ঢাকা, ২৩ জুলাই ২০২৪, মঙ্গলবার, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

খেলা

তবুও লিটনের পক্ষে সাফাই গাইলেন শান্ত

স্পোর্টস ডেস্ক
২২ জুন ২০২৪, শনিবারmzamin

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে যেন সম্মানজনক হারের মানসিকতা নিয়েই মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ। ব্যাটিং সহায়ক পিচে টেস্ট মেজাজের ব্যাটিং শুরু করেন লিটন দাস। ২৫ বলে ১৬ রান করে দলকে চাপের মুখে ফেলে আউট হন তিনি। 
প্রথম ৯ বলে তো রানের খাতাই খুলতে পারেননি লিটন, ১০ম বলে গিয়ে প্রথম রানের দেখা পান। অ্যান্টিগার ব্যাটিং সহায়ক পিচে টেস্ট মেজাজের ব্যাটিংয়ে ২৫ বলে ১৬ রান করে আউট হন তিনি। ওখানেই ম্যাচের শেষ লেখা হয়ে যায়। টেনেটুনে স্কোর বোর্ডে ১৪০ রান জমা করে বাংলাদেশ। এই উইকেটে যা মোটেও লড়াইয়ের জন্য যথেষ্ট নয়।
এমন ব্যাটিংয়ের পরেও অধিনায়কের সমর্থন লিটনের প্রতি। পাওয়ার প্লে শেষ করে আসায় লিটনের ব্যাটিংয়ে কতটা খুশি সে কথা শোনালেন নাজমুল হোসেন শান্ত। শান্ত বলেন, ‘শুরুর দিকে একটু দেখে খেলারই পরিকল্পনা ছিল। আগের ম্যাচগুলোতেও ওরকম ভালো শুরু পাচ্ছিলাম না।

বিজ্ঞাপন
৬ ওভার কীভাবে উইকেট হাতে রেখে শেষ করতে পারি এই পরিকল্পনা ছিল। আমাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী শেষ করতে পেরেছি। আরেকটু ভালো হতে পারত, তবে আমরা খুশি ছিলাম।’
লিটনের পাশে দাঁড়াতে উইকেটকে ঢাল বানালেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। শান্ত বলেন, ‘সাথে এটাও বলব শুরুর দিকে উইকেট স্লো ছিল। খুব যে বল ব্যাটে আসছিল তা না। তবে সেট ব্যাটার থাকা খুব জরুরী ছিল।’
টপঅর্ডার বিশেষ করে প্রথম ৩ জন রান করতে পারছে না তার উত্তর জানা নেই অধিনায়কের। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শান্ত বলেন, ‘কেন পারছে না এটা তো বলা মুশকিল। আমার কাছে মনে হয় সবার সামর্থ্য আছে। সবাই অতীতে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন জায়গায় করে দেখিয়েছে। কেন হচ্ছে না এই প্রশ্নের উত্তর আমার কাছেও নেই। সবাইকে যার যার স্বাভাবিক খেলা খেলার স্বাধীনতাও দেওয়া আছে। কিন্তু কোনোভাবেই হচ্ছে না। ’
সামনের ম্যাচ দুটি নিয়ে নাজমুল বলেছেন, ‘দুটি ম্যাচ আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। সেখান থেকে আমাদের অনেক কিছু পাওয়ার আছে। দুটি ম্যাচই জিতলে পারলে আমরা আরও ভালো অবস্থানে যাব। অবশ্যই প্রত্যেক ম্যাচই আমরা জেতার জন্য খেলব। দলের কাছে আমার চাওয়া, সবাই যেন স্বাধীনভাবে খেলে। কিন্তু এখন যেভাবে ব্যাট করছি, তা আবার করলে জয় পাওয়া খুব কঠিন।
এমন পিচে আরও বেশি রান করতে না পারার আক্ষেপ ঝরেছে নাজমুলের কণ্ঠে, ‘এখানকার কন্ডিশন একেবারেই আলাদা। আগের ম্যাচে (নেপালের বিপক্ষে) বল ঘুরেছে। কিন্তু আজকের উইকেট ফ্ল্যাট ছিল। ব্যাটিংয়ের জন্য বেশ ভালো ছিল। আমরা আগের চেয়ে ভালো ব্যাটিং করেছি ঠিকই। তবে আমাদের ১৬০ থেকে ১৭০ রান করা উচিত ছিল।’
বাংলাদেশের ব্যাটিং নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার এক সাংবাদিকের প্রশ্নে অধিনায়ক বলেন, ‘খেলোয়াড় হিসেবে আমাদের সব ধরনের উইকেটেই মানিয়ে নিতে হবে। উইকেট বেশ ভালো ছিল। কিন্তু আমরা পরিকল্পনামাফিক খেলতে পারিনি। বিশেষ করে নতুন বলে পাওয়ারপ্লেতে ভালো করতে পারিনি। শেষ ৫-৬ ওভারে ফিনিশিংও ভালো হয়নি। এ সময় আমরা অনেক উইকেট হারিয়েছি। শেষটা ভালো করতে পারলে ১৬০ থেকে ১৭০ রান হতে পারত।’
রিশাদ হোসেনকে চারে নামানো প্রসঙ্গে টাইগার ক্যাপ্টেন বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ার মতো দলের বিপক্ষে আমাদের ঝুঁকি নিতেই হতো। আজ যেমন রিশাদ চারে নেমেছে। কারণ, তখন জাম্পা বোলিং করছিল। আমরা জানি, রিশাদ স্পিন খুব ভালো খেলে; কিন্তু আজ পারেনি। এটা হতেই পারে। তবে আজ আমরা ভিন্ন কিছু চেষ্টা করেছি।’
 

খেলা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

খেলা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status