ঢাকা, ১৬ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার, ১ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৭ মহরম ১৪৪৪ হিঃ

মত-মতান্তর

গড়তে হবে মানবতার সেতু বন্ধন

মাহাবুবা নাজরীনা জেবিন

(১ মাস আগে) ৩ জুলাই ২০২২, রবিবার, ৭:৪৬ অপরাহ্ন

মহা ধুমধাম করে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করা হলো। বাংলাদেশের জনগণের ট্যাক্সের টাকায় গড়া এই সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠানের চাকচিক্য চোখ ধাধিয়ে দিয়েছে গোটা বিশ্বের। যার ফলে বাংলাদেশের উত্তর পূর্বাঞ্চলের মানুষের দুঃখ দুর্দশা কারো নজরে পড়ছে না। আতশবাজি আর ধুমধাড়াক্কা মিউজিকে ঢাকা পড়ছে সুরমা তীরের বন্যার্ত মানুষের আহাজারি আর বুকফাটা আর্তনাদ।

সিলেট-সুনামগঞ্জের বন্যার পানিতে ভেসে যাওয়া মানুষ আর গবাদি পশুর মৃতদেহের ছবি ভেসে বেড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। মারাত্মক বন্যায় পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন প্রায় ৩০ লক্ষ মানুষ। কিন্তু পানির সঙ্গে লড়াই করা অসহায় মানুষগুলোর কান্না শোনার অবকাশ কেউ পাচ্ছে না। পদ্মা সেতুতে জন্মবার্ষিকী, বিবাহবার্ষিকী আর প্রেমবার্ষিকী পালন করা নিয়ে সবাই ব্যস্ত। মিডিয়াগুলো ব্যস্ত নাট-বল্টু খোলার বিভিন্ন থিউরির ব্যাখ্যা নিয়ে। লাখ লাখ মানুষের অসহায়ত্ব নিয়ে তাদের টুঁ শব্দটি নেই।
  
১৯৮৮-এর বন্যার সময় টিভি খুললেই দেখা যেতো একটি গান ‘তোমাদের পাশে এসে বিপদের সাথী হতে আজকের চেষ্টা অপার’ আর বন্যার্তদের মাঝে তৎকালীন স্বৈরাচার সরকার এরশাদের ত্রাণ তৎপরতার ছবি। কিন্তু এবারকার ভয়াবহ বন্যায় টিভিতে সরকারি বা বেসরকারিভাবে ত্রাণ তৎপরতার তেমন কিছুই দেখছি না।

বিজ্ঞাপন
সোশ্যাল মিডিয়ার কল্যাণে আমরা আজ কার রসুইঘরে কি রান্না হচ্ছে, কে আজ পাঁচ তারকা হোটেলে কি খেলো তার ছবিসহ গোটা দুনিয়া সুদ্ধ মানুষ জেনে যাচ্ছে। কিন্তু পানিবন্দি এই মানুষগুলো দিনের পর দিন না খেয়ে রয়েছে। বুক সমান পানিতে ঠায় দাঁড়িয়ে আছে একমুঠো খাবারের আশায়। একটু সাহায্যের আশায়। এক লহমায় জমি, বাড়ি, ফসল, গবাদি হারিয়ে নিঃস্ব অবলম্বনহীন এই মানুষগুলো বুঝে উঠতে পারছে না কি করবে, কোথায় যাবে। দু’হাত তুলে সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করা ছাড়া যেন তাদের আর কোন গতি নেই।

