ঢাকা, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, শনিবার, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ৩ শাওয়াল ১৪৪৫ হিঃ

খেলা

বাফুফে নয়! মহসিনের পাশে দাঁড়িয়েছে বিসিবি

স্পোর্টস রিপোর্টার

(১০ মাস আগে) ৬ জুন ২০২৩, মঙ্গলবার, ৫:০৬ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:০৯ পূর্বাহ্ন

mzamin

বেশ কয়েকদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভেসে বেড়াচ্ছে সাবেক জাতীয় দলের গোলরক্ষক মোহাম্মদ মহসিনের একটি ছবি। ছবিতে দেখা যাচ্ছে অসুস্থ, রুগ্ন মহসিন খাবার খাচ্ছেন। খোঁজ নিয়ে জানা যায় অসুস্থ মহসিন সব হারিয়ে এখন মানসিক ভারসাম্যহীন। সাবেক এই জাতীয় তারকার অবস্থা দেখে তার পাশে দাঁড়ানোর কথা বলেছেন সতীর্থরা। এবার মহসিনের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। অথচ যাদের সবার আগে মহসিনের পাশে দাঁড়ানোর কথা সেই ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) এখনও মহসিনের  খোঁজ নেয়নি। 

দাম্পত্য কলহের পর সংসার ভেঙে যাওয়া, জমিজমা বেদখল হওয়া এবং অর্থসংকটসহ শারীরিক অসুস্থতা মিলে সম্পূর্ণভাবে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছেন মহসিন। যে কারণে তিনি রাজধানীর একটি বাসায় মানবেতর জীবনযাপন করছেন। মহসিনের ছোট ভাই কোহিনুর পিন্টু জানান ‘২০১৩ সালে তার সংসার ভেঙে যায়। স্ত্রীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হওয়ার পর ২০১৪ সালে তিনি কানাডা থেকে দেশে ফিরে আসেন। খেলোয়াড়ি জীবনে যে টাকা উপার্জন করেছিলেন তা দিয়ে সাভারে জমি কিনেছিলেন।

বিজ্ঞাপন
সেগুলোও দুর্বৃত্তরা দখল করে নিয়েছে। কানাডায় থাকাকালীন অর্থকড়ি যা জমিয়েছিলেন তার প্রায় পুরোটাই রেখে দিয়েছেন তার স্ত্রী। যে কারণে তাকে ঢাকায় ফিরতে হয়েছিল শূন্য হাতে। এখন ভাইয়ের শরীরটা দিন দিন শুকিয়ে যাচ্ছে। স্মৃতি হারিয়ে ফেলেছেন। পরিবারের সবাইকে চিনতে পারছেন না।’ এনিয়ে সংবাদ প্রকাশ হলে মহসিনের পাশে দাঁড়ানোর আগ্রহ প্রকাশ করে সোনালী অতীত ক্লাব। সাবেক ফুটবলারদের নিয়ে তৈরি এই সংগঠনের সভাপতি হাসানুজ্জামান খান বাবলু এরইমধ্যে মহসিনের সঙ্গে যোগাযোগ করার কথাও বলেন। 

মহসিন দেশের দুই জনপ্রিয় ক্লাব আবাহনী ও মোহামেডানে অধিনায়কত্ব করলেও শুরুটা করেছিলেন সাদা-কালোদের হয়ে। সেই মোহামেডান ক্লাবও মহসিনের পাশে দাঁড়ানোর কথা বলেছে। সাম্প্রতিক সময়ে ক্রীড়াঙ্গনে সবার সুখ-দুঃখে দৌড়ে যান সাবেক ফুটবলার আব্দুল গাফফার। মহসিনের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘মহসিন বাংলাদেশের ফুটবলের অন্যতম তারকা। দেশের প্রতি তার অসংখ্য অবদান। আমরা সাবেক কয়েকজন খেলোয়াড় মিলে তার সুস্থতার বিষয়ে কাজ করব’। 

সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের নির্দেশে সোমবার রাতেই বিসিবি’র পক্ষ থেকে অসুস্থ মহসিনের ছোট ভাই কোহিনুর পিন্টুর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। বিসিবি সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন নিজে কথা বলেছেন মহসিনের সঙ্গে। মঙ্গলবার বিষয়টি  নিশ্চিত করে নিজামউদ্দিন বলেন, ‘আমাদের বোর্ড সভাপতি অসুস্থ তারকা ফুটবলার মহসিন ভাইয়ের পাশে দাঁড়ানোর কথা বলেছেন। আমরা তার পাশে থাকতে চাই। তার চিকিৎসার সমুদয় ব্যবস্থা করার চেষ্টা করবো। বিসিবির পক্ষ থেকে মহসিনের চিকিৎসার জন্য যা যা প্রয়োজন, তা করা হবে। তার ছোট ভাইকে জানানো হয়েছে, যেখানে তার চিকিৎসা হয়, সেসব কাগজপত্র নিয়ে যোগাযোগ করতে এবং বিসিবির পক্ষ থেকে আর্থিক সহায়তাসহ চিকিৎসা নিশ্চিতের সম্ভাব্য সবরকম চেষ্টাই থাকবে।’ বিসিবির প্রধান নির্বাহী আরও বলেন, ‘মহসিন ভাইয়ের যে জমি সংক্রান্ত ব্যাপার আছে, যা বেদখলের অভিযোগও আছে। সেটা পুনরুদ্ধারে বিসিবি সবরকম সহযোগিতা করবে। আমরা এরই মধ্যে বিসিবির লিগ্যাল অ্যাডভাইজারের সাথে কথা বলেছি। মহসিন ভাইয়ের ছোট ভাইকে কাগজপত্রসহ বিসিবিতে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। আশা করি মহসিন ভাইয়ের শারীরিক অবস্থা উন্নতির পাশাপাশি তার বেদখল করা জমি পুনরুদ্ধারেও বিসিবি সহায়তা করতে পারবে।’

দুপুর পর্যন্ত বাফুফে থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে মহসিনের পাশে দাঁড়ানোর কথা শোনা যায়নি। তবে বাফুফের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন তুষার বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট সাহেব ব্যক্তিগতভাবে মহসিনের পাশা দাঁড়ানোর চেষ্টা করছেন। এ বিষয়ে জানানোর জন্য সংবাদ মাধ্যমকে ডেকেছেন স্যার।’ 

বিসিবি যে কাজটা করছে, সেটা আসলে করার কথা বাফুফের জানিয়ে সাবেক তারকা ফুটবলার আশরাফউদ্দিন চুন্নু বলেন, ‘আমি বিসিবিকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। তারা একজন ফুটবলারের দুঃসময়ে পাশে দাঁড়িয়েছেন। আর ধিক্কার জানাই বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনকে। যারা একজন ফুটবলারের এমন দুরবস্থা দেখেও নিশ্চুপ থাকে।’ বাফুফের বর্তমান কিছু ইস্যু সামনে তুলে এনে চুন্নু আরও বলেন, ‘আসলে ফুটবল ফেডারেশন যারা চালাচ্ছে তাদের লজ্জা নেই। নইলে এতোসব কেলেঙ্কারির পরও তারা কিভাবে গদি আগলে সেখানে বসে থাকে।’  

খেলা থেকে আরও পড়ুন

   

খেলা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status