ঢাকা, ২৩ জুন ২০২৪, রবিবার, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ জিলহজ্জ ১৪৪৫ হিঃ

শেষের পাতা

এমপি আনার হত্যাকাণ্ড

৮ দিনের রিমান্ডে ৩ আসামি

স্টাফ রিপোর্টার
২৫ মে ২০২৪, শনিবারmzamin

ভারতের কলকাতায় ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারকে হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ৩ আসামি শিমুল ভূঁইয়া ওরফে শিহাব ওরফে ফজল মোহাম্মদ ভূঁইয়া ওরফে আমানুল্লাহ আমান সাইদ, তানভীর ভূঁইয়া ও সেলেস্তি রহমানের ৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। 

গতকাল আদালতে আসামিদের ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের ওয়ারী জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মাহফুজুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা জানিয়েছে- ভিকটিম আনোয়ারুল আজিম আনারের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী আকতারুজ্জামান শাহীনের ব্যবসায়িক লেনদেনের সম্পর্ক রয়েছে। ব্যবসায়িক লেনদেনসহ কিছু বিষয় নিয়ে আজিমের ওপর শাহীনের ক্ষোভ ছিল। যা সে (ভিকটিম) জানতো না। এ ছাড়াও শিমুল ভূঁইয়ার সঙ্গে ভিকটিমের দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক মতাদর্শের দ্বন্দ্ব ছিল। তাই তারা পরিকল্পিতভাবে ভিকটিম আজিমকে দেশের বাইরে নিয়ে হত্যার পরিকল্পনা করেন, যেন কেউ বুঝতে না পারে। ১০শে মে দেশে ফেরেন শাহীন। এ সময় তিনি আমানুল্লাহকে দায়িত্ব দিয়ে আসেন কোনোভাবেই যেন কাজটা মিস না হয় এবং কোনো প্রমাণ যেন না থাকে। আবেদনে আরও বলা হয়, পূর্ব পরিকল্পনার অংশ হিসেবে গত ১৩ই মে আসামি শিমুল ভূঁইয়া, তানভীর ও সেলেস্তি রহমানসহ পলাতক অজ্ঞাতনামা আসামিরা নৃশংসভাবে আনারকে হত্যা করে লাশ গুম করেন। যাতে কোনো প্রমাণ না থাকে। এরপর তারা দেশে ফিরে আসেন।

বিজ্ঞাপন
শুনানি শেষে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট দিলরুবা আফরোজ তিথির আদালত এ আদেশ দেন। 

এর আগে দুপুর আড়াইটার দিকে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাদের হাজির করা হয়। প্রথমে তাদেরকে আদালতের হাজতখানায় রাখা হয়। সেখান থেকে আদালতে তোলার সময় দেখা যায়, সেলেস্তি রহমান মুখে মাস্ক পরে দুই নারী পুলিশের কাঁধে মুখ লুকিয়ে হাঁটতে হাঁটতে আদালতে ঢুকছেন। বাকি দুই আসামির মুখেও ছিল মাস্ক। রিমান্ড শুনানির আগে আদালতের এজলাসে আসামিদের রাখার ডকে উঠেই অঝোরে কান্না করতে দেখা যায় সেলেস্তি রহমানকে। রিমান্ড শুনানির একপর্যায়ে একজন আইনজীবী ওকালতনামায় তার স্বাক্ষর নিতে গেলে তিনি সেই আইনজীবীকে বলেন, আমি কেন স্বাক্ষর করবো? আমি কি আসামি নাকি? এসব বিষয়ে কিছু জানি না। এ সময় রাষ্ট্রপক্ষের হয়ে রিমান্ডের পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন আইনজীবী আব্দুস সাত্তার দুলাল। তবে আসামি পক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না। রিমান্ড শুনানি শেষে আসামিদের প্রথমে সিএমএম কোর্টের হাজতখানায় নেয়া হয়। সেখান থেকে বেলা ৩টা ৫০ মিনিটে সিএমএম কোর্ট থেকে দুটি মাইক্রোবাসে করে  আসামিদের  রাজধানীর মিন্টো রোডে অবস্থিত ডিবি কার্যালয়ে নেয়া হয়। 

শুনানি শেষে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আব্দুস সাত্তার দুলাল জানিয়েছেন, আইনগত দিক বিবেচনা করে সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারকে হত্যার বিচার বাংলাদেশেই হবে। তিনি বলেন, যে দেশের নাগরিক, সেদেশে বিচার হবে। তবে হত্যাকাণ্ডটি ভারতে হওয়ায় সেখানেও তদন্ত হবে। 
আদালতে শেরে বাংলা নগর থানার সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) পুলিশের উপ-পরিদর্শক সেলিম রেজা বলেছেন, খুন করার উদ্দেশ্যে অপহরণের অভিযোগে গত বুধবার শেরেবাংলা নগর থানায় মামলাটি দায়ের করেন এমপি আনারের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন।

পাঠকের মতামত

এক শয়তান মরছে। আর কতগুলো শয়তান ফাসছে। এখন যারা মাথাচাড়া দিবে সেই শয়তানগুলো হাসছে।

hori
২৫ মে ২০২৪, শনিবার, ১১:৫৬ পূর্বাহ্ন

শেষের পাতা থেকে আরও পড়ুন

   

শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status