ঢাকা, ২৩ জুলাই ২০২৪, মঙ্গলবার, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

খেলা

সবচেয়ে বেশিবার হ্যাটট্রিকের অংশ মাহমুদউল্লাহ

স্পোর্টস ডেস্ক
২২ জুন ২০২৪, শনিবারmzamin

ক্রিকেটের তিন সংস্করণ মিলিয়ে ছয়বার হ্যাটট্রিকের অংশ হলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বিশ্ব ক্রিকেটে আর কোনো ব্যাটসম্যানের এমন দুর্ভাগ্যের নজির নেই। অবশ্য রেকর্ডটি আগেই গড়া হয়ে গিয়েছিল তার। তিন সংস্করণ মিলিয়ে আর কোনো ব্যাটসম্যান তিনবারের বেশি হ্যাটট্রিকের অংশ হননি। গতকাল বাংলাদেশের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেন অস্ট্রেলিয়ার পেসার প্যাট কামিন্স। ১৮তম ওভারের শেষ দুই বল ও ২০তম ওভারের প্রথম বলে উইকেট নেন কামিন্স, যা এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথম হ্যাটট্রিক। কামিন্সের টানা তিন বলে উইকেট নেওয়ার পথে প্রথম শিকার মাহমুদউল্লাহ। ১৮তম ওভারের পঞ্চম বলে কামিন্সের অফ স্টাম্পের বাইরের খাটো লেংথের ডেলিভারি পুল করতে গিয়ে বল স্টাম্পে টেনে নেন মাহমুদউল্লাহ। কামিন্সের পরের দুই বলে মেহেদী হাসান ও তাওহিদ হৃদয় আউট হন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এ নিয়ে ষষ্ঠবার হ্যাটট্রিকের অংশ হলেন মাহমুদউল্লাহ।

বিজ্ঞাপন
আর কোনো ব্যাটসম্যানকেই এমন দুর্ভাগ্যের মুখোমুখি হতে হয়নি। মাহমুদউল্লাহ হ্যাটট্রিকের অংশ হলেন টি-টোয়েন্টিতে তিনবার, ওয়ানডেতে দুবার ও টেস্টে একবার। মাহমুদউল্লাহর এই দুর্ভাগ্যের শুরু ২০১৫ সালে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে। সে ম্যাচে হ্যাটট্রিক করা অভিষিক্ত প্রোটিয়া পেসার কাগিসো রাবাদার টানা তৃতীয় শিকার ছিলেন তিনি। চতুর্থ ওভারের চতুর্থ বলে তামিম ইকবাল ও পঞ্চম বলে লিটন দাসকে আউট করার পর শেষ বলে মাহমুদউল্লাহকে এলবিডব্লির ফাঁদে ফেলেন রাবাদা। তিন বছর পর ২০১৮ সালে শেরেবাংলা স্টেডিয়ামেই ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আবারও হ্যাটট্রিকের অংশ হন মাহমুদউল্লাহ। লঙ্কান পেসার দিলশান মাদুশঙ্কার তুলে নেওয়া হ্যাটট্রিকে শেষ উইকেটটি ছিলেন তিনি। ৪০তম ওভারের শেষ দুই বলে মাশরাফি বিন মর্তুজা ও রুবেল হোসেনকে তুলে নেওয়ার পর ৪২তম ওভারের প্রথম বলে মাহমুদউল্লাহকে ক্যাচ আউট করেন মাদুশঙ্কা। ওয়ানডেতে দুবার হ্যাটট্রিকের অংশ হওয়ার পর টেস্টে একই দুর্ভাগ্যের শিকার হন মাহমুদউল্লাহ। ২০২০ সালে রাওয়ালপিন্ডি টেস্টে বাংলাদেশের বিপক্ষে পাকিস্তানি পেসার নাসিম শাহর হ্যাটট্রিকে শেষ উইকেটটি ছিলেন মাহমুদউল্লাহ। স্লিপে ক্যাচ দিয়ে আউট হন। ওয়ানডে ও টেস্টে তিনবার হ্যাটট্রিকের অংশ হওয়ার পথে প্রতিবারই শেষ উইকেট ছিলেন মাহমুদউল্লাহ। টি-টোয়েন্টিতে হ্যাটট্রিকের অংশ হওয়ার শুরুতে অবশ্য তার উল্টো অভিজ্ঞতা হয়েছে। ২০২১ সালে শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজে তৃতীয় ম্যাচে ইনিংসের শেষ ওভারে হ্যাটট্রিক করেন অস্ট্রেলিয়ার পেসার নাথান এলিস। এর মধ্যে প্রথম উইকেটটি ছিল মাহমুদউল্লাহর। তিনি বোল্ড হন। এ বছর একই সংস্করণে দুবার হ্যাটট্রিকের অংশ হলেন মাহমুদউল্লাহ। গত মার্চে সিলেটে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেন শ্রীলঙ্কার পেসার নুয়ান তুষারা। এবার অবশ্য আগের ধারাতেই ফিরতে হয় মাহমুদউল্লাহকে। চতুর্থ ওভারের দ্বিতীয় বলে নাজমুল হোসেন, তৃতীয় বলে তাওহিদ হৃদয়কে তুলে নেওয়ার পর চতুর্থ বলে মাহমুদউল্লাহকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন তুষারা।

 

খেলা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

খেলা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status