ঢাকা, ৪ অক্টোবর ২০২২, মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

মত-মতান্তর

ডা. ওয়ালীউল্লাহর অপেক্ষার দীর্ঘ প্রহর

(২ সপ্তাহ আগে) ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, মঙ্গলবার, ১০:২৩ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৩:৫৭ অপরাহ্ন

ছবির বামে নিখোঁজ হওয়া ডা. শাকির বিন ওয়ালী

১. উচ্চ আদালতের নির্দেশনা না মানলে এর শাস্তি কী? আমি আইনের মানুষ নই, তাই প্রশ্নের উত্তর আমার জানা নেই। আপনারা কি কেউ জানেন? এর উত্তর আমরা অনেকেই জানি না। অবশ্য ক্ষমতার ভেতরে এবং আশেপাশে যারা আছেন তাদের বিরুদ্ধে কিছু বললে আইনের প্রয়োগ খুব কঠিনভাবে হচ্ছে বলে আমরা দেখছি। যারা এই বৃত্তের বাইরে অবস্থান করছেন তারা কি মানুষ? বাংলাদেশের নাগরিক? স্বাধীন দেশের বাসিন্দা? তাহলে তাদের ক্ষেত্রে কেন ব্যতিক্রম?

২. সদ্য এমবিবিএস পাস করা ডাক্তার শাকির বিন ওয়ালীকে রাজধানীর পূর্ব হাজারীপাড়ার নিজ বাসা থেকে ১১ সেপ্টেম্বর বিকেল তিনটার দিকে সিআইডির পরিচয় দিয়ে যখন তুলে নেয়া হয় তখন তাদেরকে তাদের আইডি দেখানোর জন্য বলা হয়েছিল। ডাক্তার শাকির বিন ওয়ালীর নামে কোন অভিযোগ বা ওয়ারেন্ট আছে কি-না তা জানতে চাওয়া হয়েছিল। চৌকস দলের কাউকে কোন ওয়ারেন্ট দেখাতে হয়নি। পরিবারের সদস্যদের এই ভদ্রলোকদের আইডি দেখাতে হয়নি। তারা এলেন এবং জয় করে সদ্য পাস করা এই ডাক্তারকে নিরুদ্দেশের দিকে নিয়ে গেলেন। ডাক্তার শাকির এখন কোথায়?

৩. ঘটনায় হতভম্ব হওয়া পিতা ডাক্তার এ কে এম ওয়ালীউল্লাহ, যিনি নিজেও একজন চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাক্তার, ঘটনার পরপরই রামপুরা থানায় যোগাযোগ করেন। উনারা এ গ্রেফতার সম্পর্কে কিছুই জানেন না বলে জানান।

বিজ্ঞাপন
পরে যোগাযোগ করতে বলেন।

৪. সেই বিশেষ প্রশিক্ষিত লোকজন ডাক্তার শাকিরের বাসায়  আবার ১১ তারিখ রাতে গিয়ে রুম তল্লাশি করে একটি মোবাইল ফোন নিয়ে যান। নিজেদের আবার সিআইডির লোক বলে পরিচয় দিলেও কোন আইডি বা ওয়ারেন্ট দেখাতে পারেননি। দেখানোর প্রয়োজন নেই তো! কেন দেখাবেন? গোলামের কাছে মনিবকে কখনো তার পরিচয় পেশ করতে হয়?

৫.  ১২ সেপ্টেম্বর সকালের (১০:৩০)  দিকে মালিবাগ সিআইডি অফিসে খবর জানতে গেলে ডাক্তার ওয়ালীউল্লাহকে কোন উত্তর দিতে তারা অস্বীকার করেন। মজার ব্যাপার হচ্ছে যে, ঐদিন ১১:৩০ মিনিটের দিকে তিনি রামপুরা থানায় গেলে দায়িত্বরত ওসি সাহেব তাকে বলেন ' আপনার ছেলেকে যেহেতু রাষ্ট্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা নিয়ে গেছে তাই জিডি করা সম্ভব নয়'!

