ঢাকা, ১৩ জুলাই ২০২৪, শনিবার, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

অনলাইন

ভারতে এসে ৩০০ টাকার গয়না ৬ কোটি দিয়ে কিনে দিশেহারা মার্কিন নারী

মানবজমিন ডিজিটাল

(১ মাস আগে) ১২ জুন ২০২৪, বুধবার, ১১:২৩ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৯:৫৮ পূর্বাহ্ন

mzamin

২ বছর আগে ভারতে এসে রাজস্থানের এক ব্যবসায়ীর থেকে গয়না কিনেছিলেন মার্কিন মুলুকের বাসিন্দা চেরিস নরতেজ। ওই ব্যবসায়ী তাকে হলমার্ক সার্টিফিকেটও দিয়েছিল। মোট ৬ কোটি টাকার গয়না মার্কিন মুলুকে নিয়ে গিয়েছিলেন চেরিস। এতদিন ধরে সব ঠিক ছিল। চেরিসকে মাথায় হাত তখন দিতে হল যখন তিনি এই গয়নাগুলি নিয়ে একটি এক্সিবিশন করলেন। জানা গেল, একটিও গয়না আসল নয়, বরং এর মার্কেট ভ্যালু মেরেকেটে ৩০০ টাকা হবে! তারপরই চেরিস সোজা উড়ে এসেছেন ভারতে। ভারতের মাটিতে পা দিয়েই চেরিস চলে যান জয়পুরের ওই সোনার দোকানে। যদিও দোকানের মালিক গৌরব সোনি কোনও অভিযোগই মানতে চায়নি। প্রতারিত ওই মার্কিন নারী সাহায্য চেয়েছেন স্থানীয় পুলিশের কাছে, এমনকি মার্কিন দূতাবাসেও। রাজস্থানের পুলিশ জানাচ্ছে, যে দোকানের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে সেটি বাবা আর ছেলে মিলে চালান।

বিজ্ঞাপন
অভিযোগ পেয়ে দোকানে গেলে অবশ্য তাদের কাউকেই খুঁজে পাওয়া যায়নি। এমনকি বাড়িতেও নেই তারা। পুলিশের অনুমান দুজনেই পালিয়ে গেছে।

 ২০২২ সালে ইনস্টাগ্রামে তার সঙ্গে আলাপ হয়েছিল জোহরি বাজারের গয়না ব্যবসায়ী গৌরব সোনির। গৌরব ও তার বাবা রাজেন্দ্র সোনি কৃত্রিম গয়নার ব্যবসা করেন। রুপোর তৈরি গয়নার উপর সোনার পালিশ করে বিক্রি করেন। কিন্তু, তা বুঝতে পারেননি চেরিস। গত দুই বছর ধরে একের পর এক কৃত্রিম অলঙ্কার কিনেছেন, দাম দিয়েছেন আসল সোনার গয়নার। এই ভাবে সোনিদের তিনি প্রায় ৬ কোটি টাকা দিয়েছিলেন।  হয়ত আরও বহু টাকা বেরিয়ে যেত তার। কিন্তু, চলতি বছরের এপ্রিলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি প্রদর্শনীই তাকে আরও ক্ষতির হাত থেকে বাঁচিয়ে দিয়েছে। 

বর্তমানে পলাতক গৌরবের স্ত্রী রজনীও। স্ত্রীর ব্যাংক অ্যাকাউন্টে এই প্রতারণার অর্থের একটা বড় অংশ স্থানান্তর করেছেন তিনি। জয়পুর পুলিশের এক পদস্থ আধিকারিক জানিয়েছেন, “ওই দুই ব্যক্তিকে খুঁজে বের করতে বিশেষ এক দল গঠন করা হয়েছে।” 

ইতিমধ্যে, নন্দ কিশোর নামে এক ব্যক্তিকে এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার করা হয়েছে। আর এই ঘটনায় বদনাম হচ্ছে ভারতের।

সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

পাঠকের মতামত

This is real face of.....In dia. Next time go to eat Dillika Ladoo.

Nabin Narayan
২ জুলাই ২০২৪, মঙ্গলবার, ৯:৪১ অপরাহ্ন

stupid woman .... moreover, she did exhibition .......hahahahahahahaha

Arifur Rahman
২২ জুন ২০২৪, শনিবার, ৯:১৪ পূর্বাহ্ন

This is Narandra Modis India. Don't believed Indian People.

AMIR HOSSAIN
১৯ জুন ২০২৪, বুধবার, ৪:৫৩ অপরাহ্ন

This is India

Salahuddin Ahmed
১৩ জুন ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ৫:৪০ অপরাহ্ন

মেরা ভারত মহান ......................

অনিচ্ছুক
১৩ জুন ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ২:৫০ অপরাহ্ন

Indians especially businessmen are frauds.

Tanweir
১২ জুন ২০২৪, বুধবার, ৬:০৬ অপরাহ্ন

ওরা সবসময় সব দেশের নাগরিকদের সাথেই প্রতারনা করে আছসে ।

মো: আরিফুল ইসলাম
১২ জুন ২০২৪, বুধবার, ৩:৪৮ অপরাহ্ন

This is Indians real face.

Sameer
১২ জুন ২০২৪, বুধবার, ৩:০৪ অপরাহ্ন

এই প্রতারক দেশ বিশ্বে কৃত্রিম হীরা উৎপাদনে নাকি শীর্ষে। তাহ‌লে অলংকার প্রতারণায় ও শীর্ষে হবে এটা নিশ্চিত! !

আন্ত
১২ জুন ২০২৪, বুধবার, ৩:০৩ অপরাহ্ন

হিন্দি সিনেমার জন্য একটি নতুন ষ্টোরি পাওয়া গেল।

Andalib
১২ জুন ২০২৪, বুধবার, ১:৩৮ অপরাহ্ন

প্রতারক প্রতারকই তা যে দেশেরই হোক! এরা নিজ মাতৃভূমির সাথে গাদ্দারি করে, দেশের বদনাম করে, কঠিন বিচার করা হোক! অর্জিত সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা উচিত।

Sakhawat
১২ জুন ২০২৪, বুধবার, ১:২৩ অপরাহ্ন

iha mere india

sunsin
১২ জুন ২০২৪, বুধবার, ১:০৭ অপরাহ্ন

now bolllllywood will make a new film named innocent Indians are attacked by American hackers.

Mohammed Ibrahim
১২ জুন ২০২৪, বুধবার, ১২:৩৬ অপরাহ্ন

ওটা মোদির দেশ।

A R Sarker
১২ জুন ২০২৪, বুধবার, ১২:১৯ অপরাহ্ন

একজন প্রতারক একটি জাতির মুখে চুলকানি লেপন করতে পারে।

Kazi
১২ জুন ২০২৪, বুধবার, ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন

ইহাকেই ভারত বলে।

বোদাই
১২ জুন ২০২৪, বুধবার, ১১:৩৩ পূর্বাহ্ন

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status