ঢাকা, ২০ জুলাই ২০২৪, শনিবার, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

ভারত

জি-২০ রাষ্ট্রপতির নৈশভোজের মেনুতেও বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্য, কিভাবে!

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা

(১০ মাস আগে) ৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩, শনিবার, ৯:৩১ অপরাহ্ন

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এলেন পিঁয়াজ রঙা এক জামদানি শাড়ি পরে, জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদার স্ত্রী এলেন ভারতীয় শাড়ি পরে, শালোয়াড় -কামিজ পড়লেন জার্মানির চান্সেলর ওলগা, ব্রিটেন প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক যতই সুটেড বুটেড হন, তাঁর স্ত্রী, দিল্লির মেয়ে অঞ্জনা ভারতীয় পোশাকে। জি-২০তে রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর দেওয়া নৈশভোজের আসরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ব্যাকড্রপ এর নালন্দা বিশ্ববিদ্যালয় এর ছবিটি সম্পর্কে অবহিত করছিলেন সমাগত রাষ্ট্রনায়ক দের। পোশাকের বৈচিত্র এদিন ডিনারে যেমন নজর কেড়েছে, তেমনই নজর কেড়েছে মেনুর বহুমুখীনতা। ভারতের সব রাজ্যের প্রতিনিধিত্ব ছিল মেনুতে। একশো কূড়ি জন শেফ এর তত্ত্বাবধানে তৈরি হয়েছে ৫০০ নিরামিষ আইটেম আর মিষ্টি। বাজরার প্রাধান্য ছিল মেনুতে। জলখাবার হিসেবে ছিল মুম্বাই এর বড়া পাও আর দার্জিলিং চা। বাখরখানি আর পানিপুরম। মেন কোর্স এ কেরলের লাল চাল, ভেজিটেবল স্যুপ, ভেজিটেবল পাস্তা, পনির লবদর, সবুজ কোর্মা, পটেটো লিওনাইজ, কাজু মটর মায়খানা, জোয়ার তড়কা পিঁয়াজ জিরা রাইস, শশার রায়তা, বাজরার তন্দুরি রুটি, কুলচা, পরোটা যেমন ছিল তেমনই ছিল আলু কফির ডালনা, পোস্তচচড়ি, পটলের দোলমা। মিষ্টির মধ্যে ছিল বাজরার ক্ষীর, জিলিপি, কুট্টু মালপোয়া, গুলাবজামুন, কেশর পেস্তা মালাই, রসমালাই, অমৃত কলস আর লাল দই আর পয়ধি।

বিজ্ঞাপন
সব শেষে ছিল নেনারসের পান। অতিথিরা খাবার খেয়ে উচ্ছসিত হন।           

ভারত থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

ভারত সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status