ঢাকা, ৪ অক্টোবর ২০২২, মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

শেষের পাতা

রাহেলকে নিয়ে ফের ‘জল্পনা’

ওয়েছ খছরু, সিলেট থেকে
১৬ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার

শোক দিবসে শোক র‌্যালি করেছে সিলেট ছাত্রলীগ। ঐক্যবদ্ধভাবেই ৪ নেতার নেতৃত্বেই এ র‌্যালি করা হয়। এতে বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মীর উপস্থিতি ছিল। শেষে এটি পরিণত হয় শোডাউনে। এতে সবচেয়ে বেশি সক্রিয় ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাহেল সিরাজ। এতে জল্পনা শুরু হয়েছে তাকে ঘিরে। ছাত্রলীগের কর্মীরা জানিয়েছেন, তিনি আগ্রহী হয়েই উপজেলা থেকে নেতাকর্মীদের সিলেটে নিয়ে আসেন। শোকর‌্যালীতে বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মীর অংশগ্রহণ ঘটান। রাহেল সিরাজ সিলেট ছাত্রলীগের বৃহৎ অংশ তেলীহাওর গ্রুপের নেতা। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন খানের কর্মী ছিলেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
কিন্তু গত বছর ১২ই অক্টোবর যখন জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয় তখন রাহেলকে নিয়ে সবচেয়ে বেশি তোলপাড় হয়। তেলীহাওর গ্রুপের অনেক সিনিয়র ছাত্রলীগ নেতাদের টপকে ঢাকার লবিংয়ে জেলার সাধারণ সম্পাদক হয়ে আসেন রাহেল। 

এতে করে গ্রুপের ভেতরে অস্বস্তি দেখা দেয়। ভেতরে ভেতরে রয়েছে টানাপড়েনও। হাতে সময় পেলেও সেই দূরত্ব ঘোচাতে পারেননি রাহেল সিরাজ। অন্যদিকে, সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের যে কমিটি ঘোষণা করা হয়েছিল তা নিয়েও আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে ক্ষোভ ছিল। কারণ, সিলেট আওয়ামী লীগ নেতাদের পাশ কাটিয়ে ঘোষণা করা হয়েছিল জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি। কমিটি ঘোষণায় প্রথমদিকে ক্ষোভ থাকলেও ধীরে ধীরে সেই ক্ষোভ প্রশমিত হয়। গ্রুপ নেতারা গ্রহণ করে নেন জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের ৪ নেতাকে। তবে এই ১০ মাসে এখনো সিলেট জেলা ও মহানগর কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা সম্ভব হয়নি। ছাত্রলীগের নেতারা জানিয়েছেন, কমিটি ঘোষণার পর দলের ভেতরে ঐক্য ফিরিয়ে আনতে তারা কাজ করেছেন। এরমধ্যেও সিলেট ছাত্রলীগে সম্প্রতি কম্পনের সৃষ্টি হয়েছে। আর এই কম্পনের কেন্দ্রে রয়েছেন রাহেল সিরাজ নিজেই। তেলীহাওর গ্রুপের নেতা হলেও তাকে এখনো বলয়ের ভেতরে থাকা তার সহকর্মীরা গ্রহণ করতে পারেননি। পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে স্থান পাওয়া না পাওয়া নিয়ে কয়েকজন নেতার সঙ্গে তার বিরোধ চলছে।

 এ ছাড়া উপজেলা পৌর কমিটি গঠন নিয়ে মতবিরোধ রয়েছে। সম্প্রতি এই বিরোধের বিষয়টি প্রকাশ্যে এসেছে। শিক্ষা সফরে লন্ডনে অবস্থান করছেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ আহমদ। রাহেল ও মাসুদের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পাল্টাপাল্টি চলছে। এই পাল্টাপাল্টির জের ধরে নতুন করে দূরত্ব হয়েছে রাহেল সিরাজের। গ্রুপ নেতারা জানিয়েছেন, সিলেট ছাত্রলীগের টিলাগড়, দর্শন দেউরী, রিকাবীবাজার গ্রুপের চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী তেলীহাওর গ্রুপ। এই গ্রুপ থেকে বরাবরই সিলেট জেলা কিংবা মহানগর ছাত্রলীগের গুরুত্বপূর্ণ পদ আসে। এর আগে শাহরিয়ার আলম সামাদ ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি। তাকে ঘিরে তেলীহাওর গ্রুপ আবর্তিত হয়েছে। এবার রাহেল সিরাজ সাধারণ সম্পাদক হলেও এখনো গ্রুপ নেতারা তাকে বরণ করেননি। রাহেল সিরাজকেও সামাদের মতো অবস্থান দেয়া হয়নি।

 সাম্প্রতিক সময়ে বালাগঞ্জ ও ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা কমিটি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে নতুন করে রাহেল সিরাজের উপর ক্ষোভ বেড়েছে। এজন্য গ্রুপ নেতাদের সঙ্গে রাহেল সিরাজের যোগাযোগও কমে এসেছে। এতে করে গ্রুপের ভেতরে তার গুরুত্ব কমে আসছে। এদিকে, এই অবস্থায় রাহেল সিরাজ নিজের অবস্থান জানান দিতে গতকাল শোক র‌্যালীর আড়ালে সিলেটে শোডাউন দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন ছাত্রলীগের কয়েকজন সিনিয়র নেতা। তারা জানান, অধিকসংখ্যক নেতাকর্মীর উপস্থিতির মাধ্যমে রাহেল তার জবাব কথায় নয় কাজের মাধ্যমে দিয়েছেন। আর এতে রাহেলের পাশে ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাজমুল ইসলাম, মহানগর সভাপতি কিশোয়ার জাহান সৌরভ ও সাধারণ সম্পাদক নাঈম আহমদ। দুপুরের দিকে রাহেল সিলেট সিটি করপোরেশনের সামনে তার নেতাকর্মীদের নিয়ে জমায়েত হন। আর নাজমুল ছিলেন ধোপাদীঘির পাড় এলাকায়। 

সেখান থেকে মিছিল সহকারে তারা যান রেজিস্ট্রারি মাঠে। পরে সৌরভ ও নাঈমের নেতৃত্বে মহানগর নেতারা মিছিল সহকারে রেজিস্ট্রারি মাঠে আসেন। বেলা ২টার দিকে রেজিস্ট্রারি মাঠ থেকে শোক র‌্যালী বের করা হয়। আর এটি এসে শেষ হয় সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মীর উপস্থিতি থাকার কারণে সবার নজরে পড়ে এই র‌্যালী। এদিকে ছাত্রলীগের নেতারা জানিয়েছেন, কেন্দ্র থেকে ঘোষণা করা হয়েছে জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের ৪ জনের কমিটি। এখন জেলা ও মহানগরের প্রতিটি ইউনিট গঠন করে সিলেটের ছাত্রলীগকে পূর্ণাঙ্গ করা প্রধান কাজ। জুলাইয়ের শেষ দিকে জেলার আওতাভুক্ত ৪টি ইউনিটের কমিটি গঠন করা হয়েছে। সেপ্টেম্বর থেকে তারা জোড়েশোরে কমিটি গঠনে মনোযোগী হবেন। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশ মোতাবেক সিলেট ছাত্রলীগ কাজ করে যাচ্ছে বলে জানান তারা।

 

শেষের পাতা থেকে আরও পড়ুন

শেষের পাতা থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status