ঢাকা, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, শুক্রবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

খেলা

‘ইনজুরির মিছিল’ দল ঘোষণায় বিলম্ব

স্পোর্টস রিপোর্টার
৯ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার

নুরুল হাসান সোহান, লিটন কুমার দাস, মোস্তাফিজুর রহমান, ইয়াসির আলী রাব্বি, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনসহ বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার ইনজুরির শিকার। তাই আসন্ন এশিয়া কাপে দল ঘোষণার নির্ধারিত দিন পার হয়ে গেলেও সময় নিচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এ বিষয়ে ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘এশিয়া কাপের জন্য সময় নিয়েছি আমরা। ইনজুরি লিস্টটা অনেক লম্বা। সাইফুদ্দিন এখনো ইনজুরিতে, সে কাজ করছে, রাব্বিও ইনজুরড। মোস্তাফিজের ব্যথা আছে। সো ফাইনালি আমরা একটা কনফার্ম লিস্ট দিতে চাচ্ছি, যেখানে ইনজুরি কনসার্ন থাকবে না। এরপর বিশ্বকাপ আছে। তাই আমরা চিন্তা করছি যে লিস্টটা দেবো, সেটা যেন আমরা এশিয়া কাপ থেকে কন্টিনিউ করতে পারি। আজকে সাইফ কাজ করছে, আমরা ফিজের সঙ্গে বসেছিলাম, তার আপডেট নিয়েছি, রাব্বির আপডেট নিয়েছি।

বিজ্ঞাপন
এদিকে লিটনের আপডেট দেশে এলে কথা বলবো। এজন্য আমরা চিন্তা করছি যে লিস্টটা বানাবো, সেখানে যেন কোনো ইনজুরি কনসার্ন না থাকে।’ যেহেতু ইনজুরির মিছিল তাই জাতীয় দল থেকে বাদ পড়া সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমানকে বিবেচনায় নেয়া হবে কিনা তা নিয়ে রয়েছে নানা প্রশ্ন। তবে জালাল ইউনুস বলেছেন দু’জনই নির্বাচকদের রাডারে আছেন। প্রয়োজন হলে দলে নেয়া হবে। তিনি বলেন, ‘এই ব্যাপারটা তো সিলেক্টরদের। তাদের মাথায় অনেক চিন্তা-ভাবনাই আছে। যেহেতু এখন চোট সমস্যা আছে, সাপোর্ট প্লেয়ারও লাগবে। সাপোর্ট প্লেয়ারে আপনি যাদের নাম বললেন, হয়তো তাদের নামও আছে। এই চিন্তাটা তারা করছে, আমরা একটা ব্যাকআপ রাখতে চাচ্ছি। সিলেক্টররাও চিন্তা-ভাবনা করছে, রেখেছে তাদের নাম। ক্যাপ্টেন্সি দুয়েকদিনের মধ্যে জেনে যাবেন।’ অন্যদিকে জিম্বাবুয়েতে টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে সিরিজ হারের পর ভীষণ বিব্রত বিসিবি। এমন ফলাফলের পর দলের কোচিং প্ল্যানকে এশিয়া কাপের জন্য সরাসরি দুবাই না গিয়ে বাংলাদেশে ফিরতে বলা হয়েছে। ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমরা তাদের (কোচিং স্টাফ) বলেছি এশিয়া কাপে যাওয়ার আগে ঢাকায় আসতে। সো দ্যাট আমরা একটা কমপ্রেহেনসিভ প্ল্যান করতে পারি। কারণ, খেলা আমাদের, নট অনলি এশিয়া কাপ, আমাদের ধারাবাহিক ব্যাক টু ব্যাক খেলা আছে। আমাদের খেলতে হবে, প্লেয়ারদের এভেলেবিলিটিও গুরুত্বপূর্ণ। আমরা চাইবো তারা কী প্ল্যান দেয়। আনটিল ইংল্যান্ড সিরিজ আপনারা জানেন নেক্সট ইয়ার ইংল্যান্ডও আসবে। আমরা চাই তারা যাতে আমাদের একটা প্ল্যান দেয়। তারা ১৯ তারিখ ঢাকায় পোঁছানোর কথা। আমরা হয়তো তাদের সঙ্গে ২০ তারিখ বসবো। এশিয়া কাপের জন্য আমরা ৭ দিন সময় পাচ্ছি। আমরা দুইদিন আগেই যাচ্ছি। ওদের সাপোর্ট পিরিয়ড, এরমধ্যে একদিন হয়তো রেস্ট ডে বাকি ৬ দিন আমরা অনুশীলন করবো।’ 
দলের কোচদের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ। তারাও টাইগারদের ভক্তদের সমালোচনার মুখে পড়ছে। তবে জালাল ইউনুস তাদের নিবেদনকে ছোট করে দেখতে রাজি নয়। তিনি বলেন, ‘সাপোর্ট স্টাফ যারা আছে তারা খুব ডেডিকেটেড। কিন্তু মেবি ওয়ে অফ কোচিং ইজ ডিফারেন্ট। কেউ একটু অ্যাগ্রেসিভ হয়, কেউ হয় না। হাথুরার কোচিং স্টাইলটা ছিল অ্যাগ্রেসিভ, যেটা আমাদের দরকার। কিন্তু আমাদের যারা সাপোর্ট স্টাফ আছে, হেড কোচ, ব্যাটিং কোচ, হেড কোচই মেনলি যারাই থাকুক, সে খুবই জ্ঞানী কোচ। কিন্তু সে হয়তো ওই ধরনের অ্যাগ্রেসিভ না। যেটা আমরা চাই, অ্যাগ্রেসিভ হলে প্লেয়ারকে ওই ভাবে মোটিভেট করতে পারে। যে তুমি মাঠের মধ্যে একটু অ্যাগ্রেসিভ অ্যাটিচুড থাকতে হবে। খেলাটাকে ওইভাবে নিতে হবে। এখানে হয়তো পার্থক্যটা। এখানে ওই ধরনের একজন দরকার যে নাকি ট্রান্সফর্ম করবে, স্লো খেললে সেটাকে ট্রান্সফর্ম করে অ্যাটাকিং ক্রিকেট খেলতে পারে। আমরাও ওইভাবে চাই। আশা করি দেখা যাক, আমরা এজন্য সাপোর্ট স্টাফদের সঙ্গে বসছি। তারা কী বলে দেখি। এত দিন খেলা ছিল, এখানে আমরা দুই তিনদিনের সময় পাচ্ছি, তাও তারা চলে যাওয়ার কথা ছিল দুবাইতে কিন্তু তারা আসছে, সব বিষয় নিয়ে কথা বলতে।’

 

 

খেলা থেকে আরও পড়ুন

খেলা থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status