৬. রামপুরা থানার ওসি সাহেবের বক্তব্য অনুসারে ডাক্তার শাকিরকে রাষ্ট্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা নিয়ে গেছে। এ বিষয়ে আর কোন সন্দেহ নেই। কোন প্রশ্ন নেই। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, তাকে কেন গ্রেফতার বা অপহরণ করা হলো?

৭. ডাক্তার শাকির হয়তো কোন অপরাধ করেছেন। অপরাধ করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতেই পারে। কিন্তু এভাবে? 

৮. উচ্চ আদালতের নির্দেশনা রয়েছে যে ওয়ারেন্ট ছাড়া আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বাসা থেকে কাউকে গ্রেফতার করতে পারবে না। গ্রেফতারের আগে অবশ্যই সন্দেহজনক ব্যক্তিকে তাদের নামে ইস্যু করা ওয়ারেন্ট দেখাতে হবে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাদের অফিসিয়াল পরিচয়পত্র দেখাতে বাধ্য থাকবেন।

৯. ডাক্তার শাকির বা হঠাৎ করে গুম বা উধাও হয়ে যাওয়া অসহায় বনি আদমদের বিনা ওয়ারেন্টে বাসা বা অফিস থেকে যখন গ্রেফতার করে নিয়ে আসা হয় তখন কি উচ্চ আদালতের এই নির্দেশনা লংঘিত হয়নি?

১০. বাংলাদেশের সভ্যতা কি যাকে তাকে যেখান থেকে, সেখান থেকে যেকোনো কারণে গ্রেফতার বা হাওয়া করে দেয়ার অনুমতি দেয়? যদি এই অনুমতি না দেয়া হয়ে থাকে তাহলে যারা উচ্চ আদালতের আদেশ অমান্য করে এই ধ্বংসলীলায় জড়িত তাদের ব্যাপারে আদালতের কি কিছুই করার নেই?

১১. উচ্চ আদালতের আদেশ অমান্য করার কারণে আদেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতের পক্ষ থেকে কেন ব্যবস্থা নেয়া হবে না? 

১২. ভালো কথা। ওয়ারেন্ট এবং আইডি ছাড়া পরেরবার যখন কেউ কারো বাসায় কড়া নাড়ে অথবা জোর করে ধরে নিয়ে যাওয়ার জন্য হাজির হয়, তখন বাসার লোকজন কী করবে? এ ব্যাপারে আদালতের পক্ষ থেকে একটি স্পর্শ নির্দেশনা আসা খুবই প্রয়োজন।

১৩.  ডাক্তার শাকিরের বাবা ডা. ওয়ালীউল্লাহ এখন কোথায় যাবেন? তার ছেলে কি আবার ফিরে আসবে? নাকি সেও মিলিয়ে যাবে শূন্যে, মহাশূন্যে!


---

ডা: আলী জাহান 

কনসালট্যান্ট সাইকিয়াট্রিস্ট, যুক্তরাজ্য

সাবেক পুলিশ সার্জন, যুক্তরাজ্য

[email protected]

 

পাঠকের মতামত

বাংলাদেশে সব সরকারের আমলেই এমন হচ্ছে যা একটি স্বাধীন দেশে কখনও কাম্য নয় , এই ভাবে চলতে থাকলে ভুক্ত ভুগি পরিবার একদিন আইন নিজে হাতে তুলে নিবে যেটা দেশের জন্য মঙ্গোল জনক হবে না।

Md. Salman Haque
১২ সেপ্টেম্বর ২০২২, সোমবার, ১০:২৩ অপরাহ্ন

বাংলাদেশে সব সরকারের আমলেই এমন হচ্ছে যা একটি স্বাধীন দেশে কখনও কাম্য নয় ।

Kazi
১২ সেপ্টেম্বর ২০২২, সোমবার, ৯:৫৯ অপরাহ্ন

মত-মতান্তর থেকে আরও পড়ুন

মত-মতান্তর থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status