ঢাকা, ১৫ জুন ২০২৪, শনিবার, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ জিলহজ্জ ১৪৪৫ হিঃ

শেষের পাতা

শাহবাগে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অবস্থান পুলিশের বাধা

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার
৫ জুন ২০২৩, সোমবার
mzamin

দু’ মুঠো ভাত আর একটু মাথা গোঁজার ঠাঁই, এই তো চাই। যাদের ন্যূনতম ভাতা তাও বাড়েনি বাজেটে। প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠী তাদের দাবি নিয়ে যেতে চেয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে। শাহবাগে পুলিশি বাধায় থেমে যায় তাদের পথচলা। ছবি: জীবন আহমেদ

মাসিক ভাতা বৃদ্ধি ও যোগ্যতা অনুসারে কাজ পাওয়ার নিশ্চয়তাসহ ১১ দফা দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা। গতকাল সকাল ১০টায় রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে এই অবস্থান কর্মসূচি শুরু হয়। দাবি বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাস পেতে বেলা ১১টার দিকে সরকারপ্রধানের কার্যালয় অভিমুখে যাত্রা শুরু করলে পুলিশি বাধার মুখে পড়েন তারা। দুপুর সোয়া ১২টার দিকে পুলিশের বাধা অতিক্রম করে কয়েকজন প্রতিবন্ধী এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাদের বাধা দেয় পুলিশ। 

এ সময় সেখানে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। দুই দফায় বাধা পাওয়ার পর তারা ফের জাতীয় জাদুঘরের সামনের সড়কে এসে অবস্থান নেন। ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জাতীয় বাজেটে প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ভাতা ন্যূনতম মাসিক ৫ হাজার টাকা এবং শিক্ষা উপবৃত্তি মাসিক ২ হাজার টাকা চান প্রতিবন্ধীরা। অবস্থান কর্মসূচিতে তারা বলেন, আমাদেরকে কথা দেয়া হয়েছিল ২০২৫ সালের মধ্যে প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ভাতা ৩ হাজার টাকা করা হবে। দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক বৃদ্ধি, আমাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা না করা, দারিদ্র্য সবমিলিয়ে এই মুহূর্তে ওই টাকায় ন্যূনতম চাহিদা মেটাতে পারি না আমরা। তারা বলেন, শিক্ষা উপবৃত্তি দেয়া হলে প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ভাতা মেলে না। অথচ উপবৃত্তি দরকার শিক্ষা সামগ্রীর ন্যূনতম খরচ মেটানোর জন্য।

বিজ্ঞাপন
তাই প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ভাতা মাসিক ৫ হাজার টাকা এবং শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে মাসিক ভাতা ৫ হাজার টাকা ও শিক্ষা উপবৃত্তি ২ হাজার টাকা দাবি করছেন তারা। 

অবস্থান কর্মসূচি থেকে সরকারি চাকরিতে নিয়োগে বিশেষ নীতিমালা (কোটা) চান প্রতিবন্ধীরা। বলেন, আমরা নিজ নিজ যোগ্যতার ভিত্তিতে সমাজে সম্পৃক্ত হতে এবং মাথা তুলে দাঁড়াতে চাই। অথচ চাকরির ক্ষেত্রে দৃষ্টি, শ্রবণ ও শারীরিক প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের নানারকম বঞ্চনার শিকার হতে হয়। ২০১৮ সালে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণিতে প্রতিবন্ধী ব্যক্তি কোটা তুলে দেয়ায় পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হয়েছে। এজন্য অনতিবিলম্বে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণিতে ন্যূনতম ৫ শতাংশ এবং তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণিতে ন্যূনতম ১০ শতাংশ কোটা নিশ্চিত করা হোক। 

নিয়োগের ক্ষেত্রে বিশেষ নীতিমালা প্রণয়ন করে সরকারি কোনো গ্রেডে বা শ্রেণিতে প্রতি বছর কতোজন প্রতিবন্ধী নারী-পুরুষ নিয়োগ দেয়া হচ্ছে তার তালিকা ৩রা ডিসেম্বর প্রতিবন্ধী ব্যক্তি দিবসে ঘোষণা করতে হবে। কর্মসূচি থেকে উত্থাপিত ১১ দফা দাবিগুলো হলো- মাসিক ভাতা পাঁচ হাজার টাকা করা; প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী ভাতা দুই হাজার টাকা করা; সরকারি চাকরিতে বিশেষ নীতিমালা; হাজার কোটি টাকার প্রতিবন্ধী উদ্যোক্তা তহবিল গঠন; প্রতিবন্ধী ব্যক্তি উন্নয়ন অধিদপ্তরকে কার্যকর করা; ইশারা ভাষা ইনস্টিটিউট ও সব সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানে দোভাষী নিশ্চিত করা; শিক্ষা ও চাকরির নিয়োগে শ্রুতিলেখক নীতিমালা; প্রবেশগম্য অবকাঠামো ও গণপরিবহন নিশ্চিতে অর্থ বরাদ্দ; রাজনৈতিক দলে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করা; মন্ত্রণালয়ভিত্তিক সংবেদনশীল বাজেট করা। অবস্থান কর্মসূচিতে পিএনএসপি, এনজিডিও, কৃষ্টি, বি-স্ক্যান, জাতীয় বধির সংস্থা, জাতীয় অন্ধ সংস্থা, এসডিএসএল, ডিডিপি-বাড্ডা, ইউবিপিইউএস-উত্তর বাড্ডা, জাগরণ প্রতিবন্ধী কল্যাণ সংস্থাসহ প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের আরও বেশ কয়েকটি সংগঠনের সদস্যরা অংশ নেন।

 

শেষের পাতা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status