ঢাকা, ২০ জুলাই ২০২৪, শনিবার, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

অনলাইন

মাহসা আমিনির মৃত্যুবার্ষিকীর আগে আটক করা হলো তাঁর বাবাকে

মানবজমিন ডিজিটাল

(১০ মাস আগে) ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, শনিবার, ৭:৪৫ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ২:১৮ অপরাহ্ন

mzamin

মাহসা আমিনির মৃত্যুবার্ষিকীতে দেশজুড়ে চলা ধর্মঘট ও বিক্ষোভের মধ্যে তার সমাধিতে সমাবেশ বন্ধ করার প্রচেষ্টায় আমিনির বাবাকে সাময়িকভাবে আটক করলো ইরানের নিরাপত্তা বাহিনী। কুর্দিস্তান হিউম্যান রাইটস নেটওয়ার্ক বলেছে যে নিরাপত্তা বাহিনী আমজাদ আমিনিকে সাময়িকভাবে আটক করার পরে এবং তার মেয়ের মৃত্যুর বার্ষিকী পালনের বিরুদ্ধে সতর্ক করার পরে তাকে ছেড়ে দিয়েছে। 

আমিনির বাবাকে গোয়েন্দা বিভাগের তরফ থেকে বলা হয়েছিল যে, আমিনির মৃত্যুবার্ষিকীর দিন পরিবারের সদস্যদের বাড়ি ছেড়ে কবরে যাওয়ার "অধিকার নেই" এবং তাদের বার্ষিকী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করা যাবে না। আইচি কবরস্থানে যাওয়ার রাস্তা অবরুদ্ধ করা হয়েছে। পরিবার জানিয়েছে তারা একটি ঐতিহ্যবাহী ধর্মীয় অনুষ্ঠান করতে চায়। 

আমিনির এক চাচা, সাফা আইলি, ৫ সেপ্টেম্বর সাকেজে আটক হন এবং হেফাজতে রয়েছেন। কুর্দি শহরগুলিতে ক্র্যাকডাউনের কেন্দ্রবিন্দু ছিল বলে মাহসা আমিনির নিজ শহর সাকেজে হেলিকপ্টারের মাধ্যমে নজরদারি চালানো হয়। বিক্ষোভকারীদের যোগাযোগ এবং জমায়েত রোধ করার জন্য সরকারের প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে ইন্টারনেট ব্যাহত হয়েছিল। তেহরানের অনেক জেলায় বিক্ষোভকারীরা "স্বৈরশাসকের মৃত্যু!", “নারী, জীবন, স্বাধীনতা!”- এর মতো স্লোগান তোলে। কেউ কেউ আবাসিক ভবনের ছাদে জড়ো হয়েছিল বা তাদের বারান্দায় দাঁড়িয়েছিল। বেশ কয়েকটি পশ্চিম কুর্দি শহরে, লোকেরা রাস্তা অবরোধ করে এবং তাদের গাড়ির হর্ন বাজিয়ে বিক্ষোভ জানায়। 

বিক্ষোভের পূর্বাভাস পেয়ে নিরাপত্তা বাহিনী ইরান জুড়ে তাদের উপস্থিতি বাড়িয়েছিল এবং ভিন্নমতাবলম্বীদের গ্রেফতার করতে থাকে। ভুলভাবে হিজাব পরার অভিযোগে আমিনিকে গ্রেফতারের পর তেহরানে পুলিশ হেফাজতে তাঁর মৃত্যুতে ইরানজুড়ে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে যা দমাতে কর্তৃপক্ষকে বেগ পেতে হয়।

বিজ্ঞাপন
হাজার হাজার নারী হিজাব পরতে অস্বীকার করেন। আমিনির মা একটি বিবৃতি জারি করে বলেছেন যে যদিও গত বছরটি দুঃখে পূর্ণ ছিল তবুও তিনি 'শোকার্ত হৃদয়ে ভালবাসা এবং সান্ত্বনার বার্তা" পাঠিয়েছেন এমন প্রত্যেককে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। 

আমিনির বাবা সর্বদা দাবি করেছেন যে তার মেয়ে পুলিশ ডিটেনশন সেন্টারে অফিসারদের আঘাতে মারা গেছে। সরকার সেকথা অস্বীকার করে জোর দিয়ে বলেছে যে আমিনি তার শরীরে পূর্ব বিদ্যমান স্নায়বিক জটিলতার কারণে মারা গেছেন। ইরানের ইতেমাদ দৈনিক আগস্টে জানিয়েছে যে আমিনির পরিবারের আইনজীবী "শাসনের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের" অভিযোগের মুখোমুখি হয়েছেন। দোষী সাব্যস্ত হলে সালেহ নিকবখতকে এক থেকে তিন বছরের জেলে যেতে হবে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং তার স্ত্রী জিল একটি বিবৃতি জারি করে বলেছেন যে আমিনির গল্প তার নির্মম মৃত্যুর সাথে শেষ হয়নি। বরং তিনি একটি ঐতিহাসিক আন্দোলনকে অনুপ্রাণিত করেছেন। অ্যামনেস্টি ইরান বলেছে: "বৈষম্যমূলক বাধ্যতামূলক হিজাব আইন বাতিল করার পরিবর্তে, ইরানি কর্তৃপক্ষ নারীদের অধিকারের উপর সর্বাত্মক হামলা চালিয়েছে। বেআইনিভাবে শত শত মানুষকে হত্যা করেছে এবং হাজার হাজার মানুষের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছে। ''অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, জার্মানি এবং যুক্তরাজ্য সহ পশ্চিমা দেশগুলির শহরে স্মারক বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। এই প্রেক্ষিতে ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি আগামী সপ্তাহে নেতাদের বক্তৃতার প্রথম পূর্ণ দিনে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে ভাষণ দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে। 

রাইসি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করার কাছাকাছি রয়েছে যা পাঁচ আমেরিকান বন্দির মুক্তির বিনিময়ে পাঁচজন ইরানি এবং দক্ষিণ কোরিয়ায় রক্ষিত ৬ বিলিয়ন ইরানি সম্পদের মুক্তি নিশ্চিত করবে। চুক্তিটি রিপাবলিকান কংগ্রেসের ক্রমবর্ধমান আক্রমণের মুখে পড়েছে যারা আশঙ্কা করছেন এটি ইরানকে জিম্মি করার জন্য ইন্ধন হিসেবে কাজ করবে।

নাগরিকদের জিম্মি করার বিষয়ে সরকারগুলি কীভাবে প্রতিক্রিয়া জানায় সে সম্পর্কে পশ্চিমা অবস্থান সুরক্ষিত করার প্রয়াসে, কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেলানি জোলি, একটি উচ্চস্তরের সংলাপ হোস্ট করবেন। সঙ্গে থাকবেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন।

সূত্র : দা গার্ডিয়ান

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status