ঢাকা, ১৮ মে ২০২৪, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

ভারত

'কোনও ব্যক্তির সম্পত্তি সংক্রান্ত সব কিছু জানার অধিকার নেই ভোটারদের'

মানবজমিন ডিজিটাল

(১ মাস আগে) ১০ এপ্রিল ২০২৪, বুধবার, ১১:১২ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৯:২৬ পূর্বাহ্ন

mzamin

ভারতের সুপ্রিম কোর্ট ভবন

লোকসভা নির্বাচনের আগে প্রার্থীর সম্পত্তি সংক্রান্ত মামলা উঠেছিল সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অনিরুদ্ধ বোস এবং সঞ্জয় কুমারের সাংবিধানিক বেঞ্চে। মামলার রায়ে বিচারপতিরা জানিয়ে দিলেন, মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় একজন প্রার্থীর স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির হিসাব দেয়া নিয়ম। তাই বলে প্রার্থীর প্রতিটি অস্থাবর সম্পত্তির হিসাব দিতে হবে, এমনটাও নয়। ২০১৯ সালে ভোটে দাঁড়ানো অরুণাচলের এক নির্দল প্রার্থী কারিখো ক্রি-র সম্পত্তি গোপন সংক্রান্ত মামলায় এমন মন্তব্য করেছে সুপ্রিম কোর্ট। তার বিরুদ্ধে কংগ্রেস অভিযোগ করেছিল, তিনি মনোনয়ন দাখিলের সময় হলফনামায় সব সম্পত্তির উল্লেখ করেননি। তাই তার মনোনয়ন বাতিল করা হোক। সেই আর্জির প্রেক্ষিতেই সেই সময়ে গুয়াহাটি হাইকোর্ট কারিখোর নির্বাচনে লড়াইকে বাতিল বলে ঘোষণা করে। সুপ্রিম কোর্ট সেই রায় খারিজ করে দিয়েছে মঙ্গলবার।  গুয়াহাটি হাইকোর্ট অভিযুক্তের বিরুদ্ধে রায় দিয়েছিল। এদিন ওই নির্দেশ খারিজ করে শীর্ষ আদালতের দুই বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চের পর্যবেক্ষণ, কোনও প্রার্থীর জীবন যাপনে কুরুচিকর বিলাস দেখা গেলে তবেই সমস্ত সম্পত্তির হিসাব দেয়ার প্রশ্ন উঠতে পারে।

বিজ্ঞাপন
অন্যথায় একজন প্রার্থীকে সব অস্থাবর সম্পত্তির হিসাব দিতে হবে না। প্রার্থীর একেবারে নিজস্ব সম্পত্তি সম্পর্কে তথ্য দিলেই হবে। আসলে কারিখো ক্রি-র সম্পত্তি মামলায় মামলাকারী অভিযোগ করেছিলেন, কারিখো ক্রি তার স্ত্রী ও ছেলের মালিকানাধীন তিনটি গাড়ির কথা উল্লেখ করেননি হলফনামায়। এর থেকে প্রমাণ হয় তিনি নিজের সম্পত্তি সম্পর্কে তথ্য লুকিয়ে গেছেন। শীর্ষ আদালতের বক্তব্য, জনপ্রতিনিধিত্ব আইন ১৯৫১-এর ধারা ১২৩(২) অনুযায়ী গাড়ির তথ্য প্রকাশ না করাকে একটি দুর্নীতিগ্রস্ত অভ্যাস বলে ধরে নেওয়া যায় না। আসলে রাজনীতিবিদদের সম্পদ সাধারণত কখনোই সংবাদ মাধ্যম  থেকে দূরে থাকে না, ঘন ঘন জল্পনা এবং বিক্ষিপ্তভাবে খবর  প্রকাশের কারণে প্রতিনিয়ত  বিতর্কের জন্ম দেয়। কিন্তু যখনই একটি নির্বাচন ঘনিয়ে আসে, নেতাদের নেট মূল্য একটি বিষয় হয়ে ওঠে যা জাতীয় সংবাদের শিরোনামে  থাকে।

সূত্র : ইকোনোমিক টাইমস

পাঠকের মতামত

কে কইছে? হে জনগণের টাকা চুরি করে সম্পত্তি করেছে নাকি বৈধ উপায়ে করেছে- জনগণের জানতে হবে।

রাশিদ
১০ এপ্রিল ২০২৪, বুধবার, ১২:১৬ অপরাহ্ন

ভারত থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

ভারত সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status