ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, বুধবার, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

অনলাইন

গোটা বিশ্বেই তাদের 'বেবি পাউডার' বিক্রি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিল ‘জনসন অ্যান্ড জনসন’

মানবজমিন ডিজিটাল

(১ মাস আগে) ১২ আগস্ট ২০২২, শুক্রবার, ২:২৩ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১১:৪৯ পূর্বাহ্ন

জনসন অ্যান্ড জনসন বলেছে যে ২০২৩ সাল থেকে আর বেবি পাউডার বিক্রি করবে না তারা। সুরক্ষা ঝুঁকি এবং চাহিদা হ্রাসের কারণে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং কানাডায় ইতিমধ্যেই ‘জনসন অ্যান্ড জনসন’ এর বিক্রি বন্ধ রয়েছে। J&J একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে -একটি বিশ্বব্যাপী পোর্টফোলিও মূল্যায়নের অংশ হিসাবে, আমরা সমস্ত কর্নস্টার্চ-ভিত্তিক বেবি পাউডার রূপান্তর করার বাণিজ্যিক সিদ্ধান্ত নিয়েছি।দীর্ঘমেয়াদী বৃদ্ধির জন্য ব্যবসাকে সর্বোত্তম অবস্থানে রাখতে আমরা ক্রমাগত মূল্যায়ন করি এবং আমাদের পোর্টফোলিও অপ্টিমাইজ করি।এই রূপান্তরটি আমাদের পণ্য অফারগুলিকে সহজতর করতে, টেকসই করতে এবং আমাদের ভোক্তা, গ্রাহকদের এবং বিশ্বব্যাপী চাহিদা পূরণ করতে সহায়তা করবে। '' সংস্থার দাবি এর কর্নস্টার্চ-ভিত্তিক বেবি পাউডার ইতিমধ্যে অনেক দেশে বিক্রি হয়েছে। J&J উত্তর আমেরিকার ভোক্তাদের কাছ থেকে প্রায় ৩৮,০০০ মামলার ফলস্বরূপ বেশ কয়েকটি ভুল তথ্যকে দায়ী করেছে। ঠিক কী অভিযোগ রয়েছে ‘জনসন অ্যান্ড জনসন’ বেবি পাউডারকে নিয়ে? ওই পাউডারে অ্যাসবেস্টসের নমুনা পাওয়া গিয়েছে। অ্যাসবেস্টস শিশু শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকারক। এর সংস্পর্শে এলে ক্যানসার পর্যন্ত হতে পারে। বছর তিনেক আগে এই অভিযোগ ওঠার পর থেকে ক্রমেই বিতর্ক ঘনিয়েছে। যদিও সংস্থার দাবি অনেক বৈজ্ঞানিক পরীক্ষায়  প্রমাণিত যে এই পাউডার শিশুদের জন্য সুরক্ষিত।

বিজ্ঞাপন
J&J- এর দাবি - ''আমাদের কসমেটিক ট্যাল্কের নিরাপত্তার বিষয়ে আমাদের অবস্থান অপরিবর্তিত রয়েছে। আমরা বিশ্বব্যাপী চিকিৎসা বিশেষজ্ঞদের কয়েক দশকের স্বাধীন বৈজ্ঞানিক বিশ্লেষণের সাথে দৃঢ়ভাবে দাঁড়িয়েছি যা নিশ্চিত করে যে ট্যাল্ক-ভিত্তিক জনসন বেবি পাউডার নিরাপদ, এতে অ্যাসবেস্টস নেই এবং ক্যান্সার সৃষ্টি করে না। ''১৮৯৪ সাল থেকে ‘জনসন অ্যান্ড জনসন’ বেবি পাউডার বিক্রি হয়ে চলেছে। কিন্তু আমেরিকার ৩৫ হাজার মহিলা জরায়ুর ক্যানসারের জন্য ওই সংস্থাকে দায়ী করে মামলা দায়ের করার পর থেকেই মার্কিন মুলুকে ক্রমেই কমে যাচ্ছিল পাউডারটির চাহিদা। আমেরিকার এক আদালত সংস্থাকে ১৫ হাজার কোটি টাকার জরিমানার ‘সাজা’ দিয়েছিল।

সূত্র : cnbctv18.com

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

অনলাইন থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status