ঢাকা, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, মঙ্গলবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৬ শাবান ১৪৪৫ হিঃ

খেলা

ব্রাজিলকে বিদায় করে অলিম্পিকে আর্জেন্টিনা

স্পোর্টস ডেস্ক
১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, মঙ্গলবার
mzamin

‘ব্রাজিলকে হারিয়েই আমরা অলিম্পিকে খেলা নিশ্চিত করবো’- ম্যাচের আগে এমনটাই বলেন আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব-১৯ দলের কোচ হাভিয়ের মাশ্চেরানো। সেটাই করে দেখিয়েছে তার শিষ্যরা। ব্রাজিলের বিপক্ষে বাঁচা-মরার লড়াই জিতেই প্যারিস অলিম্পিকের টিকিট নিশ্চিত করেছে আর্জেন্টিনা। গতকাল  ভেনেজুয়েলায় দক্ষিণ আমেরিকান অঞ্চলের বাছাইয়ের চূড়ান্ত পর্বে ব্রাজিলকে ১-০ গোলে হারায় আর্জেন্টিনা। ৭৭তম মিনিটে হেড থেকে ভাগ্য গড়ে দেওয়া গোলটি করেন লুসিয়ানো গুন্দো। এই হারে এবারের অলিম্পিকসে খেলার আশা শেষ ব্রাজিলের। ২০০৪ সালের পর প্রথমবার অলিম্পিকসে খেলতে পারছে না গত টানা দুইবারের স্বর্ণজয়ী ব্রাজিল। ২০১২তে রুপা ও ২০০৮-এ ব্রোঞ্জ জিতেছিল সেলেসাওরা। ভেনেজুয়েলার রাজধানী কারাকাসে ম্যাচের প্রথমার্ধে কোনো দলই গোলের দেখা পায়নি। ৭৮ মিনিটে মহামূল্যবান গোলটি করেন আর্জেন্টিনার গুন্দো।

বিজ্ঞাপন
ম্যাচে অবশ্য আর্জেন্টিনার দাপটই ছিল বেশি। গোল ছাড়াও মাঠের দ্বৈরথে আধিপত্য দেখায় তারাই। ৬১ শতাংশ বল দখলে রেখে মাশ্চেরানোর শিষ্যরা গোলে শট নেয় ১৪টি, যার মধ্যে লক্ষ্যে ছিল ৩টি। অন্যদিকে ব্রাজিল ৯টি শট নেয় আর্জেন্টিনার মতো ৩টি শট লক্ষ্যে রাখলেও গোল করতে পারেনি। ম্যাচ শেষে আর্জেন্টিনার একমাত্র গোলদাতা গুন্দো বলেন, ‘সত্যি কথা হচ্ছে এ জয় আমাদের প্রাপ্য। আমরা কোনো ম্যাচ হারিনি। কোয়ালিফাই করতে পারাটা দারুণ ব্যাপার।’ এর আগে চূড়ান্ত পর্বের প্রথম দুই ম্যাচে ভেনেজুয়েলা ও প্যারাগুয়ের সঙ্গে ড্র করে চাপে ছিল আর্জেন্টিনা। অন্য দিকে ব্রাজিল প্রথম ম্যাচে প্যারাগুয়ের কাছে ১-০ গোলে হারের পর দ্বিতীয় ম্যাচে ভেনেজুয়েলাকে হারায় ২-১ গোলে। ফলে ব্রাজিলের পয়েন্ট হয় ২ ম্যাচে ৩ এবং আর্জেন্টিনার পয়েন্ট ছিল ২ ম্যাচে ২। আর শীর্ষে থাকা প্যারাগুয়ের পয়েন্ট ছিল ২ ম্যাচে ৪। অলিম্পিকে যেতে তাই শেষ ম্যাচে  আর্জেন্টিনার জন্য জয়ের বিকল্প ছিল না। লাতিন আমেরিকা অঞ্চল থেকে আর্জেন্টিনা ছাড়াও প্যারিস অলিম্পিকের টিকিট কেটেছে প্যারাগুয়ে। অলিম্পিকস ফুটবলের বাছাইয়ে খেলে থাকে অনূর্ধ্ব-২৩ দল। তবে মূল পর্বে ৩ জন করে বেশি বয়সী ফুটবলার খেলানো যায়। আর্জেন্টিনা মূল পর্বে গেলে লিওনেল মেসি ও আনহেল ডি মারিয়া খেলতে পারেন, এমনটা জানায় আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যমগুলো। মূল পর্বে পৌঁছে তাই মেসি-মারিয়াদের জন্য দরজা খোলা রাখলো আর্জেন্টিনার যুব ফুটবলাররা। আগামী ২৬শে জুলাই শুরু হবে প্যারিস অলিম্পিক।

আর্জেন্টিনার কাছে পাত্তা পাচ্ছে না ব্রাজিল
বড়দের খেলায় ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার দেখা হয়েছে মোট ১১০ বার। এতে ৪৩ ম্যাচ জিতেছে সেলেসাওরা। আলবিসেলেস্তেদের জয় ৪১টি। ড্র ২৬ ম্যাচ। কিন্তু বড় বা ছোটদের খেলা মিলিয়ে ২০২১ সাল থেকে হিসাবটা আর্জেন্টিনার পক্ষে একচেটিয়া। কোপা আমেরিকা, বিশ্বকাপ বাছাই, অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপ, অলিম্পিক বাছাই- কোথাও আর্জেন্টিনার কাছে পাত্তা পাচ্ছে না ব্রাজিল। ২০২১ সাল থেকে নীল-হলুদদের ওপর সাদা-আকাশীদের দাপট দেখানো শুরু। সেবার ব্রাজিলকে হারিয়েই কোপা আমেরিকা জেতে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। ২০২১ সালের নভেম্বরে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে আর্জেন্টিনার সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে ব্রাজিল। গত বছর সবশেষ ২০২৬ বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচে মেসিদের কাছে ১-০ গোলে হারে নেইমাররা। গত বছর ইন্দোনেশিয়ায় হওয়া অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিলকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দেয় আর্জেন্টিনা যুব দল। আর সবশেষ গতকাল অলিম্পিক বাছাইয়ে ব্রাজিলকে বিদায় করলো থিয়াগো আলমাদারা।
 

খেলা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

খেলা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2023
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status