ঢাকা, ৪ অক্টোবর ২০২২, মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

খেলা

জিম্বাবুয়ের রেকর্ড জুটির পর জয় পেলো বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক

(১ মাস আগে) ১০ আগস্ট ২০২২, বুধবার, ১২:৫৩ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১০:৫৭ পূর্বাহ্ন

তৃতীয় ওয়ানডেতে বাংলাদেশের ২৫৬ রানের জবাব দিতে নেমে ৩২.২ ওভারে ১৫১ রানে গুটিয়ে গেলো জিম্বাবুয়ে। ১০৫ রানের বড় জয়ে হোয়াইটওয়াশ এড়ালো টাইগাররা। ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নিয়েছে জিম্বাবুয়ে।

লুক জংউইকে (১৫) এনামুল বিজয়ের ক্যাচ বানিয়ে নিজের প্রথম সাফল্য পান মোস্তাফিজুর রহমান। এক ওভার বিরতি দিয়ে ক্লাইভ মাদান্দেকে (২৪) ফেরান সাজঘরে। মোস্তাফিজের ওই ওভারেই আউট হন ব্রাড ইভান্স (২)। ৮৩ রানে ৯ উইকেট হারিয়ে বসে জিম্বাবুয়ে। তবে রিচার্ড এনগারাভার ব্যাটে একশ’ পেরোয় তারা।

গত বছর হারারেতে ১২১ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। ঘরের মাঠে বাংলাদেশের বিপক্ষে সর্বনিম্ন ইনিংস এটি তাদের। নিয়াউচিকে নিয়ে সেই স্কোর পেরিয়ে যান এনগারাভা। দশম উইকেটে ৫৮ বলে এ জুটির অবদান ৬৮ রান! ওয়ানডেতে দশম উইকেটে যা জিম্বাবুয়ের সর্বোচ্চ জুটি।

নিয়াউচিকে (২৬) বোল্ড করে জিম্বাবুয়েকে ১৫১ রানে থামান মোস্তাফিজ।

বিজ্ঞাপন
এনগারাভা অপরাজিত ২৭ বলে ৩৪ রানে। ম্যাচে মোস্তাফিজের শিকার ৪ উইকেট। দুটি করে উইকেট নিয়েছেন তাইজুল ইসলাম ও ইবাদত হোসেন।

তাইজুলের দ্বিতীয় শিকার

দলীয় ৩১ রানে কাইয়াকে ফেরান তাইজুল ইসলাম। ২২ বলে ১০ রান করা কাইয়া এলবিডব্লুর ফাঁদে পড়েন। এরপর দলীয় ৪৯ রানে তাইজুলকে ডাউন দ্য উইকেটে মারতে গিয়ে স্টাম্পিং হন টনি মুনিয়ঙ্গা (১৩)। 

ইবাদতের চমক

নিজের দ্বিতীয় ওভারে এসে জোড়া সাফল্য পান অভিষিক্ত ক্রিকেটার ইবাদত হোসেন। তৃতীয় বলে তিনি সাজঘরে ফেরান ওয়েসলি মাধেভেরকে (১)। পরের বলেই দারুণ এক ইয়র্কারে উপড়ে ফেলেন সিকান্দার রাজার দুই স্টাম্প। টানা দুই ম্যাচে অপরাজিত শতক হাঁকানো রাজা এবার ফিরলেন গোল্ডেন ডাক মেরে। ৫ ওভারে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ ২৭/৪।  

৭ রানেই ২ উইকেট নেই জিম্বাবুয়ের

আড়াইশ’ রানের পুঁজি নিয়ে বল হাতে শুরুটা ভালোই করলো বাংলাদেশ। ৭ রানেই তুলে নেয় জিম্বাবুয়ের দুই ওপেনারকে। তাকুদজাওয়ানাশে কাইতানোকে রানের খাতা খুলতে দেননি হাসান মুরাদ। তাদিওয়ানাশে মারুমানিকে (১) বোল্ড করেছেন মেহেদী মিরাজ। 

আফিফের ব্যাটে চড়ে ২৫৬ রানের পুঁজি বাংলাদেশের

হোয়াইওয়াশ এড়ানোর লড়াইয়ে জিম্বাবুয়েকে ২৫৭ রানের লক্ষ্য দিয়েছে বাংলাদেশ দল। আফিফ হোসেন ধ্রুবর ব্যাটে চড়ে ৯ উইকেটে ২৫৬ রানের পুঁজি পায় বাংলাদেশ। ৫৮ বলে ক্যারিয়ারের তৃতীয় ফিফটি পূর্ণ করেন আফিফ। শেষ পর্যন্ত ৮১ বলে ৮৫ রানে অপরাজিত থাকেন এই বাঁহাতি। বাংলাদেশের ইনিংসে যা সর্বোচ্চ। ৬ বাউন্ডারির সঙ্গে ছক্কা মেরেছেন দুটি। 

৬৯ বলে ৩৯ রান করে আউট হলেন মাহমুদুল্লাহ

টেস্ট মেজাজে খেলে ৬৯ বলে ৩৯ রান করে আউট হয়েছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। দলীয় ১৭৩ রানে পঞ্চম উইকেট হারালো বাংলাদেশ। দলীয় ২০৬ রানে ষষ্ঠ ব্যাটার হিসেবে সাজঘরে ফিরলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। সিকান্দার রাজার বলে এলবিডব্লু’র ফাঁদে পড়েন তিনি। ২৪ বলে ২ চারে করেছেন ১৪ রান। ৫ রান করেন তাইজুল। হাসান মাহমুদ ও মোস্তাফিজুর রহমান রানের খাতাই খুলতে পারেননি।