সামনে আসছে কোরবানির ঈদ। ক’দিন পরই শুরু হয়ে যাবে প্রতিযোগিতা। কে কত লাখ টাকায় লেহেঙ্গা কিনলো সেই খবর ছবিসহ ছাপা হবে পত্রিকার পাতায়। টিভি চ্যানেলগুলো সরগরম থাকবে কার গরু সবচেয়ে বড় আর দামী তা নিয়ে। কোটি মানুষের ঘরে থাকবে পোলাও কোরমা কাবাবের ছড়াছড়ি আর অন্যদিকে লক্ষ মানুষ একমুঠো খাবারের আশায় চেয়ে থাকবে দিগন্তের দিকে। কিন্তু যে ত্যাগের শিক্ষার জন্য ফিতরা, যাকাত আর কোরবানির প্রবর্তন তার প্রতিফলন আমরা এই দুঃসময়ে দেখছি না। তবে কিছু মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ভালবাসার সেতু দিয়ে মানবতার কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন। কিন্তু লাখ লাখ মানুষের জন্য তা নিতান্তই অপ্রত্লু। তাই সবাইকে সাধ্যমতো এগিয়ে আসতে হবে। অনেক প্রবাসীরা দেশের মানুষের অসহায়ত্ব দেখে তাদের সাহায্য করে যাচ্ছেন। কেউ কেউ সশরীরে চলে গেছেন বানভাসি অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াতে। এইসব মহৎ উদাহরণ দেখে অন্য সামর্থ্যবানদেরও এগিয়ে আসতে হবে। বন্যার সঙ্গে বাংলাদেশের মানুষের এ লড়াই কারো একার নয়। শুধু প্লাবিত এলাকার মানুষের একার বেঁচে থাকার লড়াই নয়। এই লড়াই বাংলাদেশের প্রতিটি নাগরিকের। তাই দেশে কিংবা বিদেশে যে যেখানে থাকুন না কেন বন্যার্ত মানুষের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন।

‘সবার উপর মানুষ সত্য, তাহার ওপর নাই’ কোরবানির এই ঈদে অর্থ সম্পদের প্রতিযোগিতা না করে আসুন সবাই ত্রাণ বিতরণের প্রতিযোগিতা করি। নিরন্ন লাখো মানুষের মুখে খাবার তুলে দেই। বস্ত্রহীন মানুষদের নতুন না হোক পুরনো কাপড় দিয়ে তাদের লজ্জা নিবারণের সুযোগ করে দেই। প্রকৃতির সঙ্গে লড়াই করা মানুষের হাতে জীবন বাঁচানোর প্রয়োজনীয় সামগ্রী ও ওষুধ তুলে দিয়ে প্রাণ বাঁচাতে সহায়তা করি। দেশের বিত্তবানরা আসুন মানবিক সহায়তা দিয়ে পানিবন্দি মানুষদের বাঁচান। বিপন্ন অসহায় মানুষদের সহায়তা করে, মানবতার সেতু গড়ে তুলবার এখনই সময়।
লেখক: লন্ডন প্রবাসী সাংবাদিক

পাঠকের মতামত

চারিদিকে খালি পাকনামী আর পাকনামী। দেশে আসুন কোমড় পরিমান পানিতে নামুন ও দেশের জনগণকে সহায়তা করুন। বিদেশে বসে বসে দেশের সরকার আর জনগনের সমালোচনা করা বন্ধ করুন ...পক পক পক…।। আজ আমার মন ভালো নেই...

Nobody
৬ জুলাই ২০২২, বুধবার, ১১:৩৪ অপরাহ্ন

বড় স্বপ্ন, বড় প্রকল্প কিংবা উন্নয়নের জোয়ার আজ চারিদিকে সেই জোয়ারের পানি সিলেট ডুবাতে পারলেও পদ্মাসেতু ডুবাতে পারবে না।যদি ডুবে যায় তাহলে গোপালগঞ্জ, ফরিদপুর, শরীয়তপুরের জনগণের একমাত্র আস্থা আর আশ্রয়কেন্দ্র হবে এই পদ্মা সেতু।যা তৈরি করতে খরচ হয়েছে প্রায় ২৪ হাজার কোটি আর চার বছরে টাকা তোলা হয়েছে ৯৮ হাজার কোটি টাকা তবে এই পদ্মা সেতুর যদি যে ভ্যাট জনগণ দিয়ে এসেছিলো তার এখনও সামীন্ত খুঁজে পাওয়া যায় নি। পদ্মা সেতু হয়েছে কিন্তু সরকার এখনো বাড়তি ভ্যাট বন্ধ করে নি।

সায়াদ বিন সোহেল
৬ জুলাই ২০২২, বুধবার, ১০:৩১ পূর্বাহ্ন

মত-মতান্তর থেকে আরও পড়ুন

মত-মতান্তর থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status