ঢাকা, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ রজব ১৪৪৪ হিঃ

শেষের পাতা

রাজনীতিবিদরা রাজনীতিকে খেলায় পরিণত করেছেন

স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর থেকে
৪ ডিসেম্বর ২০২২, রবিবারmzamin

সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজনের সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেছেন, রাজনীতি একটি মহান ও জনকল্যাণমূলক পেশা হলেও রাজনীতিবিদরা এটিকে খেলায় পরিণত করেছেন। এই খেলা নিয়ে বর্তমানে যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে তা গণতান্ত্রিক পরিবেশ ও রাষ্ট্রের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়। এটি একটি নিয়ন্ত্রিত গণতন্ত্রের পূর্বাভাস বা প্রতিফলন। শনিবার বিকালে রংপুর আরডিআরএস প্রাঙ্গণে সংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে মানুষের ভোটের অধিকার, বাক-স্বাধীনতা, সংগঠন করা, প্রতিবাদ করা, মিটিং-মিছিল করার স্বাধীনতা হলো গণতান্ত্রিক অধিকার। এগুলোকে করতে না দিয়ে এখন বলা হচ্ছে খেলা হবে। এছাড়া দেশের পুলিশ চরম দলীয়করণের শিকার হয়েছে। এ কারণে বিদেশি শক্তিরা আমাদের দেশকে কর্তৃত্ববাদী রাষ্ট্র বলছে। এ থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে।     

  তিনি আরও বলেন, আমাদের বিগত দু’টি জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠানে কমিশন ব্যর্থ হয়েছে। এর একটি একতরফা নির্বাচন, অপরটি জালিয়াতির নির্বাচন হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
দেশে আরেকটি ব্যর্থ নির্বাচন হলে আমাদের জন্য তা চরম অকল্যাণ বয়ে আনবে। আমরা আশা করবো কমিশন যেন জনগণের স্বার্থে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা করে।  গাইবান্ধার নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, গাইবান্ধার উপ-নির্বাচনে নির্বাচন কমিশন ইতিহাস রচনা করেছে। এর মধ্যে প্রথম ইতিহাস হলো- ভোটকেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা স্থাপন, দ্বিতীয়ত: নির্বাচন বাতিল করা, তৃতীয় ইতিহাস হলো ভোটে অনিয়মের তদন্ত করা। কিন্তু তদন্তের পরও রাঘব-বোয়ালরা ধরা-ছোঁয়ার বাইরে থাকায় উষ্মা প্রকাশ করে তিনি বলেন, তদন্তে দুর্নীতির বিষবৃক্ষকে বাদ দিয়ে তার ডালপালা ছেঁটে দেয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে প্রতীয়মান হয় যে, ক্ষমতাধর রাঘব-বোয়ালরা অন্যায় করলেও তারা পার পেয়ে যাবেন।  

 ইভিএম প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ইভিএম একটি দুর্বল ও জালিয়াতির যন্ত্র। নির্বাচন কমিশন যে ফলাফল চায় এ যন্ত্র দিয়ে সেটি করা সম্ভব। ইভিএম দিয়ে নির্বাচনে যাচাই-বাছাই, অডিট কিংবা পুনঃগণনা করা সুযোগ নেই। ইভিএম মেশিন কেনার সময় যে সুপারিশ নেয়া হয়েছিল তার পক্ষে স্বাক্ষর করেননি তৎকালীন বুয়েটের ভিসি প্রয়াত জামিলুর রেজা চৌধুরী। এছাড়া গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৬টি আসনে ইভিএম’র মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হয়েছে। ব্যালট দিয়ে  ভোটগ্রহণ করা ২৯৪টি আসনে ভোট পড়েছে ৮১ শতাংশ। অপরদিকে ইভিএম’র মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা ৬টি আসনে ভোট পড়েছে ৫১ শতাংশ। সুতরাং যেই যন্ত্র ব্যবহার করে মানুষকে তার ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়, সেই যন্ত্র ব্যবহারে কোন যুক্তি রয়েছে- তা আমি জানি না। এটি কোনোভাবেই সুষ্ঠু নির্বাচন নিশ্চিত করবে না। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মহানগর সুজনের সভাপতি অধ্যক্ষ খন্দকার ফখরুল আনাম বেঞ্জু, সুজনের সংগঠক রাজেশ দেসহ সুজনের সদস্যরা।

শেষের পাতা থেকে আরও পড়ুন

শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status