ঢাকা, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, মঙ্গলবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৬ শাবান ১৪৪৫ হিঃ

কলকাতা কথকতা

ভারত, বাংলাদেশের বাজার ছেয়ে গেছে নকল জিগানা পিস্তলে

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা

(১০ মাস আগে) ২০ এপ্রিল ২০২৩, বৃহস্পতিবার, ১০:৩৬ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:২৭ পূর্বাহ্ন

mzamin

কালো কুচকুচে গায়ের রং। লম্বায় ছ ইঞ্চির বেশি নয়। মেড ইন তুরস্ক- এই পিস্তলই প্রাণ নিয়েছে রাজনীতিবিদ কাম ডন আতিক আহমেদ এবং তার ভাই আশরাফের। ২০০১ সালে টিসাস কোম্পানি এই পিস্তল বাজারে আনে। ম্যাগাজিনে একসঙ্গে ১৫টি বুলেট থাকে। ১১টি মডেল আছে জিগানার। কোনো কোনো মডেলের ম্যাগাজিনে ১৮টি বুলেটও ভরা যায়। একেকটি পিস্তলের দাম ছয় থেকে সাত লক্ষ রুপি। কিন্তু, নকল বেরিয়ে গেছে জিগানার। পাকিস্তানের একটি অস্ত্র ব্যবসায়ী গোষ্ঠী এই নকল জিগানা বাজারে ছেড়েছে।

বিজ্ঞাপন
দাম একেকটির ১৭ হাজার পাকিস্তানি রুপি। ভারত এবং বাংলাদেশের অস্ত্র বাজার ছেয়ে গেছে এই নকল জিগানায়। অনুমান করা হচ্ছে এই নকল পিস্তল দিয়েই হত্যা করা হয় আতিককে। তুরস্ক, আজারবাইজান, মালয়েশিয়া, আমেরিকা এবং কোস্টারিকায় আসল জিগানার খুব কদর। পাকিস্তানের অস্ত্র ব্যবসায়ী গ্রুপটি এই সুবিধাটি নিয়েছে। বেরোতো এবং গ্লক পিস্তলের নকল তারা বাজারে ছেড়েছে। নকল বেরোতোর দাম ২৮ হাজার রুপি, গ্লক ৩০ হাজার। আসলের দাম ঢের বেশি। ভারত-বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থার সুযোগ নিচ্ছে পাকিস্তানের এই গোষ্ঠীটি। জিগানার স্মুথ অপারেশন, কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে ম্যাগাজিন খালি করার দক্ষতা ভারত ও বাংলাদেশের আন্ডারওয়ার্ল্ডকে আকৃষ্ট করছে এই পিস্তলের প্রতি। আসলের অনেক দাম, তাই নকলই সই- এই মানসিকতা এখন অন্ধকার দুনিয়ার।      
 

কলকাতা কথকতা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

কলকাতা কথকতা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2023
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status