৭৬ রানে ফিরলেন বিজয়

ওপেনিং জুটি ভাঙার পর বিপদে পড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। মাত্র ৬ রানের মধ্যে আরও দুই উইকেট হারায় টাইগাররা। বিপদের মুখে প্রতিরোধ গড়ে তোলেন এনামুল হক বিজয়। দৃঢ় ব্যাটে তুলে নেন ক্যারিয়ারের পঞ্চম ফিফটি। এরপর ২৪.৪ ওভারে লুক জঙ্গির বল খেলতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ধরা পড়েন তিনি। আউট হওয়ার আগে ৭১ বলে ৭৬ রান করেন। বিজয় ৬ চার ও ৪ ছক্কার মারে সাজান ইনিংসটি।
২৬ ওভার শেষে ৪ উইকেটে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৪০  রান। 

বিজয়ের ফিফটি, টেস্ট মেজাজে খেলছেন রিয়াদ  

ডিপিএলে পারফর্ম করে দীর্ঘ সময় পর বাংলাদেশের ওয়ানডে দলে সুযোগ করে নিয়েছেন এনামুল হক বিজয়। এক দিনের ক্রিকেটে নির্বাচকদের আস্থার যুতসই প্রতিদান দিচ্ছেন এই ব্যাটার। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে ৭৩ রান করেন বিজয়, দ্বিতীয় ম্যাচে করেন ২০ রান। সিরিজের শেষ ম্যাচে আবার ফিফটি হাঁকালেন বিজয়। ৫০ বলে ৫ চার ও ৩ ছক্কায় ৫৫ রান নিয়ে অপরাজিত রয়েছেন তিনি। 
বিজয়ের সঙ্গী মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ টেস্ট মেজাজে ইনিংস বড় করছেন। ২৪ বলে ৬ রান নিয়ে ক্রিজে রয়েছেন তিনি।

১৮ ওভার শেষে ৩ উইকেটে ৮৯ রান বাংলাদেশের। 

৪৭ রানে ৩ উইকেট নেই বাংলাদেশের 

হোয়াইটওয়াশ লজ্জায় পড়ার শঙ্কা বাড়ছে বাংলাদেশের। নাজমুল হোসেন শান্ত’র পর ডাক মারলেন মুশফিকুর রহীম। ৩ বল খেলে রানের খাতা খুলতে পারেননি মিস্টার ডিপেন্ডেবল। দলীয় ৪৭ রানে তিন উইকেট নেই বাংলাদেশের। 

সাবধানী শুরুর পর ফিরলেন তামিম, গোল্ডেন ডাক শান্ত’র

জিম্বাবুয়ে নাকি টাইগারদের পছন্দের প্রতিপক্ষ। অন্তত বাংলাদেশি গণমাধ্যমে চাকাভা-সিকান্দার রাজারা এভাবেই সম্বোধিত। তবে চলতি সিরিজে অন্য এক জিম্বাবুয়েকে দেখা যাচ্ছে। টানা হারে এবার ধবলধোলাইয়ের মুখে বাংলাদেশ। লজ্জা এড়ানোর মিশনে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে ধীরে-সুস্থে লড়ছিলেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও এনামুল হক বিজয়। তবে বেশিদূর এগোয়নি ওপেনারদের পার্টনারশিপ। দলীয় ৪১ রানে ফেরেন তামিম। ৪.৩তম ওভারে রানআউট হওয়ার আগে ৩০ বলে ১৯ রান করেন তামিম। 
তামিম আউট হওয়ার পর ক্রিজে নেমেই ক্যাচ তুলে শূন্য হাতে সাজঘরে ফেরেন নাজমুল হোসেন শান্ত। ২৪ বলে ২৪ রান নিয়ে ক্রিজে রয়েছেন বিজয়।
৯.২ ওভার শেষে ২ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪৭ রান।
 

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

টানা দুই ম্যাচ হেরে ওয়ানডে সিরিজ হাতছাড়া হয়েছে বাংলাদেশের। এবার হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর লক্ষ্যে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মাঠে নামছে টাইগাররা। টসে জিতে সফরকারীদের ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানিয়েছে স্বাগতিক দল। 

বাংলাদেশ একাদশ
তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), এনামুল হক বিজয়, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, হাসান মাহমুদ, ইবাদত হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান।

জিম্বাবুয়ে একাদশ
টি মারুমানি, টি কাইতানো, ওয়েসলে মাধেভেরে, সিকান্দার রাজা , সি মাদান্তে, টনি মুনইয়োঙ্গা, ব্র্যাড ইভানস, টনাকা চিভাঙ্গা, ভিক্টর এনইয়াউচি ও রিচার্ড এনগারাভা। 
 

পাঠকের মতামত

এদের কোন লজ্জা নাই। শেষ উইকেটেও জিম্বাবুয়ে ৬৭ রানের পার্টনারশিপ করেছে যা এখনও চলমান। এই খেলায় বাংলাদেশ হারলেও অবাক হবার কিছুই থাকবে না। এরা আসলে এই লেভেলের ক্রিকেট খেলার যোগ্যই না।

Khaled
১০ আগস্ট ২০২২, বুধবার, ৬:৫৫ পূর্বাহ্ন

খেলা থেকে আরও পড়ুন

খেলা থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status