ঢাকা, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ শাওয়াল ১৪৪৫ হিঃ

অনলাইন

সামান্য বৃষ্টি হলেই খুলনার সড়কে জমে হাঁটু পানি

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা থে

(১০ মাস আগে) ২৮ মে ২০২৩, রবিবার, ১২:১৯ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:০৪ পূর্বাহ্ন

mzamin

সামান্য বৃষ্টিতে তলিয়ে যাচ্ছে খুলনা মহানগরীর অধিকাংশ সড়ক। বৃষ্টির পানিতে অলি-গলি ছাড়াও প্রধান প্রধান সড়কগুলো পানিতে থৈ থৈ করে। অধিকাংশ বাড়ি ও দোকানপাটের নিচতলা ডুবে যায়। বৃষ্টি থামার পরও অনেক সড়কের পানি নামে না।

২৭শে মে শনিবার সকাল ও দুপুরে জ্যৈষ্ঠের বৃষ্টিতে অধিকাংশ সড়কে হাঁটুপানি জমে যায়। সড়কগুলো পানিতে ডুবে যাওয়ায় কোথাও কোথাও সড়কে যানবাহন আটকা পড়ে। ফলে যানজটে পড়তে হয় নগরবাসীকে। একটু ভারি বৃষ্টি হলেই নগরীর সড়কে পানি জমে যায়। বিশেষ করে নগরীর খালিশপুর বিআইডিসি রোড, বাস্তহারা, বাইতিপাড়া, শান্তিধাম মোড়, রয়্যাল মোড়, টুটপাড়া, স্যার ইকবাল রোড, শামসুর রহমান রোড ও পিটিআই মোড়ে বৃষ্টি হলেই সড়কগুলো পানিতে তলিয়ে নৌকা চলাচলের উপযোগী হয়ে যায়। টানা বৃষ্টিতে চরম ভোগান্তিতে পড়েন কাজে বের হওয়া মানুষ। অনেক দোকান এবং বাড়ির নিচতলা পানিতে ডুবে যায়।

বিজ্ঞাপন
মুষলধারে বৃষ্টি হলে পয়ঃবর্জ্যে সয়লাব হয়ে যায় আটকে থাকা পানি। অনেক জায়গায় বর্জ্যের অংশ ড্রেনে আটক গিয়ে পানির প্রবাহ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় জলাবদ্ধতা তৈরি হয়। ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন কাজে ধীরগতির কারণে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হচ্ছে বলে অভিযোগ নগরবাসীর।

নগরীর বিআইডিসি রোডের সোহেল রানা বলেন, সামান্য বৃষ্টি হলেই সড়কটি পানিতে তলিয়ে যায়। নতুন রাস্তা মোড় থেকে পিপলস মোড় পর্যন্ত বেহাল দশা। আর আলমনগর ও কদমতলা মোড় পর্যন্ত বৃষ্টি হলে পানি জমে। দীর্ঘদিন ধরে এই সড়কে খানাখন্দ। আর এখন ড্রেনের কাজ চলছে। ফলে পানির প্রবাহ বাঁধাগ্রস্থ হয়ে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টির পানিতে কাঁদা মাটি জমে চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। শুনে আসছি দ্রুত কাজ শেষ হবে, তবে কবে? ড্রেন ও রাস্তার কাজ শেষ হলে এই দূর্ভোগ আর থাকবে না।

নগরীর বাইতিপারা এলাকার দোকানি শাহজাহান সিরাজ বলেন, আধা ঘণ্টা বৃষ্টি হলেই এলাকার রাস্তা ও গলি পানিতে ডুবে যায়। পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা খুব খারাপ। ড্রেন ময়লা-আবর্জনায় ভর্তি। তাই বৃষ্টি থামার পরও পানি নামতে সময় লাগে। আর কষ্ট নিয়ে চলাচল করতে হয় এলাকার মানুষদের।

কেসিসির নির্বাহী প্রকৌশলী (যান্ত্রিক) ও প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা আবদুল আজিজ বলেন, নগরীর অধিকাংশ ড্রেনের সংস্কার কাজ চলছে। আর সে কারণে বৃষ্টি হলেই জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হচ্ছে। আজকে যেসব স্থানে জলাবদ্ধতা তৈরি হয়েছিল সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে এসব এলাকার পানি অপসারণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
খুলনা আঞ্চলিক আবহাওয়া অফিসের সিনিয়র আবহাওয়াবিদ মো. আমিরুল আজাদ বলেন, শনিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত তিন মিলিমিটার এবং দুপুর ১২টা থেকে ২টা পর্যন্ত খুলনায় ২১ মিলিলিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status