ঢাকা, ২২ মে ২০২৪, বুধবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

খেলা

‘বন্ধদুয়ার’ অনুশীলনে যা দেখতে চান হাথুরু

ইশতিয়াক পারভেজ
২৫ এপ্রিল ২০২৪, বৃহস্পতিবার
mzamin

আজ রাতেই চট্টগ্রাম যাচ্ছেন জাতীয় দলের ১৭ ক্রিকেটার। সুপার লীগের দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলা শেষ করেই রাতের বিমানে চাপবেন ক্রিকেটাররা। জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে কাল থেকে শুরু হচ্ছে জিম্বাবুয়ে সিরিজকে সামনে রেখে প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু হবে, চলবে ২৮শে এপ্রিল পর্যন্ত। এরপরই জিম্বাবুয়ে সিরিজের জন্য স্কোয়াড ঘোষণা। প্রশ্ন উঠছে এই দলটিতেই থাকবে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের স্কোয়াডের ছায়া। বলার অপেক্ষা রাখে না, জাতীয় দলের চিন্তা- চেতনাতে এখন শুধুই বিশ্বকাপ। যে কারণে তার প্রভাবতো থাকবে। প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে ঢাকায় ফিরে এসেই টিমম্যানেজমেন্ট ও নির্বাচকদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। যার মূল অংশজুড়ে ছিল বিশ্বকাপ ঘিরে তার কর্মপরিকল্পনা ও চাওয়া পাওয়া। যা শুরু হতে যাচ্ছে জিম্বাবুয়ে সিরিজ থেকেই।

বিজ্ঞাপন
হয়তো সেই কারণেই এই ক্যাম্পকে রাখা হচ্ছে বন্ধদুয়ার। কোনো সংবাদকর্মী সেখানে উপস্থিত থাকতে পারবেন না। ক্যামেরা নয় কোচিং স্টাফের চোখ থাকবে ক্রিকেটারদের দিকে। এমনটাই জানিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। প্রশ্ন  হচ্ছে- এই ‘বন্ধদুয়ার’ অনুশীলনে কী করতে চান চন্ডিকা! জিম্বাবুয়ে সিরিজের আগে বিশ্বকাপ ভাবনাতে যারা আছেন, তাদের সামর্থ্য পরখ করে নিতে চান তিনি। এ নিয়ে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক গাজী আশরাফ হোসেন লিপু জানিয়েছেন-‘আসলে দ্বিপক্ষীয় হোক আর কোনো আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট আমরা প্রস্তুতির জন্য খুব একটা সময় পাই না। একই ফরম্যাটে (টি-২০) আমাদের জিম্বাবুয়ের, যুক্তরাষ্ট্র ও বিশ্বকাপে ম্যাচ। একটা ম্যাচ সিনারিওতে অনুশীলন হবে এই ক্যাম্পে। যাদের বিশ্বকাপ খেলা বা বড় আসরের খেলার অভিজ্ঞতা কম তাদেরই বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে আমাদের অ্যাপ্রোচ কেমন হবে, কোন পরিস্থিতি কীভাবে সামাল দিতে হবে, পরিকল্পনা কী হবে, ব্যাটার ও বোলারদের ভূমিকা কী হবে- সেই বিষয়ে আমাদের প্রধান কোচ ধারণা দেবেন।’ 
মূলত এই ক্যাম্পে সুযোগ পাওয়া বেশির ভাগ ক্রিকেটারই থাকতে পারে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে। যে কারণে ক্রিকেটারদের সক্ষমতা পরীক্ষাই প্রধান কোচের মূল লক্ষ্য। শুধু তাই আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দলের রণপরিকল্পনা কী হতে পারে- সেই সম্পর্কে  কোচ তার পরিকল্পনার ধারণাও দেবেন ক্রিকেটারদের। প্রধান নির্বাচক স্পষ্ট করেই কোচের সেই পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘তিনদিন চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের সেন্টার উইকেটে অনুশীলন করবে দল। সেখানে দেখবেন তার পরিকল্পনা অনুসারে কে কতটা তার ছুড়ে দেয়া লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারছে। কোন কারণে বোলার ও ব্যাটাররা ব্যর্থ হচ্ছে- তা বের করাও হবে কোচের অন্যতম কাজ।’ প্রধান কোচের তিনদিনের এই কর্মপরিকল্পনার পরই ঘোষণা করা হবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জাতীয় দল। যেখানে সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমান শুরু থেকে দলের সঙ্গে না থাকলেও বিশ্বকাপ পরিকল্পনায় থাকা প্রায় সব ক্রিকেটারকেই রাখা হবে বলে জানা গেছে। 
২২শে এপ্রিল গভীর রাতেই ঢাকায় ফিরেছেন প্রধান কোচ হাথুরুসিংহে। পরের দিনই তিনি আলোচনায় বসেছেন নির্বাচকদের সঙ্গে। মূলত বিশ্বকাপে যে রণকৌশল তৈরি করেছেন সেখানে সেনাপতি নাজমুল হোসেন শান্তর সঙ্গে কারা থাকতে পারেন সৈনিক সেই ধারণাটাই দিয়েছেন প্রধান কোচ। পরিষ্কার করেই জানিয়ে দিয়েছেন তিনি কাদের নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে বিশ্বকাপ লড়াই করতে চান। তার মানে স্পষ্ট দল নির্বাচনে তার বড় একটি প্রভাবতো থাকছেই। সবশেষ ওয়ানডে বিশ্বকাপেও শেষ পর্যন্ত তামিম ইকবালকে বাদ দিয়ে তিনি দল নির্বাচনে তার ক্ষমতার চূড়ান্তই দেখিয়েছেন। সেবারের ব্যর্থতার পর অবশ্য তিনি খুব বেশি সময় পাননি বলে যে অযুহাদ  দেখিয়েছিলেন তার এবার সুযোগ নেই। এই আসরের পরই তার সঙ্গে শেষ হবে বিসিবি’র চুক্তি। নতুন করে তা নবায়ন হবে কিনা তা নির্ভর করে আসরের দলের সাফল্য ও ব্যর্থতার উপর। একটি সূত্রে জানা গেছে- ‘আসলে কোচ আলোচনাতে বিশ্বকাপ নিয়ে তার পরিকল্পনাটা জানিয়েছেন। ওয়ানডে বিশ্বকাপের আগে তিনি দল সাজানোর খুব বেশি সময় পাননি। তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ তার জন্য চ্যালেঞ্জ। হয়তো সে কারণেই যে দল নিয়ে তিনি যুক্তরাষ্ট্র যাবেন সেখানে যতটা সম্ভব নিজের পরিকল্পনা অনুসারেই ক্রিকেটারদের রাখতে চান।’

খেলা থেকে আরও পড়ুন

   

খেলা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status