ঢাকা, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ রজব ১৪৪৪ হিঃ

বাংলারজমিন

সিলেটে হোটেল কক্ষে যুবককে নির্যাতন, ক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে
২৬ নভেম্বর ২০২২, শনিবারmzamin

সিলেটের সুরমা মার্কেটের আবাসিক হোটেল নামক মেঘনায় ব্ল্যাকমেইল করে যুবককে ধরে নিয়ে নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে গত বৃহস্পতিবার রাতে স্থানীয় লোকজন ওই হোটেল ঘেরাও করেন। পরে বিচারের আশ্বাস দিয়ে ক্ষুব্ধ জনতাকে শান্ত করে। একসময় এর নাম ছিল হোটেল বদরুল। নগরীর শামিমাবাদ মজুমদার পাড়ার আশেক মিয়ার ছেলে জাবেদ হোসেন রাজু ও গোলাপগঞ্জের বাঘা জালালনগরের হেলাল উদ্দিনের ছেলে আবু সুফিয়ান এদিক দিয়ে যাচ্ছিলেন। তখন হোটেলটির একজন দালাল তাদের কাছে জানতে চায় কিছু লাগবে কিনা। তারা অস্বীকার করলে গায়ে পড়ে সুন্দরী নারীর কথা উল্লেখ করলে সুফিয়ান ও রাজু দরকার নাই বলে এড়িয়ে যেতে চান। তখন দালালরা তাদের ধাক্কাধাক্কি শুরু করলে তারাও দু’জন প্রতিবাদ করেন। এরপর মুহূর্তে তাদের ঘিরে ধরে দালালরা। জোর করে তাদের হোটেলে নিয়ে মারধর করে টাকা-পয়সা রেখে ছেড়ে দেয় তারা।

বিজ্ঞাপন
ছাড়া পেয়ে সুফিয়ান ও রাজু তাদের নিজেদের বন্ধু-বান্ধবদের খবর দিলে তারা সবাই একত্রিত হয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে হোটেলটি ঘেরাও করে রাখেন। খবর পেয়ে সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানা পুলিশের একদল সদস্য ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। তারা দোষীদের আইনের আওতায় নিয়ে আশার আশ্বাস দিলে রাত পৌণে ৯টার দিকে যুবকরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এ ব্যাপারে নির্যাতিত দুই যুবক কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে তাদের স্বজনরা জানিয়েছেন। ব্যবসায়ীরা জানান, এটা এখানকার নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। এই মার্কেটের ভেতরে বা বাইরে কোথাও মানসম্মান নিয়ে চলার উপায় নেই। সাধারণ মানুষের মধ্যে যারাই প্রতিবাদ করেন, দালালরা তাদের ওপরই চড়াও হয়। ধরে নিয়ে নির্যাতন করে ছেড়ে দেয়। তারা জানান, আগে এই হোটেলের নাম ছিল হোটেল বদরুল। বারবার পুলিশি অভিযানের মুখে কিছুদিন হোটেলটি বন্ধ রাখা হয়। এরপর নাম পাল্টে মেঘনা রাখা হয়।

বাংলারজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status