ঢাকা, ২ জুলাই ২০২২, শনিবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২ জিলহজ্জ ১৪৪৩ হিঃ

কলকাতা কথকতা

ট্রেন চললেও আশানুরূপ টুরিস্ট না আসায় হতাশ নিউ মার্কেট, লিটল বাংলাদেশ

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা

(৪ সপ্তাহ আগে) ৪ জুন ২০২২, শনিবার, ১১:০৬ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১১:২৩ পূর্বাহ্ন

প্রায় একসপ্তাহ হয়ে গেলো ঢাকা-কলকাতা ট্রেন যাত্রা শুরু হয়েছে, কিন্তু এখনও আশানুরূপ যাত্রী না আসায় কিঞ্চিৎ হতাশ নিউ মার্কেট এবং মারকুইস স্ট্রিট, মির্জা গালিব স্ট্রিট, সদর স্ট্রিট, পার্ক স্ট্রিট, রয়েড স্ট্রিট কে নিয়ে গড়া লিটল বাংলাদেশ। আশা ছিল- ট্রেন চললেই প্রচুর বাংলাদেশি টুরিস্ট এর সমাগম হবে, বিক্রি বাড়বে। কিন্তু মৈত্রী কিংবা বন্ধন এক্সপ্রেসে যাত্রী আসার সংখ্যা অনেক কম। এক একটি ট্রেনে আসছেন ১২৫ থেকে ১৫০ টুরিস্ট। এঁদের মধ্যে মেডিকেল ভিসা নিয়ে আসা টুরিস্টরা সংখ্যায় বেশি। 

নিউ মার্কেট এর ব্যাবসায়ী হীরামল আগরওয়াল এর বক্তব্য, যে পরিমান টুরিস্ট আসছে তাতে ঘটির জলও গরম হয় না। মারকুইস স্ট্রিট, মির্জা গালিব স্ট্রিট এর হোটেল, গেস্ট হাউস গুলো টুরিস্ট এর আশায় সাফ সুতরো করা হয়েছিল, তারাও হতাশ। করোনার ভ্রুকুটি না থাকলেও এখনও করোনা নির্মূল হয়নি। সেই কারণে পর্যটকদের এই অনীহা? ভারত-বাংলাদেশের রেল কর্তৃপক্ষ মনে করছেন, দু'বছর পর ট্রেন চলছে। প্রাথমিক জড়তাতো একটু থাকবেই। তা কেটে গেলেই যাত্রী সংখ্যা বাড়বে। 

বিজ্ঞাপন

পাঠকের মতামত

কিছুটা হলেও খরচ বেশি। গ্রুপ টুর হলে টুরিষ্ট বাড়বে। ট্যুরিজম কোম্পানির তৎপরতা বাড়ানো দরকার। এখন যারা যাচ্ছেন তারা মূলত টুরিষ্ট নন। ব্যক্তিগত কাজ কর্মে যাচ্ছেন।

Kazi Ruhul Amin
৪ জুন ২০২২, শনিবার, ৪:২২ অপরাহ্ন

যারা যাবার তাদের পকেটের অবস্থা খুব খারাপ, কলকাতায় ঘুরতে যায় তো মধ্যবিত্ত ধরনের লোকজন। তাদের অর্থনীতিক অবস্থা খুব খারাপ, বাড়তি পয়সা থাকলে বেড়াতে যাবে........সেটাও নেই। সব টাকা আছে রাজনীতিবিদ আর দু নাম্বারী লোকজন আর কিছু আমলাদের পকেটে। তারা এখন সরকার বদলের চিন্তায় অস্থির, তাই কলকাতায় এখন পর্যটকদের আগমন কম......আগামী ঈদের আগে মনে হয় না, লোকজনের আগমন ঘটবে কলকাতার মার্কেট, হোটেল, মোটেল আর সরাই খানায়।

মাহবুব
৩ জুন ২০২২, শুক্রবার, ১১:৫৯ অপরাহ্ন

কলকাতা কথকতা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

কলকাতা কথকতা থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com