিন্তু অন্তত মাঝখানে একটা জায়গায় থাকা যায়। আমরা সবসময় জিততে গিয়ে হেরে যাচ্ছি। টেস্টে ড্রয়ের অপশন আছে সেটা মাথায় রাখা উচিৎ। দায়িত্ব সবাই নিচ্ছে কিন্তু হয়তো কারও লাক ফেভার করছে কারও করছে না। লাকটা তৈরি করতে হবে, আমরা যদি আর একটু মনোযোগী হই তবে আমি মনে করি, এখান থেকে রিকভারি করার সামর্থ্য আছে আমাদের।’

 নেতৃত্বে ফেরা টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান বলেছেন, দেশের ক্রিকেটে টেকনিক্যালি সাউন্ড ব্যাটার নেই। তার এই মতকে একেবারেই সঠিক মনে করেন দুর্জয়। তিনি বলেন, ‘সাকিব  ঠিকই বলেছে যে টেকনিক্যালি সাউন্ড ব্যাটার নাই। কিছু বিশেষ জায়গা আছে টেস্টে, প্রতিপক্ষ দলের পেসাররাও সুইং করাবে, জোরে বল করার চেষ্টা করবে। সেটাকে ম্যানেজ করতে হলে আমার ব্যাটারের কিন্তু সেই গুণ থাকতে হবে। সুতরাং সবারই এই প্রস্তুতি থাকতে হবে।’  ‘ব্যাটারদের লম্বা ইনিংস খেলতে হবে’ টেস্টে ব্যর্থতা নিয়ে আকরাম খান বলেন, ‘টেস্টে যে রকম আশা করেছিলাম সেরকম কিন্তু হচ্ছে না। কারণ আমাদের একসঙ্গে কয়েকটা ব্যাটসম্যান ফর্মে নেই। ছোট ফরম্যাটে যেমন হয়- আপনি এক-দুইটা ওভার ভালো করেও রিকোভারি করা যায়। কিন্তু টেস্টে এরকম না। একসঙ্গে দল হয়ে ভালো করতে হয় মানে ১১ জনকেই ভালো খেলতে হয়। এখানে আমরা শুরুতেই অন্যদের দেয়া চাপে পড়ে যাচ্ছি। এ ধরনের হলে কিন্তু আমাদের পারফরম্যান্স ভালো হবে না। 

যেমন আমরা গত কিছু টেস্টে খারাপ করছি। আশা করছি পরের ম্যাচ থেকে যেন ব্যাপারটা বদল হয়। দ্বিতীয় ম্যাচে শুরু থেকে আমাদের ডমিনেট করতে হবে। ওরা (উইন্ডিজ) যদি আমাদের ডমিনেট করে ফেলে তাহলে আবারও একই ফল হবে। কারণ যেহেতু আমরা মানসিকভাবে এখন একটু ডাউন আছি তাই কামব্যাক করা খুব গুরুত্বপূর্ণ। শুধু বোলিং না দল হিসেবে ভালো করতে হবে। ব্যাটসম্যানরা লম্বা ইনিংসটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। একজন যদি ১৫০ করে তাহলে বাকিদের দিয়ে ৩০০ সম্ভব। লম্বা ইনিংস না খেললে পারফরম্যান্স সম্ভব না।’

পাঠকের মতামত

প্রায় একযুগ ধরে ক্রিকেট বোর্ডে থেকে কি করলেন ? কি পরিকল্পনা করলেন টেস্ট ক্রিকেট নিয়ে ? বর্তমান ক্রিকেট বোর্ডের কি লজ্জা শরম নাই ????????????

MD MAMUNUR RASHID
২২ জুন ২০২২, বুধবার, ১:৪৫ পূর্বাহ্ন

খেলা থেকে আরও পড়ুন

খেলা থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com