ঢাকা, ২৫ মে ২০২৪, শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

প্রথম পাতা

যে কারণে তৃণমূল বিএনপিতে ভিড়ছেন তৈমূর

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ থেকে
১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩, মঙ্গলবার
mzamin

আবারো আলোচনায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক উপদেষ্টা পরিষদের সাবেক সদস্য ও জেলা বিএনপি’র সাবেক আহ্বায়ক এডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার। এরআগে তিনি নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দুইবার মেয়র প্রার্থী হয়ে আলোচনায় এসেছিলেন। এবার তিনি নতুন রাজনৈতিক দল তৃণমূল বিএনপিতে যোগ দিচ্ছেন। নিজেই মানবজমিনের কাছে বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, আমার তো একটা প্ল্যাটফর্ম লাগবে। বিএনপি আমাকে বহিষ্কার করেছে। আওয়ামী লীগ সুপ্রীম কোর্টে আমার গাড়ি ভাঙচুর করে। আমার তো একটা জায়গা দরকার। রাজপথে ছিলাম রাজপথে থাকতে চাই। মানুষের পক্ষে কথা বলতে চাই।

বিজ্ঞাপন
টক শো করি। আমি তো আর সরকারের পক্ষে কথা বলবো না। সরকারের বিপক্ষে বলি। তখন আওয়ামী লীগের লোকেরা বলে আপনি তো বিএনপির পক্ষে কথা বলার অধিকার রাখেন না। তাহলে তো আমার কথা বলার জন্য একটা প্ল্যাটফর্ম দরকার, নাকি? এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি যাবো কোথায়? আমি তো জনগণের জন্য রাজনীতি করি। জনগণের জন্য কথা বলতে হলে তো আমাকে একটা অবস্থান নিতে হবে। তাই তৃণমূল বিএনপিতে যাচ্ছি।

তৈমূর আলম খন্দকারের নতুন দলে যোগদান নিয়ে নারায়ণগঞ্জে তার ঘনিষ্ঠজনরা বলেন, বিএনপি তাকে গত দেড় বছর ধরে বহিষ্কার করে রেখেছে। তিনি তো আর দল ছাড়েননি। তিনি আওয়ামী লীগেও যাবেন না। তাহলে এখন তার পরিচয় কি? কোন ব্যানারে তিনি রাজনীতি করবেন? তার রাজনৈতিক জন্ম রাজপথে। যেহেতু বিএনপি তাকে বহিষ্কার করেছে, তাকে এখন তৃণমূল বিএনপিকে আঁকড়ে ধরে থাকতে হবে। তিনি সেখানেই যাচ্ছেন। তৃণমূল বিএনপির শীর্ষ পদে থাকবেন বলে আমরা আশা করি।
এদিকে জাতীয় নির্বাচনের সন্নিকটে আকস্মিকভাবে তৈমূর আলম খন্দকারের তৃণমূল বিএনপিতে যোগদানের খবরে রাজনৈতিক অঙ্গনে নানা আলোচনা ডালপালা ছড়াচ্ছে। যদিও তৈমূর আলম খন্দকার দাবি করেছেন, তিনি একা নন। বিএনপিতে কোনঠাসা হয়ে পড়ে অনেকেই তৃণমূল বিএনপিতে যোগ দিবে। বিএনপি’র সাবেক নেতা শমসের মবিন চৌধুরীর সঙ্গে তার কথা হয়েছে, তিনিও তাদের সঙ্গে থাকছেন। তৃণমূল বিএনপিতে যোগ দেয়ার জন্য বিএনপি’র অনেক নেতা তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন বলেও দাবি করেন তৈমূর আলম খন্দকার।

সূত্রমতে, ২০০৩ সালে তৈমুর আলমকে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক করা হয়। ২০০৭ সালে বিএনপি’র বর্তমান সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে গ্রেপ্তার করা হলে প্রথমবারের মতো তার পক্ষে আইনজীবী হিসেবে আইনি লড়াই চালিয়ে যান তৈমূর। পরে ওই বছরের ১৮ই এপ্রিল যৌথবাহিনী তাকে গ্রেপ্তার করে। তার বিরুদ্ধে ৮টি মামলা দেয়া হয়। যার মধ্যে একটি মামলায় ১২ বছরের জেল হয় তৈমুরের। ২০০৯ সালের মে মাসে মুক্তি পান তৈমূর। ওই বছরের জুন মাসে তৈমূরকে আহ্বায়ক করে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি’র কমিটি গঠন করা হয়। বছরের শেষের দিকে ২৫শে নভেম্বর সম্মেলনের মাধ্যমে তৈমূর আলম জেলা বিএনপি’র সভাপতি নির্বাচিত হন। একইসঙ্গে তাকে কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা ১৮ দলীয় ঐক্য জোটের আহ্বায়ক করা হয়। এরপর ২০১১ সালের ৩০শে অক্টোবর অনুষ্ঠিত নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি’র দলীয় মেয়র প্রার্থী হয়েছিলেন তৈমূর। বিএনপি প্রথমদিকে তাকে সমর্থন দিলেও ভোটের মাত্র ৭ ঘণ্টা আগে দলীয় চেয়ারপারসনের নির্দেশে তিনি নির্বাচন থেকে সরে আসেন। ওই সময় তৈমূর আলম মন্তব্য করেন তাকে গোসল ছাড়া বিএনপি কোরবানি করে দিয়েছে। পরে তৈমূরকে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি থেকে সরিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা করা হয়। এতে করে তৈমূরের শূন্যতায় জেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক তৎপরতায় ভাটা পড়ে। পরবর্তীতে জেলা বিএনপি’র গতি ফেরাতে ২০২০ সালের ৩১শে ডিসেম্বর তৈমূর আলমকে আহ্বায়ক করে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি’র ৪১ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটির ঘোষণা দেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আললমগীর। সদস্য সচিব করা হয় অধ্যাপক মামুন মাহমুদকে। এরই মধ্যে ২০২২ সালের ১৬ই জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে এডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার মেয়র প্রার্থী হন। দল তাকে প্রথমে ইঙ্গিত দিলেও পরবর্তীতে নির্বাচনে অংশ নিতে নিষেধ করে। কিন্তু এই নির্দেশনা না মেনেই তৈমূর নির্বাচনী মাঠে থেকে যান। এ ঘটনায় দল তাকে বহিষ্কার করে। এর দেড় বছর পর নতুন রাজনৈতিক দলে নাম লেখালেন তিনি।

প্রথম পাতা থেকে আরও পড়ুন

   

প্রথম পাতা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status