ঢাকা, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, বুধবার, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১০ শাবান ১৪৪৫ হিঃ

বাংলারজমিন

আউড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান-শিক্ষিকাসহ ৬ জনের নামে মামলা

নড়াইলে স্কুলছাত্রের পায়ের রগ কর্তন

হুমায়ুন কবীর রিন্টু (নড়াইল) থেকে
৯ ডিসেম্বর ২০২৩, শনিবার

নড়াইলে এসএসসি পরীক্ষার্থীর পায়ের রগ কাটার ঘটনায় স্কুল শিক্ষিকা, ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৬ জনের নামে মামলা করা হয়েছে। গত বুধবার নড়াইল সদর থানায় এ মামলা দায়ের করেন আহত এসএসসি পরীক্ষার্থী আরিয়ান মোল্যার দাদি মাসুমা বেগম। মামলার আসামিরা হলো- জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নড়াইল সদরের আউড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম পলাশ, শিবশংকর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রেমিকার মা রুমানা পারভীন (কেয়া) ও তার ছেলে  মোস্তাইন হাবিব (এলহান), দক্ষিণ নড়াইলের আফছার শেখের ছেলে তুষার শেখ, নুর ইসলামের ছেলে রয়েল শেখ ও একই এলাকার নিশি। নড়াইল শহরের আলাদাতপুর এলাকার স্কুল শিক্ষক রুমানা পারভীন কেয়া’র মেয়ের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে স্কুলছাত্র আরিয়ানের প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। মেয়ের পরিবার ও আত্মীয়-স্বজন এ সম্পর্ক মেনে নিতে পারেনি। এ কারণে প্রেমিকার মায়ের নির্দেশে প্রেমিক আরিয়ানের পায়ের রগ কেটে দেয়ার অভিযোগ তাদের। আরিয়ানকে উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত আরিয়ান জানায়, গত মঙ্গলবার বিকালে বাড়িতে ছিল। এ সময় আউড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম পলাশ তাদের বাড়িতে গিয়ে আরিয়ানকে ডাকাডাকি করেন। কিছুক্ষণ পর দক্ষিণ নড়াইল এলাকার তুষার শেখ ও রয়েল মোল্যা গিয়ে আরিয়ানকে জোর করে প্রাইভেটকারে উঠায়।

বিজ্ঞাপন
এ সময় প্রাইভেটকারে আরও দু’জন নারী ছিলেন। এরপর আরিয়ানকে নড়াইল- গোবরা সড়কের কাড়ারবিলে মাছের ঘেরে নিয়ে যায় তারা। সেখানে নিয়ে তুষার, রয়েল ও এলান আরিয়ানের হাত-পায়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। এ ঘটনায় আরিয়ানের ডান পায়ের রগ কেটে  গেছে। আরিয়ান বলে, জীবন বাঁচাতে ওদের (সন্ত্রাসী) হাত-পা ধরেছি। অনেক অনুনয়-বিনয় করেও কোনো কাজ হয়নি। তারা এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মৃত ভেবে ফেলে রেখে যায়।
এ বিষয়ে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নড়াইল সদরের আউড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম পলাশ বলেন, তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে মামলা দেয়া হয়েছে। অভিযুক্ত অন্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি। নড়াইল সদর থানার ওসি ওবাইদুর রহমান বলেন, আসামিরা সবাই পলাতক রয়েছে, তাদের গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান পরিচালিত হচ্ছে।

 

বাংলারজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2023
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status