ঢাকা, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, সোমবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৫ শাবান ১৪৪৫ হিঃ

বিশ্বজমিন

শিশুদের পর্নোগ্রাফি থেকে সুরক্ষিত রাখতে বৃটেনে নতুন গাইডলাইন

মানবজমিন ডেস্ক

(২ মাস আগে) ৫ ডিসেম্বর ২০২৩, মঙ্গলবার, ১২:১০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:০৩ পূর্বাহ্ন

mzamin

টিনেজার বা তারও কম বয়সীরা পর্নোগ্রাফিতে আসক্ত হয়ে পড়ছে- এ আলোচনা দেশে দেশে, সমাজে সমাজে। অভিভাবকরা এ নিয়ে ভাবিত। এর থেকে টিনেজার বা শিশুদের সুরক্ষিত রাখতে বৃটেনে অফকম নতুন একটি গাইডলাইন এনেছে। তাতে বলা হয়েছে, ইন্টারনেটে কোনো ব্যবহারকারী পর্নোগ্রাফির সাইটে ঢুকতে হলে বয়স ১৮ বছরের ওপরে তা প্রমাণ করতে তাকে নিজের আইডি আপলোড করতে হবে। এখানেই শেষ না, তার ব্যাংক সম্পর্কে বা মোবাইল সেবা দানকারী সম্পর্কে জানতে চাওয়া হবে। যে ছবি আপলোড করা হবে তা ব্যবহার করে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির বয়স নির্ধারণের প্রযুক্তি ব্যবহারের কথা বলা হয়েছে। ইন্টারনেটে নজরদারিকারী সংস্থা অফকম সোমবার এই গাইডলাইন প্রকাশ করেছে। অনলাইন সেফটি অ্যাক্ট বা অনলাইন নিরাপত্তা আইনের অধীনে যৌনতা বিষয়ক কন্টেন্ট থেকে যুব সমাজকে সুরক্ষিত রাখতে প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ওয়েবসাইট কিভাবে কাজ করবে তার দিকনির্দেশনা দেয়া হয়েছে এতে। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের একটি ট্যাবলয়েড পত্রিকার অনলাইন সংস্করণ। 

এতে আরও বলা হয়, শিশুদের মধ্যে যারা প্রথম অবাধ যৌনাচার দেখে অনলাইনে তাদের গড় বয়স মাত্র ১৩ বছর। অফকম বলেছে, তারা এসব কম বয়সীদের এক্ষেত্রে সাইটগুলো ব্যবহার বন্ধ করতে চায়।

বিজ্ঞাপন
বর্তমানে এক্ষেত্রে শুধু বয়সসীমা ১৮ বছরের ওপরে কিনা তা জানতে চাওয়া হয় ওয়েবসাইটের পক্ষ থেকে, তাতে সম্মতি দিয়ে যেকেউ ঢুকে যেতে পারে ওয়েবসাইটে। অথবা শুধু ঘোষণা বা সতর্কতা দেয়া হয় ওই সাইটের উপাদানগুলো যৌনতা সম্পর্কিত। এক জরিপে দেখা গেছে, এক্ষেত্রে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার পক্ষে বৃটেনের বেশির ভাগ মানুষ। তবে জরিপে অংশ নেয়া ব্যক্তিদের মধ্যে অর্ধেকই তাদের ব্যক্তিগত পরিচয় ও তথ্য ওয়েবসাইটের সঙ্গে শেয়ার করা নিয়ে উদ্বিগ্ন। 

এক্ষেত্রে অফকম বলেছে, বৃটেনের প্রাইভেসি আইনের অধীনে সব বয়সীদের নিশ্চয়তা বিষয়ক মেথড ব্যবহার করা হয়। তা তদারক করে ইনফরমেশন কমিশনারের অফিস। ২০২৫ সাল নাগাদ প্রাপ্তবয়স্কদের ওয়েবসাইট এবং অ্যাপ কিভাবে পর্নোগ্রাফি থেকে শিশুদের সুরক্ষিত রাখছে সে বিষয়ে লিখিত ব্যাখ্যা দিতে হবে। তা রেকর্ড হয়ে থাকবে। যদি তা না করা হয় তাহলে তারা বিশ্বজুড়ে যে আয় করবে তার শতকরা ১০ ভাগ জরিমানা করা হবে। নিয়ন্ত্রকরা বলছেন, তারা আশা করেন পর্নোগ্রাফিক সাইটগুলো তাদের সঙ্গে কাজ করবে। বয়স নির্ধারণের ক্ষেত্রে গৃহীত ব্যবস্থা উচ্চ মাত্রায় কার্যকর থাকবে। এক্ষেত্রে ব্যবহারকারী যে প্রাপ্তবয়স্ক তা প্রমাণ দিতে তার ব্যাংক অথবা মোবাইল ফোন সরবরাহকারীদের নিশ্চয়তা দিতে বলতে হবে। ওয়েবসাইটের সঙ্গে শেয়ার করতে পারেন পাসপোর্ট অথবা ড্রাইভিং লাইন্সে অথবা এমন একটি কোম্পানিতে তার একটি ছবি আপলোড করতে হবে- যা সেখানে প্রযুক্তি ব্যবহার করে বয়স বলে দেবে। 

অফকমের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডেম মেলানি ডাউয়িস বলেন, অনলাইনে এখন শিশুদের জন্য পর্নোগ্রাফি হাতের নাগালে। নতুন অনলাইন নিরাপত্তা আইনে এটা পরিষ্কার যে, এই ধারা পরিবর্তন হতে হবে। আমরা যেসব ব্যবস্থা নিচ্ছি তা উচ্চ মাত্রায় কার্যকর। গত বছর অপকর্মের গবেষণায় দেখা যায়, অনলাইন পর্নোগ্রাফি থেকে সুরক্ষিত থাকার ক্ষেত্রে নারীদের মধ্যে শতকরা ৮৭ ভাগ এবং পুরুষদের মধ্যে শতকরা ৭৭ ভাগ সমর্থন করেন। কিন্তু প্রাপ্তবয়স্ক যেসব ব্যক্তি আগেই পর্নোছবি দেখেছেন অনলাইনে তারা তাদের ব্যক্তিগত তথ্য শেয়ার করা নিয়ে উদ্বিগ্ন। ইনস্টিটিউট ফর ইকোনমিক অ্যাফেয়ার্সের এক রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, বয়স যাচাইয়ের এই ব্যবস্থা ব্যবহারকারীর গোপনীয়তার জন্য হুমকি। 

পাঠকের মতামত

বাংলাদেশে এ পদ্ধতিটি সামনে রেখে শিশু-কিশোরদের কিভাবে রক্ষা করার কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া যায়, এ জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলো দ্রুতই সিদ্ধান্ত নিবেন বলে সকল অভিভাবকদের প্রত্যাশা !

Hafizur Rahman
৫ ডিসেম্বর ২০২৩, মঙ্গলবার, ৫:৪৬ পূর্বাহ্ন

বিশ্বজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2023
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status