ঢাকা, ১৮ মে ২০২৪, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

বাংলারজমিন

তীব্র দাবদাহে ঝরছে আমের গুটি, পুড়ছে উত্তরের স্বপ্ন

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী থেকে
১৯ এপ্রিল ২০২৪, শুক্রবার
mzamin

তীব্র দাবদাহে পুড়ছে রাজশাহী অঞ্চল। তার মাঝে এ অঞ্চলের অর্থকরী ফসল আমের ফলন ধরে রাখা নিয়ে শঙ্কায় আছেন আমচাষিরা। তীব্র দাবদাহে বোঁটার রস শুকিয়ে ঝরে পড়ছে আমের গুটি। পানি সেচ ও নানা পদ্ধতি অবলম্বন করেও গুটি ঝরে পড়া ঠেকানো যাচ্ছে না। ফলে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন আমচাষিরা। আম উৎপাদনে বিপর্যয়ের আশঙ্কা করছেন তারা। পরিস্থিতি মোকাবিলায় সব উপজেলায় খরা মোকাবিলায় আমের গুটি টিকিয়ে রাখতে চাষিদের পরামর্শ দিতে কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোছা. উম্মে সালমা। চাষিরা দাবি করেছেন, ইতিমধ্যে অনেক বাগানে প্রায় ৩০ ভাগ আমের গুটি ঝরে পড়েছে। আমচাষি ও ব্যবসায়ীরা বলছেন, রাজশাহীর ৯ উপজেলায় ব্যাপক আম চাষ হয়। এ বছর আম বাগানে মুকুল এসেছিল চাহিদার তুলনায় অনেক কম।

বিজ্ঞাপন
এরপর গত কয়েক দিনের তীব্র দাপদাহে আমের বোঁটা শুকিয়ে ঝরে পড়ছে গুটি। এতে পানি সেচ ও নানা পদ্ধতি অবলম্বন করেও ঝরে পড়া ঠেকানো যাচ্ছে না। রাজশাহী কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, ৯ উপজেলায় ১৯ হাজার ৬০২ হেক্টর জমিতে আমবাগান রয়েছে। সবমিলে এবার দুই লাখ ৬০ হাজার ১৬৪ টন আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। গতবার জেলার ১৯ হাজার ৫৭৮ হেক্টর জমি থেকে আমচাষিদের আয় হয়েছিল এক হাজার ৫২৮ কোটি দুই লাখ ৯৯ হাজার ৭৭০ টাকা। রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রহিদুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার জেলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। আগের দিন বুধবার ৪০ দশমিক ২ ডিগ্রি ও মঙ্গলবার ৩৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়। রাজশাহীতে গত চারদিনে মৃদু থেকে মাঝারি তাপপ্রবাহ চলছে। আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টির কোনো সম্ভাবনা নেই। বরং তাপমাত্রা আরও বাড়বে। নগরীর খড়খড়ি বাইপাশের আমচাষি শরিফুল ইসলাম কাদু বলেন, তীব্র দাপদাহে আমের বোঁটার রস শুকিয়ে হলুদ আকার ধারণ করে ঝরে পড়ছে। মৌসুমের শুরুর দিকে বেশ ভালো মুকুল এলেও ঘন কুয়াশা ও হালকা বৃষ্টিতে প্রথম দফায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এরপর যে খরা চলছে এতে গাছে আম ধরে রাখায় কষ্টকর। কাশিয়াডাঙ্গার এনতাজ আলী বলেন, আমের জন্য এ সময় বৃষ্টি খুবই প্রয়োজন। বৃষ্টি না হওয়ার কারণে এবার আমের আকার বেশ ছোট হবে। সেই সঙ্গে উৎপাদনও কমবে। এবার মৌসুমের শুরু থেকেই আমের দাম বেশ চড়া থাকবে। কেননা গাছে আম নেই। রাজশাহী ফল গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, গত বছর আমের অন ইয়ার থাকলেও এবার অফ ইয়ার, ফলে স্বাভাবিকভাবেই আমের ফলন কমবে। তবে প্রতিকূল আবহাওয়ায় কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ব্যাহত হবে। এ সময় চাষিদের বিভিন্ন হপার পোকা নিধনে ওষুধের পাশাপাশি সকাল- সন্ধ্যা পানি স্প্রে করা দরকার।

 

বাংলারজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status