ঢাকা, ৩০ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৯ জিলক্বদ ১৪৪৩ হিঃ

কলকাতা কথকতা

সিবিআই'র জেরা এড়াতে লাপাত্তা মন্ত্রী ও তার কন্যা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা

(১ মাস আগে) ১৯ মে ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১১:৫২ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৩:৪৩ অপরাহ্ন

বুধবার ভোর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত বাংলা তথা কলকাতা তোলপাড় হল স্কুল সার্ভিস কমিশনের নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে। এদিন ভোরে রাজ্যের মন্ত্রী পরেশ অধিকারী মেয়ে অঙ্কিতাকে নিয়ে কলকাতায় সিবিআই হাজিরার জন্য আসার পথে বর্ধমান থেকে লাপাত্তা হয়ে যান জেরার সম্মুখীন হবেন না বলে। উত্তীর্ণ না হয়েও মেরিট লিস্টে কি ভাবে অঙ্কিতার নাম উঠেছিল এবং কি ভাবে তিনি চাকরি পান তার অনুসন্ধানের জন্যে হাইকোর্ট তাঁকে এবং মন্ত্রীকে সিবিআই দপ্তরে আসার নির্দেশ দিয়েছিলো। 

পরেশ অধিকারী জেরার সামনে না এলেও আর এক পরেশ, তৃণমূল বিধায়ক পরেশ পাল এদিন সিজিও কমপ্লেক্সে সিবিআই এর মুখোমুখি হন ভোট পরবর্তী হিংসায় বিজেপি কর্মী অভিজিৎ সরকার নিহত হওয়ার ব্যাপারে। 

দিনভর হাইকোর্টের সিঙ্গেল বেঞ্চ, ডিভিশন বেঞ্চ ঘুরেও কোন সুরাহা না পেয়ে প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী সন্ধ্যায় সিবিআই জেরার মুখোমুখি হন নিজাম প্যালেসে। সাড়ে তিন ঘন্টা জেরা করার পর পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে আপাতত ছাড় দেয়া হয়। পার্থ চট্টোপাধ্যায় এর জেরা চলাকালীনই স্কুল সার্ভিস কমিশন এর চেয়ারম্যান পদ থেকে ইস্তফা দেন সিদ্ধার্থ মজুমদার। নতুন চেয়ারম্যান হন শুভ্র চক্রবর্তী। 

নাটক এখানেই শেষ হয় না। মধ্যরাতে এসএসসির দুই চাকরিপ্রার্থী কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির কাছে আবেদন জানান, এসএসসির চেয়ারম্যান বদলের প্রেক্ষিতে তাঁরা তাঁদের নথি সুরক্ষার জন্য কেন্দ্রীয় বাহিনী চান। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় মাঝরাতে বাড়ি থেকে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে শুনানি চালিয়ে রায় দেন, নথিপত্র রক্ষায় কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়োগ করতে হবে। রাত দুটোয় সিআরপিএফ আচার্য ভবনে এসএসসি দপ্তরের দায়িত্ব নেয়।
পুনশ্চ- গরু চুরি কাণ্ডে অনুব্রত মন্ডল, যিনি বীরভূমের তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি, চিঠি লিখে আজ সিবিআই তদন্তের মুখোমুখি হচ্ছেন।     

বিজ্ঞাপন

পাঠকের মতামত

দেশে দেশে রাষ্ট্রব্যবস্থপনায় দূঃনীতি, স্বজনপ্রীতি ও লুটপাট এতোটা প্রকট হওয়ার কারন দলিয় আনুকূল্যে অসৎ ব্যক্তির পদায়ন ও নিয়ন্ত্রক কতৃপক্ষের অসততা। ফলে রাষ্ট্রিয় প্রতিষ্ঠানগুলি সয়ংক্রিয়ভাবে দূঃনীতি রোধে কাজ করে না। তাছাড়া দলিয় নেতার অসততা দলের অসততা প্রমানিত হতে পারে এমন বিবেচনায় দল বহু ক্ষেত্রে দূর্নীতিবাজ দলবাজের পক্ষ নেয়।

মোহাম্মদ হারুন আল রশ
১৯ মে ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১২:১৩ পূর্বাহ্ন

কলকাতা কথকতা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

কলকাতা কথকতা থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com