ঢাকা, ১৮ আগস্ট ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৩ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৯ মহরম ১৪৪৪ হিঃ

অনলাইন

সরকারকে হটানো সবার দায়িত্ব হয়ে দাঁড়িয়েছে: ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার

(১ সপ্তাহ আগে) ৬ আগস্ট ২০২২, শনিবার, ৩:২৩ অপরাহ্ন

ফাইল ছবি

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বারবার বাড়ানো হচ্ছে জ্বালানি তেল, ভোজ্য তেল, গ্যাস, বিদ্যুৎ পানির মূল্য। এরা ক্ষমতায় আসার পর থেকেই মানুষের প্রতি অত্যাচার শুরু করেছে। একের পর এক মূল্যবৃদ্ধিতে জনগণ আজ দিশেহারা। এই সরকার আজ দানবে পরিনত হয়েছে। আওয়ামী লীগ সরকারকে হটানো আজ সবার জন্য দায়িত্ব হয়ে দাঁড়িয়েছে।

শনিবার দুপুরে বিএনপির নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ভোলা জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মো. নুরে আলম হত্যার প্রতিবাদে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ আয়োজিত ছাত্র সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।  

বিএনপি মহাসচিব বলেন, দেশের মানুষের গণদাবি নিয়ে বিএনপি যখন গণ-আন্দোলনের ডাক দিয়েছে তখন এই ফ্যাসিস্ট সরকার তাদের পেটুয়া পুলিশবাহিনী গুলি করে হত্যা করলো আব্দুর রহিম ও নুরে আলমকে। এটা কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়, পরিকল্পিত হত্যাকান্ড।

তিনি বলেন, এই সরকার টিকে আছে ভয়ভীতি, হত্যা ও দমন-পীড়ন করে। রহিম ও আলমের আত্মত্যাগ চলমান সংগ্রাম ও গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার গণআন্দোলন আরো বেগবান করবে।

ফখরুল বলেন, এই সরকার আমাদের সহস্রাধিক নেতাকর্মীকে হত্যা করেছে। ৩৫ লক্ষ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা বানোয়াট মামলা দিয়ে হয়রানি করেছে। দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী, গণতন্ত্রের মা বেগম খালেদা জিয়াকে অন্তরীণ রেখেছে।

বিজ্ঞাপন
আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে মিথ্যা মামলা দিয়ে দেশান্তরি করে রেখেছে।

তারা (সরকার) যে দুর্নীতি করছে তার প্রমাণ মধ্যরাতে জ্বালানি তেলের দাম আকাশচুম্বী বাড়িয়ে দেয়া। বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বললেন-সহনীয়ভাবে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধি করা হবে, অথচ কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে ৫০ শতাংশ মূল্য বৃদ্ধি করা হলো। এই বৃদ্ধি জনজীবনে মারাত্মক প্রভাব ফেলবে। পরিবহন, নিত্যপন্যসহ সর্বক্ষেত্রে অস্থিরতা সৃষ্টি হবে। মাঝখানে ক্ষতিগ্রস্ত হবে সাধারণ মানুষ।

ফখরুল বলেন, সরকার সরানোর আন্দোলনের কথা বললেই তারা (সরকার) ষড়যন্ত্রের কথা বলেন। আমরা ষড়যন্ত্রে বিশ্বাস করি না। যে অধিকার ও গণতন্ত্রের জন্য ৭১-এর মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিলো আমরা সে স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে চাই।

বিএনপি মহাসচিব দেশের সকল রাজনৈতিক দলগুলোকে এক হবার আহবান জানিয়ে বলেন, আর সময় নেই। আসুন একসাথে রাজপথে নামি। জনগণ আজ জেগে ওঠেছে। ঐক্যবদ্ধ গণআন্দোলন মাধ্যমেই এ সরকারের পতন ঘটাতে হবে। 

সংগঠনের সভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েলের সঞ্চালনায় সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়সহ বিএনপির শীর্ষনেতারা বক্তব্য রাখেন।
 

পাঠকের মতামত

বাংলাদেশের মানুষের দূর্ভাগ্য অযোগ্য লোককে বিএনপির নেতা বানানো হয়েছে। আমাদের দেশে খাম্বা নেতা এখন অচল।

সবুর হোসেন
৬ আগস্ট ২০২২, শনিবার, ৩:১১ পূর্বাহ্ন

দিকে দিকে আজ শোনা যায়, দলীয় নয়, তত্বাবধায়ক সরকার। ইভিএম নয়, ব্যালট পেপার। তাবেদার নয়, সৎ নির্বাচন কমিশনার। ২০১৩ সালে বিনা ভোটের। ২০১৮ সালে নিশিরাতের। আর ২০২৩ সালের খায়েশ, ইভিএমের সরকার।

Mortuza Huq
৬ আগস্ট ২০২২, শনিবার, ৩:০৮ পূর্বাহ্ন

ঘরের ভিতরে বসে বড় বড় কথা না বলে রাস্তায় নামেন । মানুষকে ডাক দেন। মানুষ তেতে আছে, দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে।‌‌ ঠিক মতো ডাক দিতে পারলে সরকারের খবর আছে।

Mahmud
৬ আগস্ট ২০২২, শনিবার, ৩:০১ পূর্বাহ্ন

মানুষ শিয়ালের কবল থেকে মুক্ত হয়ে কুমিরের কাছে যেতে চায় না। বাংলার মানুষ বিএনপির অপশাসন দেখেছে।

ফাহমিদা
৬ আগস্ট ২০২২, শনিবার, ২:৫৮ পূর্বাহ্ন

জ্বী দাদা সব দায়িত্ব জনগনের আর আপনার দায়ীত্ব রোদ্রে না পূড়ে, বৃষ্টিতে না ভিজে, পুলিশের মার না খেয়ে এসি রুমে বসে বিরাট কস্ট করে বিবৃতি দেয়া !!

ক্ষুদিরাম
৬ আগস্ট ২০২২, শনিবার, ২:৪৩ পূর্বাহ্ন

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

অনলাইন থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status