ঢাকা, ২২ মে ২০২৪, বুধবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

শরীর ও মন

কোভিডের চেয়েও ১০০ গুণ খারাপ হতে পারে বার্ড ফ্লু !

মানবজমিন ডিজিটাল

(১ মাস আগে) ৬ এপ্রিল ২০২৪, শনিবার, ৫:২০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৭:১২ অপরাহ্ন

mzamin

বার্ড ফ্লু কোভিড মহামারির চেয়ে ১০০ গুণ খারাপ কারণ এটি উচ্চ মৃত্যুর হারের দিকে নিয়ে যেতে পারে। বিষয়টি নিয়ে  উদ্বেগ প্রকাশ করেছে আমেরিকার জাতীয় স্বাস্থ্য সংস্থা।   পিটসবার্গের বার্ড ফ্লু গবেষক ডক্টর সুরেশ কুচিপুদি ডেইলি মেইলকে বলেছেন, আমরা আসলে এমন একটি ভাইরাসের কথা বলছি না যেটি এখনও সামনে আসেনি , আমরা এমন একটি ভাইরাসের কথা বলছি যা বিশ্বব্যাপী বিদ্যমান। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন স্তন্যপায়ী প্রাণীকে সংক্রমিত করছে এবং ছড়িয়ে পড়ছে। এটা আমাদের প্রস্তুত হওয়ার উপযুক্ত সময়।

উদ্বেগগুলো একটি সাম্প্রতিক ব্রিফিংয়ের সময় উত্থাপিত হয়েছিল যেখানে গবেষকরা বার্ড ফ্লুর এইচ৫এন১ স্ট্রেইন নিয়ে আলোচনা করেছিলেন। ইউকে-ভিত্তিক ট্যাবলয়েড ডেইলি মেইলের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে , তারা আশঙ্কা প্রকাশ করেছে যে, ভাইরাসটি একটি গুরুতর প্রান্তিক পর্যায়ে পৌঁছে যেতে পারে যা বিশ্বব্যাপী মহামারি সৃষ্টি করতে পারে। সম্প্রতি টেক্সাসে বার্ড ফ্লু আক্রান্ত এক খামারকর্মীর উপসর্গ ছিল চোখ লাল হয়ে যাওয়া। যা আপাতভাবে কনজাংটিভাইটিসের মতো লাগে। ২০০৩ সাল থেকে এখনও পর্যন্ত এইচ৫এন১ বার্ড ফ্লুতে যত মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন, তাতে প্রতি ১০০ জনের মধ্যে ৫২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এখনও অবধি ৮৮৭ জনের দেহে এই ভাইরাস পাওয়া গেছে। তবে উদ্বেগের বিষয়, তার মধ্যে ৪৬২ জনেরই মৃত্যু হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বার্ড ফ্লুর লক্ষণগুলো কাশি, শরীর ব্যথা এবং জ্বর সহ অন্যান্য ফ্লুর মতো। কিছু লোকের ক্ষেত্রে গুরুতর, প্রাণঘাতী নিউমোনিয়াও হতে পারে। কিছু মিডিয়া রিপোর্ট অনুসারে, এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা বন্য পাখি বা হাঁস-মুরগির সাথে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগের লোকদের মধ্যে গুরুতর বা মারাত্মক সংক্রমণ ঘটিয়েছে। বর্তমানে, এইচ৫এন১  মানুষের মধ্যে সহজে ছড়িয়ে পড়তে সক্ষম নয়।   বার্ড ফ্লুয়ের এই স্ট্রেইন যদি আরও অভিযোজন বা মিউটেশন হয় এবং অতি সংক্রামক ধারাই বজায় রাখে, তবে মৃত্যুহারও বাড়তে পারে। মিউটেশনের পর  মানবদেহেও সংক্রমণ ভয়ঙ্কর হারে ছড়াতে পারে। সেক্ষেত্রে মৃত্যুও বাড়বে বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। জন ফুলটন, একজন ফার্মাসিউটিক্যাল শিল্প পরামর্শক এবং কানাডা ভিত্তিক ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি বায়োনিয়াগারার প্রতিষ্ঠাতা, এই উদ্বেগের প্রতিধ্বনি করেছেন, সম্ভাব্য এইচ৫এন১  মহামারির তীব্রতার উপর জোর দিয়েছেন এবং পরামর্শ দিয়েছেন যে এটি কোভিড -১৯ এর চেয়ে অনেক বেশি মারাত্মক হতে পারে। সম্প্রতি কয়ের হাজার আন্টার্কটিক পেঙ্গুইনের মৃত্যু রহস্যের কিনারা করতে গিয়ে আমেরিকার টেক্সাসের গবেষকরা দেখেন, এর পিছনে রয়েছে বার্ড ফ্লু-র এইচ৫এন১ স্ট্রেইন। এর পরই জানা যায়, সেখানকার একটি গবাদিপশুর খামারেও বার্ড ফ্লু ছড়িয়েছে।   ২০২০ সালে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছিল করোনা সংক্রমণ। কয়েকশো কোটি মানুষ সংক্রমিত হয়েছিলেন তাতে, প্রাণ হারিয়েছিলেন কয়েক কোটি মানুষ। করোনার ধাক্কা সয়ে এসেছে অনেকটাই। এর মধ্যেই এবার আরও ভয়ঙ্কর সংক্রমণের সতর্কতা দিয়ে রাখলেন বিজ্ঞনীরা ।

 

সূত্র : livemint

পাঠকের মতামত

আল্লাহ পাক সকল মানব জাতিকে রক্ষা করুক,আমিন

MR-JAI.
৬ এপ্রিল ২০২৪, শনিবার, ৭:৪৬ অপরাহ্ন

শরীর ও মন থেকে আরও পড়ুন

   

শরীর ও মন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status