ঢাকা, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, মঙ্গলবার, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ শাওয়াল ১৪৪৫ হিঃ

শরীর ও মন

বাংলাদেশি চিকিৎসকদের সঙ্গে অভিজ্ঞতা বিনিময় করলেন অর্ধশতাধিক বিদেশি চিকিৎসক

স্টাফ রিপোর্টার

(১ মাস আগে) ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ৭:১৬ অপরাহ্ন

বাংলাদেশের চিকিৎসকদের সঙ্গে বিদেশি চিকিৎসকদের অভিজ্ঞতা বিনিময়ের এক চমৎকার উপলক্ষ্য এনে দিয়েছে বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ এসোসিয়েশনের (বিপিএমসিএ) ও তাফিদা রাকিব ফাউন্ডেশন। সংস্থা সুটির যৌথ আয়োজনে গত ২৬শে ফেব্রুয়ারি রাজধানী ঢাকার হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে অনুষ্ঠিত হলো ‘একবিংশ শতাব্দীতে চিকিৎসা বিজ্ঞানের অগ্রগতি, গবেষণা ও উদ্ভাবন’ বিষয়ক সম্মেলন। যেখানে ইউরোপ ও যুক্তরাজ্যের ৫০ জনের বেশি চিকিৎসক বাংলাদেশের চিকিৎসকদের সঙ্গে তাদের অভিজ্ঞতা, উদ্ভাবন ও নতুন নতুন গবেষণার তথ্য তুলে ধরেন।

এই আয়োজনের মাধ্যমে বাংলাদেশের চিকিৎসাখাতে নতুন এক যুগের সূচনা হলো বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। একসঙ্গে এতোজন বিদেশি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসককে দেশে আনার ঘটনাকেও প্রশংসনীয় উদ্যোগ হিসেবে উল্লেখ করেছেন সম্মেলনে অংশ নেয়া বাংলাদেশি চিকিৎসকরা। এমন আয়েজন ভবিষ্যতে বিদেশি চিকিৎসকদের সঙ্গে সহযোগিতামূলক কাজের ক্ষেত্রে মাইলফলক হিসেবে কাজ করবে বলেও মনে করেন তারা।

বিভিন্ন দেশ থেকে আসা এসব চিকিৎসকরা এক সপ্তাহ বাংলাদেশে অংস্থান করবেন। এ সময় তার সিলেটের বিভিন্ন অঞ্চলে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করবেন বলেও সম্মেলনে জানান আয়োজকরা।

সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রফেসর ফিলিপ মিনাশে, প্রফেসর কুমারন দিভা, প্রফেসর মতিহাস কোয়েপ, প্রফেসর রনিট প্রেসলার এবং প্রফেসর ম্যাসিমিলিয়ানো সেরফিনো।
সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. এ কে এম আব্দুল মোমেন। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক  ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক  ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইমিরেটাস অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ এবং বাংলাদেশ মেডিকেল রিসার্চ কাউন্সিল’র চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী।

নিজ নিজ বক্তব্যে অতিথিরা চিকিৎসা বিজ্ঞানের অগ্রগতি ও নতুন গবেষণার বিষয়ে বাংলাদেশের চিকিৎসকদের সঙ্গে বিদেশিদের অভিজ্ঞর বিনিময়ের এমন সুযোগ করে দেয়ার জন্য বিপিএমসিএ এবং তাফিদা রাকিব ফাউন্ডেশনকে ধন্যবাদ জানান।

আয়োজন প্রসঙ্গে বিপিএমসিএ-এর প্রেসিডেন্ট ডা. এম এ মুবিন খান বলেন, আমরা সবসময় চাই বাংলাদেশের চিকিৎসা খাতের উন্নতি। দেশের চিকিৎসকরা যেন দেশে বসেই উন্নত সব টেকনোলজি, গবেষণা ও উদ্ভাবন বিষয়ে জানতে পারে সেজন্যই আমাদের এই আয়োজন। ভবিষ্যতেও এরকম আয়োজন অব্যাহত থাকবে।

বিজ্ঞাপন
পুরো আয়োজনে সহযোগিতার জন্য আমরা তাফিদা রাকিব ফাউন্ডেশনের কাছে কৃতজ্ঞা।

পাঠকের মতামত

ডাক্তাররা যদি একটু আদুরে গলায় রোগীদের সাথে ব্যবহার করে তা হোলে রুগীদের বেশীর ভাগের অবস্থার দ্রুত উন্নতি হয়ে থাকে। কিন্তু প্রায়শই দেখা যায় কিছু সংখ্যক ডাক্তারের "মুই কি হনুরে" মানসিকতা দেখা যায়, যা খুবই দুঃখজনক।

ওবাইদুল
২ মার্চ ২০২৪, শনিবার, ৫:০৯ পূর্বাহ্ন

শরীর ও মন থেকে আরও পড়ুন

   

শরীর ও মন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status